প্রকাশিত :  ১৬:৩২, ২৯ নভেম্বর ২০১৮

উবারকে দিতে হচ্ছে ১০ কোটি টাকা জরিমানা

উবারকে দিতে হচ্ছে ১০ কোটি টাকা জরিমানা

যুক্তরাজ্য এবং নেদারল্যান্ডস উবারকে ৯ লাখ পাউন্ড অর্থাৎ বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ১০ কোটি টাকা জরিমানা করেছে। গ্রাহকদের তথ্য চুরির ঘটনায় এই জরিমানা করা হয়। ২০১৬ সালে একজন হ্যাকার নিরাপত্তা ব্যবস্থায় দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে এসব তথ্য হাতিয়ে নেয়। সূত্র : সময় টিভি

বিবিসি’র একটি প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, যুক্তরাজ্যের ইনফরমেশন কমিশনারস অফিস (আইসিও) উবারকে ৩ লাখ ৮৫ হাজার পাউন্ড জরিমানা করেছে। গ্রাহকদের স্পর্শকাতর তথ্যের সুরক্ষায় ব্যর্থতার অভিযোগে এ জরিমানা করা হয়েছে। অন্যদিকে ডাচ ডাটা প্রোটেকশন অথরিটি উবারকে জরিমানা করেছে ৫ লাখ ৩২ হাজার পাউন্ড। নেদারল্যান্ডসের তথ্য সুরক্ষা আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে এ জরিমানার মুখোমুখি হতে হচ্ছে প্রতিষ্ঠানটিকে।
আইসিও জানিয়েছে, ২০১৬ সালে তথ্য চুরির ঘটনায় উবার উদাসীনতার পরিচয় দিয়েছে। সংস্থাটি মনে করছে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করলে এ তথ্য চুরি এড়ানো সম্ভব হতো। পুরো ঘটনাটিকেই উবার অবহেলা করেছে এবং দায়িত্বহীনতার পরিচয় দিয়েছে বলেও জানিয়েছে আইসিও।

সংস্থাটি আরো জানায়, এ ঘটনায় যুক্তরাজ্যের প্রায় ২৭ মিলিয়ন রাইডার ও ৮২ হাজার চালকের তথ্য ফাঁস হয়েছে । ব্যক্তিগণ তথ্যের পাশাপাশি তাদের সব ট্রিপের তথ্য এবং লেনদেন সংশ্লিষ্ট তথ্যও ছিলো।

নিরাপত্তা ত্রুটির সুযোগ নিয়ে ২০১৬ সালে একজন হ্যাকার উবারের ৫৭ মিলিয়ন রাইডার এবং প্রায় ৭ মিলিয়ন চালকের তথ্য চুরি করে। এই হ্যাকার তথ্য চুরির পর নিজের ব্যক্তিগণ গিটহাব রেপোজিটরিতে এসব তথ্য প্রকাশ করে। চুরি করা তথ্যের মধ্যে আছে নাম, ইমেইল ঠিকানা, ফোন নাম্বার এবং ড্রাইভিং লাইসেন্স নাম্বার। পরবর্তী সময়ে বাগ বাউন্টির অংশ হিসেবে হ্যাকারকে এক লাখ ডলার পরিশোধ করেছিল উবার।



Leave Your Comments


বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি এর আরও খবর