প্রকাশিত :  ০৯:১৯, ১৮ জানুয়ারী ২০২১

এনএইচএস বীরদের বেতন বৃদ্ধিতে বরিস জনসনের আশ্বাস

এনএইচএস বীরদের বেতন বৃদ্ধিতে বরিস জনসনের আশ্বাস

জনমত ডেস্ক :  বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন এনএইচএস বীরদের বেতন বাড়ানোর ব্যাপারে ব্যক্তিগতভাবে হস্তক্ষেপ করার কথা ঘোষণা করেছেন। ইউনিসন, রয়্যাল কলেজ অব নার্সিং এবং রয়্যাল কলেজ অব মিডওয়াইভসের কর্মকর্তারা জীবনের ঝুকি নিয়ে কাজ চালিয়ে যাওয়া এনএইচএস কর্মিদের ব্যাপারে প্রতিশ্রুত বেতন বৃদ্ধির জন্য ব্যক্তিগত ভাবে হস্তক্ষেপ করার আহ্বান জানানোর পর বরিস জনসন এই বক্তব্য প্রদান করেন।

প্রধানমন্ত্রীর কাছে ইউনিয়ন কর্তাদের স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে বলা হয়, হাসপাতালগুলি চূড়ান্ত প্রেসারের মধ্যে রয়েছে এবং প্রচন্ড মানসিক চাপ ও শারীরিক কষ্ট সহ্য করে এনএইচএস কর্মিরা অগ্নিপরীক্ষার মুখোমুখি রয়েছেন।

হেল্থ সেক্রেটারি ম্যাট হ্যানকক আগে বলেছিলেন, এনএইচএস কর্মিদের বেতনের ব্যাপারে মে মাস পর্যন্ত স্বাধীন বেতন পুনর্বিবেচনা বোর্ডের জন্য অপেক্ষা করতে হবে। তবে ১.৩ মিলিয়নেরও বেশি শ্রমিকের প্রতিনিধিত্বকারী ইউনিয়নগুলি মিঃ জনসনকে এনএইচএসের সামনে চ্যালেঞ্জের পরিমাণ বিবেচনা করে বেতন পর্যালোচনা প্রক্রিয়াটি দ্রুত করার জন্য অনুরোধ করেছিলেন।

ইউনিয়ন নেতাদের মতে, মজুরি বৃদ্ধির ফলে ভাইরাস বন্ধ হবে না, তবে ক্লান্ত কর্মিদের অনুপ্রেরণা জাগাবে। প্রমাণিত হবে এনএইচএস কর্মিরা তাদের রোগীদের যেমন যত্ন করে, সরকার তাদের প্রতিও সমভাবে যত্নবান।

আজ থেকে ৫ মিলিয়নের বেশি লোককে করোনা ভাইরাস জব তথা টিকাদানের জন্য আমন্ত্রণ জানানো হবে। এটি টিকাদান কর্মসূচির জন্য একটি বড় মাইলফলক হিসাবে বিবেচিত হবে। দু’টি অগ্রাধিকার গোষ্ঠীতে চিঠি দেয়া শুরু হবে। এর মধ্যে ৭০ বছরের বেশী বয়সী ৪.৬ মিলিয়ন রয়েছেন এবং আরো এক মিলিয়ন যারা ‘ক্লিনিক্যালি চরম ভাবে দুর্বল’ হিসাবে পরিগনিত। যাদের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা দূর্বল এবং ক্যান্সার আক্রান্ত বা অঙ্গ প্রতিস্থাপন সমস্যায় জর্জড়িত।

এদিকে প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন গতকাল রোববার মধ্য লন্ডনে আট মাস বয়সী ছেলে উইলফের সাথে ঘুরে বেড়ানোর চিত্র বিভিন্ন মিডিয়ায় বেশ রসাত্মক হিসেবে ছড়িয়ে পড়েছে। এ সময় শিশু উইলফকে বরিস জনসন ক্রেডলিং করতে দেখা যায়।

প্রধানমন্ত্রী উইকএন্ডে ১০ ডাউনিং স্ট্রিটের আশপাশে ও বাকিংহাম প্যালেস গার্ডেনে ঘুরছিলেন।

ওয়েলশ পতাকায় শোভিত একটি উজ্জ্বল লাল পশমের টুপি পরে ৫৬ বছর বয়সী প্রধানমন্ত্রী তার শিশু পুত্রের সাথে সমন্বয় করছিলেন। প্রধানমন্ত্রী নেভি ব্লু চিনোস, একটি নেভির জাম্পার এবং একটি সাদা শার্ট পরেছিলেন। পিতা ও পুত্রের একই ধরণের চুল দেখে জনগণের চোখে শিশু উইলফের ছবি বিরল হিসেবে আলোচিত হয়েছে।

অলিম্পিক পার্কে সাইক্লিংয়ের জন্য প্রধানমন্ত্রী গত সপ্তাহে সমালোচনার মুখোমুখি হওয়ার পর এই আউটিং ছিল বাড়ির সামান্য কাছাকাছি। বরিস গত সপ্তাহে ডাউনিং স্ট্রিট থেকে সাইকেল চালিয়ে প্রায় সাত মাইল দূরে চলে গিয়েছিলেন। তিনি কোভিড বিধিনিষেধ লঙ্ঘন করে নিজ এলাকার বাইরে গিয়েছেন বলে কেউ কেউ প্রশ্ন তুলেছিল। কারণ সরকারী নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, প্রতিদিনের অনুশীলন একেবারে সীমাবদ্ধ হওয়া উচিত এবং নিজের স্থানীয় এলাকার বাইরে যাওয়া উচিত নয়।


Leave Your Comments


যুক্তরাজ্য এর আরও খবর