প্রকাশিত :  ০৮:০৯, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২১

ব্রিটেনে টিকা পেয়েছেন বয়স্কদের এক তৃতীয়াংশ

ব্রিটেনে টিকা পেয়েছেন বয়স্কদের এক তৃতীয়াংশ

জনমত ডেস্ক : ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন দেশটির তৃতীয় ও সম্ভবত শেষ লকডাউন সোমবার তুলে দিতে যাচ্ছেন। দ্রুত গতিতে টিকা দেয়া শুরু করার পর হাসপাতালগুলোতে চাপ কমে যাওয়ার প্রেক্ষাপটে তিনি এ উদ্যোগ নিচ্ছেন।

পার্লামেন্টকে পাঠানো এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, জনসন আগামী ৮ মার্চ সকল ইংলিশ স্কুলসমূহ খুলে দেয়া নিশ্চিত করার প্রত্যাশা করছেন। প্রায় একবছর আগে ঘরে অবস্থানের নির্দেশ দেয়ার পর এ পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছেন বরিস জনসন।

রক্ষণশীল এই প্রধামন্ত্রী বলেছেন, আর লকডাউন না দেয়ার জন্যে তিনি সতর্ক কিন্তু অপরিবর্তনীয় কিছু পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন। ডাউনিং স্ট্রিট থেকে প্রকাশিত ওই বিবৃতিতে তিনি আরো বলেন, আজ আমি লকডাউন অবসানের লক্ষ্যে একটি রোডম্যাপ ঘোষণা করতে যাচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, শিশুদের স্কুলে ফিরিয়ে নেয়াই আমাদের অগ্রাধিকার কাজ। বিশ্বে ব্রিটেন করোনায় অন্যতম পর্যুদস্ত দেশ। দেশটিতে করোনা ভাইরাসে এ পর্যন্ত ১ লাখ ২০ হাজারেরও বেশি লোক মারা গেছে।

বিশ্বে প্রথম ব্রিটেন ডিসেম্বরে করোনার টিকা দেয়া শুরু করে। কিন্তু দেশটিতে নতুন ধরনের করোনা ছড়িয়ে পড়া এবং সংক্রমণ তীব্র রূপ নেয়ায় জানুয়ারিতে তৃতীয়বারের মতো লকডাউন জারি করা হয়।

ব্রিটেনে এ পর্যন্ত এক কোটি ৭০ লাখ লোককে টিকায় আওতায় নেয়া হয়েছে। এ সংখ্যা দেশটির বয়স্ক জনসংখ্যার এক তৃতীয়াংশ।

সংক্রমণ বিশেষজ্ঞ ও সরকারের উপদেষ্টা এবং লন্ডন স্কুল অব হাইজিন এন্ড ট্রপিক্যাল মেডিসিনের জন এডমান্ডস বিবিসিকে বলেছেন, বিশাল জনসংখ্যার মধ্যে এখনও প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি হয়নি। এতো দ্রুত লকডাউন তুলে নেয়া হলে তা চাপ তৈরি করবে। আবারো সংক্রমণ বাড়বে।


Leave Your Comments


যুক্তরাজ্য এর আরও খবর