প্রকাশিত :  ২০:৪৫, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮
সর্বশেষ আপডেট: ২০:৫২, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

যুক্তরাজ্যে যুব মহিলা লীগের উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন পালন

 যুক্তরাজ্যে যুব মহিলা লীগের উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন পালন

জনমত রিাপোর্ট ।। প্রধানমন্ত্রী শেখহাসিনার ৭২তম জন্ম বার্ষিকী উপলক্ষে পূর্ব লন্ডনে যুক্তরাজ্য যুব মহিলা লীগ আয়োজন করে এক দোয়া মাহফিল এবং আলোচনা সভার। যুক্তরাজ্য যুব মহিলা মহিলা লীগের সাধারন সম্পাদক সাজিয়া সুলতানা স্নীগ্ধার সভাপতিত্বে এবং সহ সাধারন সম্পাদক শাহিন নাহার লীনার সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফ এবং প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল আহাদ চৌধুরী। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাজ্য যুবলীগের সহ সাধারন সম্পাদক জামাল আহমেদ খান, যুক্তরাজ্য যুবলীগের কার্যকরী কমিটির সদস্য খালেদ আহমেদ জয়।

স্বাগত বক্তব্যে সাজিয়া সুলতানা স্নিগ্ধা ঘোষণা করেন নির্বাচনকে সামনে রেখে গত নয় বছরে আওয়ামীলীগ সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড যুক্তরাজ্য যুব মহিলা লীগ যুক্তরাজ্যের প্রতিটি শহর এবং প্রতিটি বাঙ্গালীর ঘরে পৌঁছে দিবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী গত কয়েকদিন আগে যুক্তরাজ্য সফরে যুক্তরাজ্য যুব মহিলা লীগ কে সে নির্দেশনাই প্রদান করে গেছেন। আধুনিক, উন্নত, মানবিক বাংলাদেশের সফল রাষ্ট্র নায়ক শেখ হাসিনাকে জাতিসংঘের অধিবেশন চলাকালে ১০ লাখ রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দেয়ায় ‘ইন্টারন‍্যাশনাল অ‍্যাচিভমেন্ট অ‍্যাওয়ার্ড’ এবং রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে দুরদর্শী নেতৃত্বের জন্য ‘স্পেশাল রিকগনিশন ফর আউটস্ট‍্যান্ডিং লিডারশীপ অ‍্যাওয়ার্ড’প্রদানে অভিনন্দন এবং শুভেচ্ছা জানানো হয় যুক্তরাজ্য যুব মহিলা লীগের পক্ষ থেকে।

প্রধান অতিথি সুলতান মাহমুদ শরীফ মুঠোফোনে বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তাঁরদূরদর্শী নেতৃত্ব, সাহসী পদক্ষেপ,  দীর্ঘ মেয়াদীপরিকল্পনা, অগ্রগতিশীল উন্নয়ন কৌশলগ্রহণের ফলে বাংলাদেশের সামগ্রিকঅর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি বিশ্ব দরবার বাংলাদেশকে পরিচয় করিয়েছে এক নতুন পরিচয়ে। নারীদের অংশগ্রহণও বেড়েছে সর্বক্ষেত্রে। যুক্তরাজ্য যুব মহিলা লীগ তাঁর অন্যতম উদাহরণ। যুক্তরাজ্যের অন্যতম শক্তিশালী সংগঠন যুক্তরাজ্য যুব মহিলালীগের সকল কাজে আওয়ামী পরিবারের সহযোগিতা সবসময় পাশে থাকবে।

প্রধান বক্তা আবদুল আহাদ চৌধুরী বলেন , বাংলাদেশ নিম্ন আয়ের দেশ থেকে মধ্যম আয়ের দেশে ধাবিত। বাংলাদেশের উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখতে  জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতে দেশের দায়িত্ব ভার আবার অর্পণ করতে হবে।   বাংলাদেশকে আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে, ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশএবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত-সমৃদ্ধ দেশেপরিণত করতে জননেত্রী শেখ হাসিনার কোন বিকল্প নেই।আগামী প্রজন্মের জন্য একটিউন্নত,দারিদ্র্যমুক্ত, ক্ষুধামুক্ত,  সুখী-সমৃদ্ধবাংলাদেশ গড়ে তুলতে শেখ হাসিনার হাতে দেশের দায়িত্ব ভার অর্পণ করতে হবে। যুক্তরাজ্য যুব মহিলা লীগ সে লক্ষ্যে কাজ করবেন আশা করি।মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সফরে যুক্তরাজ্য যুব মহিলা লীগের বিপুল উপস্থিতির জন্য আরও বিশেষ ধন্যবাদ জানান আওয়ামী পরিবারের পক্ষ থেকে।

আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন শাহনাজ সুমি, হাসিনা হোসেন তুহিন, মাহমুদা মনি, সোনিয়া পারভিন , মিফাতুল নুর, তাহমিনা সাখাওয়াত, সুফিয়া জেমিন, মনিরা মলি, সাইকা, সোহা প্রমুখ।আলোচনা সভা শেষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সু-স্বাস্থ্যএবং দীর্ঘায়ু কামনা করে মিলাদ মাহফিল এবং কেক কাটা হয়।



Leave Your Comments


কমিউনিটি এর আরও খবর