'একুশ আমাদের অহংকার ও আত্মপরিচয়'

প্রকাশিত :  ১০:০৫, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২১
সর্বশেষ আপডেট: ০১:৪৫, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১

ইউকে বিডি টিভিতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের বিশেষ ভার্চুয়াল অনুষ্ঠান

ইউকে বিডি টিভিতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের বিশেষ ভার্চুয়াল অনুষ্ঠান

নাজমুল সুমন: মহান শহীদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস  উপলক্ষে ইউ কে বিডি টিভিতে 'একুশ আমাদের অহংকার ও আত্মপরিচয়' শিরোনামে ২০ শে ফেব্রুয়ারী  শনিবার তিন ঘন্টাব্যাপী এক ভ্যার্চুয়াল আন্তর্জাতিক সেমিনার, কবিতা আবৃত্তি ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সহ ১৫ ই আগষ্টের  সকল শহীদান এবং জাতীয় ৪ নেতা সহ ৫২ এর ভাষা আন্দোলনে শহীদ রফিক, জব্বার, শফিউল, সালাম, বরকত সহ নিহত সকল শহীদান সহ বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক অধিকার আদায়ের আন্দোলন, স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন- সংগ্রামে নিহত সকল শহীদানদের ও মহান মুক্তিযুদ্ধের অবদানকারী সবার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে তাঁদের আত্মার মাগফিরাত কামনা সহ আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি… আমি কি ভুলিতে পারি এই গানের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সূচনা করা  হয়। 

৬০ এর দশকের সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রনেতা ও কেন্দ্রীয় আওয়ামী  যুবলীগের প্রাক্তন প্রেসিডিয়াম সদস্য  যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি ও  ইউকে বিডি টিভির  উপদেষ্টা মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক জননেতা সুলতান মাহমুদ শরীফ এর সভাপতিত্বে এবং ইউকে ওয়েলস ছাত্রলীগের সাবেক প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও  আওয়ামী যুবলীগের সাবেক সভাপতি ওয়েলস আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি  ইউকে বিডি টিভির চেয়ারম্যান বিশিষ্ট সাংবাদিক মোহাম্মদ মকিস মনসুর এর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত  পোগ্রামের শুরুতেই বাংলাদেশ সরকারের  পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড.এ.কে. আব্দুল মোমেন এর শুভেচ্ছা বক্তব্য দেখানো হয়।  

ইউকে বিডি টিভিতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের বিশেষ ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলা ভাষার একজন প্রতিভাবান ও জনপ্রিয় কবি ‘মুজিব আমার স্বাধীনতার অমর কাব্যের কবি’- এর রচয়িতা বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কারপ্রাপ্ত জাতীয় কবিতা পরিষদের সভাপতি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য ড.মুহাম্মদ সামাদ এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন সাবেক উপাচার্য  ডাকসুর সাবেক পরিবহন সম্পাদক,  ড. এম অহিদুজ্জামান.  ৬০ এর দশকের সাবেক  ছাত্রনেতা,  ঢাকা বিশ্ববিদ্যায়লের সাবেক সিনেটর একুশে পদকে ভূষিত যুক্তরাষ্ট্রের  বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি বিশিষ্ট লেখক ও মুক্তিযোদ্ধা ড.নুরুন্নবী,  বৃটেনের বাংলাদেশ হাইকমিশনের প্রেস মিনিষ্টার আশিকুননবী চৌধুরী, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বিশিষ্ট লেখক ও সাবেক ছাত্রনেতা এম এ সালাম. ইউকে বিডি টিভির ভাইস চেয়ারম্যান বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব শেখ নুরুল ইসলাম, ও ইউকে বিডি টিভির ম্যানেজিং ডিরেক্টর সাবেক ছাত্রনেতা ইঞ্জিনিয়ার খায়রুল আলম লিংকন বক্তব্য রাখেন। 

ইউকে বিডি টিভির জনপ্রিয় উপস্থাপিকা বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক সংগঠক হেলেন ইসলাম এর পরিচালনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন ৭১ এর গণসংগীত শিল্পী হিমাংশু গোস্বামী. বৃটেনের জনপ্রিয় শিল্পী গৌরী চৌধুরী, কানাডা থেকে পাপ্পু আহমেদ, লন্ডন থেকে বনানী পোদ্দার, শেখ নুরুল ইসলাম,  জয় দেব দুলু, বাংলাদেশ থেকে শিল্পী মৌসুমী দেব। কবিতা আবৃত্তি করেন জাতীয় কবিতা পরিষদের সভাপতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য ড.মুহাম্মদ সামাদ ইউকে বিডি টিভির জনপ্রিয় প্রেজেন্টার কানিজ রহমান রেশমা.ও বাংলাদেশ থেকে আগত প্রমি দেব।

প্রধান ও বিশেষ অতিথিবৃন্দ “মহান শহিদ দিবস এবং আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে বাংলা ভাষা ভাষী সহ বিশ্বের সকল ভাষার মানুষের প্রতি ভালোবাসা জানিয়ে  

 বলেন, ভাষা আন্দোলনের রক্তক্ষয়ী দিনটি এখন আর শুধু শোক ও বেদনার দিন নয়। জাতি ধর্ম-বর্ণনির্বিশেষে সব মানুষের সব ভাষার অধিকার প্রতিষ্ঠার এক সর্বজনীন উৎসবের দিন।

বক্তারা বলেন, একুশ আমদের অহংকার একুশ আমদের আত্মপরিচয় একুশের পথ ধরেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্তে আমরা পেয়েছি লাল বৃত্ত সবুজ পতাকা। অমর একুশে আমাদের গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ, বাঙালি জাতীয়তাবাদ, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা এবং ধর্মনিরপেক্ষতার প্রতীক।

বক্তারা আর বলেন, মহান একুশে ফেব্রুয়ারির সেই রক্তস্নাত গৌরবের সুর বাংলাদেশের সীমানা ছাড়িয়ে আজ বিশ্বের ১৯৩টি দেশের মানুষের প্রাণে অনুরণিত হয়। ২১ ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার জন্য কানাডা প্রবাসী সালাম ও রফিকসহ কয়েকজন বাঙালি উদ্যোগ গ্রহণ করেন। পরবর্তীকালে প্রধানমন্ত্রী  শেখ হাসিনার আওয়ামী লীগ সরকার জাতিসংঘে প্রস্তাব উত্থাপন করে। যার ফলে ইউনেস্কো ১৯৯৯ সালের ১৭ নভেম্বর ২১ ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি পাবার পর অমর একুশের চেতনা আজ দেশের গণ্ডি পেরিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন ভাষাভাষী মানুষের নিজস্ব ভাষা ও সংস্কৃতি রক্ষায় অনুপ্রেরণা জোগাচ্ছে। মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস বিশ্বের সব জাতিগোষ্ঠীর নিজস্ব ভাষা ও সংস্কৃতি রক্ষায় ঐক্য ও বিজয়ের প্রতীক হয়ে উঠেছে। বাংলাদেশের সর্বস্তরে বাংলা ভাষা চালুর ওপর জোর দিয়ে বক্তারা বলেন “স্বাধীন বাংলাদেশে জাতির পিতা সকল দাপ্তরিক কাজে বাংলাভাষা ব্যবহারের নির্দেশ দেন। তিনি সংবিধানে বাংলাকে রাষ্ট্রভাষা করেন। বাংলায় জাতিসংঘে বক্তৃতা দিয়ে আমাদের মাতৃভাষাকে বিশ্বসভায় মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত করেছিলেন বলে উল্লেখ করে বক্তারা বাংলাকে জাতিসংঘের দাপ্তরিক ভাযা হিসাবে বাংলাকে স্বীকৃতি দেওয়ার  অব্যাহত ক্যাম্পেইনে সবার সহযোগিতা কামনা করেছেন।

এছাড়াও সকল বক্তারা ভার্চুয়ালি আজকের অনুষ্ঠান আয়োজন করায় ইউকে বিডি অনলাইন টিভির চেয়ারম্যান  সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রনেতা মোহাম্মদ মকিস মনসুর, ইউকে বিডি টিভির ম্যানেজিং ডিরেক্টর সাবেক ছাত্রনেতা খায়রুল আলম লিংকন,  ভাইস চেয়ারম্যান শেখ নুরুল ইসলাম ও  জনপ্রিয় উপস্থাপিকা হেলেন ইসলাম সহ ইউকে বিডি অনলাইন টিভির সাথে জড়িত সংশ্লিষ্ট সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে ইউকে বিডি টিভির ভূয়সী প্রশংসা করে আগামীদিনে এই রকম উদ্যোগ নেওয়ারও আহবান জানিয়েছেন।


Leave Your Comments


কমিউনিটি এর আরও খবর