পুলিশি হত্যাকাণ্ড

প্রকাশিত :  ০৯:৩৮, ১৫ অক্টোবর ২০২০
সর্বশেষ আপডেট: ১২:২৮, ১৫ অক্টোবর ২০২০

রায়হানের প্রবাসী বোনের আর্তনাদ: কোন বোন যেন তার ভাইকে এভাবে না হারায়

রায়হানের প্রবাসী বোনের আর্তনাদ: কোন বোন যেন তার ভাইকে এভাবে না হারায়

জনমত ডেস্ক : সিলেট নগরীর বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে পুলিশের নির্যাতনে নিহত রায়হান আহমদের যুক্তরাজ্য প্রবাসী বোন রুবা আকতার এক মাত্র ভাইয়ের হত্যার সুষ্ঠু বিচার চেয়েছেন। ১৪ অক্টোবর বুধবার বিকাল ৪টায় পূর্ব ভয়েস ফর জাস্টিস ইউকের ডাকে লন্ডনের আলতাব আলী পার্কে কভিড ১৯ এর কঠোর বিধি নিষেধ উপেক্ষা করে শতাদিক মানুষ মানববন্ধনে অংশনেন।

প্রবীন কমিউনিটি নেতা ও সংগঠনের সভাপতি কে এম আবু তাহের চৌধুরীর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে এক সময় অংশনেন নিহত রায়হান আহমদের একমাত্র বোন রুবা আকতার। এসময় তাঁকে ভাইয়ের পোস্টারের ছবি জড়িয়ে অঝোরে কাঁদতে দেখা যায়।

সভার শেষ পর্যায়ে রুবা আকতার তার বক্তব্যে তিনি ছিনতাইকারীর মত মিথ্যা অপবাদেরও নিন্দা জানান। তার অভিযোগ, পুলিশ ধরে নিয়ে নির্যাতন করে রায়হানকে হত্যা করেছে। এর প্রমান হিসেবে সিসি টিভি ফুটেজ ও ফোন কলের প্রমান এসেছে বিভিন্ন মিডিয়া। তিনি এপর্যন্ত যারা দেশে বিদেশে তার ভাই হত্যার বিচারের দাবীতে প্রতিবাদ করেছেন, আন্দোলন করেছেন, তাদের সভার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান। তিনি বলেন, আপনারাই এখন আমার আপনজন। আমার ভাইকে হাঁরিয়েছি। আর কোন বোন, আর কোন মা, আর কো স্ত্রী, আর কোন সন্তান যেন এভাবে তার স্বজন না হারায়। তিনি বলেন, আপনার আন্দোলন করলে আমি আমার ভাইয়ের বিচার পাব।

কমিউনিটি নেতা মোহাম্মদ শফিক খানের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত এ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের সাবেক ডেপুটি মেয়র ওহিদ আহমদ, জাস্টিস ফর রোহিঙ্গা ইউকের ডাইরেক্টর ড: শায়েখ রামজি, সাপ্তাহিক সুরমার সম্পাদক শামসুল আলম লিটন, কমিউনিটি নেতা আলহাজ্ব নুর বকশ, অধ্যাপক আব্দুল কাদের সালেহ, মাওলানা রফিক আহমদ, নিহত রায়হান আহমদের বোন মিসেস রুবা আক্তার, ভগ্নিপতি মফজ্জিল আলী,ভাগিনী মাহিয়া আক্তার, সাংস্কৃতিক কর্মী তাজবির চৌধুরী শিমুল, সাংবাদিক জয়নাল আবেদীন, সাবেক কাউন্সিলার শাহ আলম,অধ্যক্ষ ফখর উদ্দিন চৌধুরী, কমিউনিটি নেতা হাজী হাবিব, আব্দুল মুকিত রাজিব, ইকুয়েল রাইটস ইন্টারন্যাশনাল এর চেয়ারমান সাংবাদিক মাহবুব আলী খানসূর, ভাইস চেয়ারম্যান নউশিন মোস্তারী মিয়া সাহেব,রাইহান চৌধুরী, আবু জাফর আব্দুল্লাহ, সাইয়েদ জাকারিয়া, শাহেদ রহমান, বিএনপি নেতা কদর উদ্দিন প্রমুখ ।

সভায় নিহত রায়হান আহমদের পরিবারের সদস্য ছাড়াও বিপুল সংখ্যক লোক মানব বন্ধনে অংশ নেন । সভায় কান্না জড়িত কন্ঠে মিসেস রুবা আক্তার পুলিশের হাতে নিষ্ঠুরভাবে নিহত ভাইয়ের সুবিচার কামনা করেন ।

সভায় বক্তারা নিরীহ যুবক রায়হান আহমদকে পুলিশি হেফাজতে পিটিয়ে নির্মমভাবে হত্যার তীব্র ও নিন্দা জানানো হয় । সভায় গৃহীত প্রস্তাবে, অনতিবিলম্বে খুনী পুলিশ অফিসারদের গ্রেফতার করে সুবিচারের মাধ্যমে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার দাবী জানানো হয় ।

অপর এক প্রস্তাবে নিহত রায়হান আহমদের দুই মাসের শিশু ও পরিবারকে ক্ষতিপূরণ প্রদান এবং সরকারের দায়িত্ব নেওয়ার জোর দাবী জানানো হয় । সভায় পুলিশ জনগণের রক্ষক হয়েও অন্যায়ভাবে যে সব চাঁদাবাজি, ক্রস ফায়ার ও গণ হয়রানীমূলক কাজ করছে তার তদন্ত পূর্বক বিহীত ব্যবস্থা গ্রহণ ও বন্ধ করার জন্য বাংলাদেশ সরকারের কাছে অনুরোধ জানানো হয়।


Leave Your Comments


কমিউনিটি এর আরও খবর