প্রকাশিত :  ০৫:০৯, ০৩ ডিসেম্বর ২০১৯

নির্বাচনি ঢামাঢোলের মধ্যেই লন্ডনে আসছেন ট্রাম্প

নির্বাচনি ঢামাঢোলের মধ্যেই লন্ডনে আসছেন ট্রাম্প

জনমত ডেস্ক:  ব্রিটেনের নির্বাচনি ঢামাঢোলের মধ্যেই লন্ডনে ন্যাটো সম্মেলনে অংশ নিতে রওনা দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ব্রিটিশ নির্বাচন নিয়ে মন্তব্য করে বিরোধী দলের তোপের মুখে রয়েছেন তিনি। মিত্র হিসেবে পরিচিত বরিস জনসনও ট্রাম্পের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন নির্বাচন নিয়ে মন্তব্য করা থেকে বিরত থাকতে।

২০১৬ সালে এক গণভোটে ব্রেক্সিটের পক্ষে রায় দেন যুক্তরাজ্যের ভোটাররা। ব্রেক্সিটের পর ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) সঙ্গে যুক্তরাজ্যের সম্পর্কের শর্ত নির্দিষ্ট করে কয়েক দফায় তৈরি হয় ব্রেক্সিট চুক্তি। তবে ব্রিটিশ পার্লামেন্ট এসব চুক্তি অনুমোদন করেনি। পার্লামেন্টে দলের আসন বাড়াতে ১২ ডিসেম্বর আগাম নির্বাচনের ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। এই নির্বাচনে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন লেবার পার্টির নেতা জেরেমি করবিন।

ট্রাম্প শুরু থেকেই ব্রেক্সিট ও জনসনের সমর্থনে প্রকাশ্যেই কথা বলে আসছেন। তবু নির্বাচনকে সামনে রেখে ট্রাম্পের বিতর্কিত মন্তব্যের শঙ্কায় রয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী। তিনি চাইছেন ট্রাম্প যেন এমন কোনও মন্তব্য না করেন, যাতে করে মার্কিন প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে ব্রিটিশ নির্বাচনে হস্তক্ষেপের অভিযোগ ওঠে।

জনসনের এমন মন্তব্য ট্রাম্পের জন্য অস্বস্তিকর হয়ে দাঁড়িয়েছে। ন্যাটো সম্মেলনের পার্শ্ব বৈঠকে জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা ম্যার্কেল, ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ এবং ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের সঙ্গে আলোচনা কথা রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে জনসনের সঙ্গে বৈঠকে নির্বাচন নিয়ে কথা বলতে পারেন ট্রাম্প।

এর আগে অক্টোবরে লেবার পার্টির নেতা জেরেমি করবিনকে নিয়ে মন্তব্য করেছিলেন ট্রাম্প। তিনি বলেছিলেন, করবিন ব্রিটেনের জন্য ‘খুবই খারাপ’। এরপরই ট্রাম্পের ওপর নির্বাচনে হস্তক্ষেপের অভিযোগ আনেন করবিন।



Leave Your Comments


নির্বাচন এর আরও খবর