মার্কিন নির্বাচনে আরও এক ফিলিস্তিনি নারীর জয়

প্রকাশিত :  ১২:৫৩, ০৬ নভেম্বর ২০২০
সর্বশেষ আপডেট: ১২:৫৯, ০৬ নভেম্বর ২০২০

মার্কিন নির্বাচনে আরও এক ফিলিস্তিনি নারীর জয়

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে জয় পেয়েছেন ফিলিস্তিন বংশোদ্ভূত ইমান জোদেহ।  জো বাইডেনের নেতৃত্বাধীন ডেমোক্র্যাটিক দলের প্রার্থী হিসেবে কালারয়েডো এলাকার রিপাবলিকান প্রার্থী রবার্ট এনড্রিউসকে হারিয়ে তিনি মার্কিন কংগ্রেসের হাউজ অব রিপ্রেজেনটেটিভ হিসেবে জয় পেয়েছেন। খবর মিডলইস্ট মনিটরের। 

নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে বুধবার জয়ের খবর জানিয়ে সমর্থকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আমি পেরেছি।  আমি সবার জন্য স্বপ্নের আমেরিকা বিনির্মাণে নিজেকে নিয়োজিত করব। আমি একজন মুসলিম হিসেবে গর্বিত, ফিলিস্তিনি আমেরিকান হিসেবে গর্বিত।  আমি আমেরিকার নতুন প্রজন্ম।  আর আমি আমার কালারয়েডো রাজ্যের যাদের প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করব আমার সেই কমিউনিটি ও জনগণের জন্য গর্ববোধ করছি। 

এখন আমার কাজের সময়। ’

তার এক সমর্থক টুইটবার্তায় বলেন, ঈমান জোদেহ এমন একজন ডেমোক্র্যাট যিনি কালারয়েডো রাজ্যের হাউজ ডিস্ট্রিক্ট ৪১-এর ইতিহাসে প্রথম কোনো মুসলিম আইনপ্রণেতা। 

এর আগে ফিলিস্তিনি আমেরিকান হিসেবে পুনরায় জয় পেয়েছেন মিশিগানের রাশিদা তালিব।  এছাড়া মুসলিম নারী হিসেবে মিনেসোটা থেকে কংগ্রেসে নির্বাচিত হয়েছেন ইলহান ওমর।

কে এই ঈমান জুদেহ


জুদেহর বাবা মোহাম্মদ ও মা সিহাম অভিবাসী ও শরণার্থী হিসেবে ১৯৭৪ সালে যুক্তরাষ্ট্রের  কালারয়েডোয় আসেন।  ঈমান জুদেহ জেনারেল অ্যাডমিনিস্ট্রেশনে পোস্ট গ্রাজুয়েশন করেছেন।  কালারয়েডো রাজ্যের বিভিন্ন সংগঠনের সঙ্গে সক্রিয়ভাবে জড়িত ঈমান জুদেহ কালায়েডো উইমেন্স লবির বোর্ড মেম্বার। কালারয়েডোর বিভিন্ন অধিকার আন্দোলনে ব্যাপকভাবে সক্রিয়। কমিউনিটির শিক্ষিত মানুষ ও সমাজনেতাদের কাছে বিশেষভাবে গ্রহণযোগ্যতা তৈরি করেছেন তিনি।

তার বাবা গত ৫ দশক ধরে ওই রাজ্যে ক্ষুদ্র ব্যবসা করছেন। ওয়েবসাইটে জুদেহ লিখেছেন, আমাদের ঐতিহ্য, ইতিহাস, সংস্কৃতি ও ভাষা যাতে ভুলে না যাই সেজন্য আমার বাবা-মা গ্রীষ্মে ফিলিস্তিনে নিয়ে যান। 

Leave Your Comments


নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে ৩০ দল, মনোনয়নপত্র জমা পড়েছে ২৭৪১

প্রকাশিত :  ১৮:০৬, ৩০ নভেম্বর ২০২৩
সর্বশেষ আপডেট: ১৮:২৮, ৩০ নভেম্বর ২০২৩

 অত্যাসন্ন ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে তফশিল অনুযায়ী ৩০০ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন মোট ২ হাজার ৭৪১ জন প্রার্থী। এই নির্বাচনে মোট ৩০টি রাজনৈতিক দল অংশ নিয়েছে। 

বৃহস্পতিবার রাতে নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব মো. জাহাংগীর আলম যুগান্তরকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ভোটের ৫২ দিন আগে গত ১৫ নভেম্বর দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফশিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। তফশিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র জমার শেষ তারিখ ছিল ৩০ নভেম্বর। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই হবে ১ থেকে ৪ ডিসেম্বর। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ১৭ ডিসেম্বর। প্রতীক বরাদ্দ ১৮ ডিসেম্বর। ১৮ ডিসেম্বর থেকে ৫ জানুয়ারি পর্যন্ত ভোটের প্রচার চালাতে পারবেন প্রার্থীরা। ভোট হবে আগামী ৭ জানুয়ারি। 

তফশিল অনুযায়ী, আজই (৩০ নভেম্বর) ছিল মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ দিন। 

রিটার্নিং অফিসে উপস্থিত হয়ে ২ হাজার ৭২০ জন প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। আর ২১ জন প্রার্থী অনলাইনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন, যা ২০১৮ সালের নির্বাচনের তুলনায় প্রায় অর্ধেক।২০১৮ সালে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে ইসি জানিয়েছিল, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মোট ৩৯ জন প্রার্থী অনলাইনে মনোনয়নপত্র জমা দেন।

ইসি সূত্রে জানা গেছে, দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার জন্য ৩৬৯ জন নিবন্ধন করলেও শেষ দিনে (বৃহস্পতিবার) বিকাল ৫টা পর্যন্ত অনলাইনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ২১ জন।


img