প্রকাশিত :  ১৬:৫১, ২৭ নভেম্বর ২০১৮

গ্রেটার সিলেট কাউন্সিলের বর্ণাঢ্য রজত-জয়ন্তী

গ্রেটার সিলেট কাউন্সিলের বর্ণাঢ্য রজত-জয়ন্তী

জনমত রিপোর্ট ।। সিলেট বিভাগের ৪টি জেলা, সিলেট, সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার ও হবিগঞ্জ জেলার যুক্তরাজ্য প্রবাসীদের নিয়ে ২৫ বছর আগে প্রতিষ্ঠিত হয় গ্রেটার সিলেট ডেভোলাপমেন্ট এন্ড ওয়েলফেয়ার কাউন্সিল সংক্ষেপে জিএসসি। গত ২৫ নভেম্বর রবিবার পূর্ব লন্ডনের রয়েল রিজেন্সি হলে দিনব্যাপী বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যদিয়ে সম্পন্ন হয়েছে সংগঠনটি রজত-জয়ন্তী অনুষ্ঠান। এতে যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন শহর থেকে রিজিওয়ান নেতৃবৃন্দসহ, কমিউনিটি নেতৃবৃন্দসহ সাবেক ও বর্তমান কমিটির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে সংগঠনের প্রতিষ্ঠাকালিন সময় যারা অবদান রেখেছেন তাদের মধ্যে থেকে ২১জনকে এওয়ার্ড প্রদান করা হয়। সম্মেলনে নতুন প্রজন্মকে সংগঠনের সদস্য করার উপর গুরুত্ব দেয়া হয় এবং সিলেটে একটি ভবন নির্মান করা হবে বলে জানানো হয়।
ভ্রাতৃত্ববোধ, ইউনিটি ও কমিউনিটির উন্নয়নের লক্ষ্য নিয়ে গঠিত জিএসসি প্রতিষ্ঠার পর থেকে কমিউনিটির কল্যানে কাজ করে যাচ্ছে। আগামীতেও এধারা অব্যাহত থাকবে বলে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন উপস্থিত নেতৃবৃন্দ। এবছরের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর ব্যাপক সফলতায় উৎসাহিত হয়ে সংগঠনটি আগামীতে প্রতি বছর এদিনটি বৃহত্তর সিলেট উৎসবে পরিনত করার পরিকল্পনা নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন।
এছাড়া সংগঠনের উদ্যোগে সিলেটে একটি ভবন নির্মানের পরিকল্পনা নিয়েছে বর্তমান কমিটি। এতে নতুন প্রজন্মের ব্রিটিশ বাংলাদেশীরা উপকৃত হবেন বলে জানিয়েছেন তারা।
২৫ বছর পূর্তি অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের চেয়ারপার্সন ব্যারিস্টার আতাউর রহমান এবং অনুষ্ঠান বাস্তবায়ন কমিটির আহবায়ক ও সংগঠনের সহ সভাপতি মির্জা আসহাব বেগ। অনুষ্ঠানের শুরুতে বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত ও ব্রিটেনের জাতীয় সংগীত পরিবেশন করা হয়। সংগঠনের জেনারেল সেক্রেটারী খসরু খানের পরিচালনায় সভায় ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে বিশাল ম্যাগাজিনের মোড়ক উন্মোচন করেন সংগঠনের প্রেটন আলহাজ্ব নাসির আহমদ, কে এম আবু তাহের চৌধুরী, ড. হাসনাথ হোসেন এমবিই সহ সাবেক ও বর্তমান কমিটির নেতৃবৃন্দ।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রাখেন ইলফোর্ড সাউথের মাইক গিভস এমপি, টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের স্পীকার কাউন্সিলার আয়াছ মিয়া, সুইন্ডনের মেয়র কাউন্সিলার জুনাব আলী, নিউহাম বারার ডেপুটি চেয়ারম্যান কাউন্সিলার ব্যারিস্টার নাজির উদ্দিন, চ্যানেল এস এর চেয়ারম্যান আহমদ উস-সামাদ চৌধুরী জেপি, চ্যানেল এস এর ফাউন্ডার মাহী ফেরদৌস জলিল, ক্যারিয়াফ গ্রুপের জাকির খান, এফওবিসির চেয়ারম্যান ইয়ার খান, কমিউনিটি নেতা ড. নূরুল আলম, সাবেক চেয়ারপার্সন আলহাজ্ব আলা উদ্দিন আহমদ, নূরুল ইসলাম মাহবুব, জিএসসির ফাউন্ডার জেনারেল সেক্রেটারী কয়ছর মাহমুদুল হক সৈয়দ, ফাউন্ডার ট্রেজারার মাহীদুর রহমান, ফাউন্ডার কো-অডিনেটর ওয়ালি তসর উদ্দিন এমবিই, সালেহ আহমদ খান এমবিই, মাহতাব মিয়া, বর্তমান ট্রেজারার সালেহ আহমদ, সাবেক জেনারেল সেক্রেটারী আব্দুল কাইয়ুম কয়ছর, সাবেক সহ সভাপতি এম এ মান্নান, লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাব সভাপতি সৈয়দ নাহাস পাশা, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জুবায়ের প্রমুখ।
যাদেরকে এওয়ার্ড প্রদান করা হয় তারা হচ্ছেন প্রায়ত তাসাদ্দুক আহমদ এমবিই, প্রয়াত ওয়াহিদ আহমদ কুতুব, প্রয়াত মুফাচ্ছিল আলী, প্রয়াত মৌলানা ইজ্জ্বত আলী, আলহাজ্ব এম আলাউদ্দিন আহমদ, ড. সুহেল ইবনে আজিজ, সালেহ আহমদ খান এমবিই, ওয়ালি তসর উদ্দিন এমবিই, ড. কবির চৌধুরী, সাজিদা চৌধুরী, কয়ছর মাহমুদুল হক সৈয়দ, মুস্তাসিম আলী (সিতু মিয়া), মাহিদুর রহমান, আলী ইসমাইল, হাসান চৌধুরী, গোলাম মোস্তফা চৌধুরী, সৈয়দ জুরান আলী, মিয়া মনিরুল আলম, বদরুল লুদী।
জিএসসি কমিউনির বিভিন্ন দাবী দাওয়া নিয়ে ব্রিটেনে ও বাংলাদেশে কাজ করে যাচ্ছে। আগামীতেও আরো ব্যাপক পরিসরে কাজ করবে এটাই সকলের প্রত্যাশা।
অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে মুনোজ্ঞ সাংস্কৃতি অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।



Leave Your Comments


কমিউনিটি এর আরও খবর