প্রকাশিত :  ১৭:১৬, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮

রাবিতে নির্বাচনকে ঘিরে সক্রিয় ছাত্রশিবির

রাবিতে নির্বাচনকে ঘিরে সক্রিয় ছাত্রশিবির

জনমত ডেস্ক ।। আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) সক্রিয় হয়ে উঠেছে ইসলামী ছাত্র শিবিরের নেতাকর্মীরা। ক্যাম্পাসে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে এবং নির্বাচনকে বানচাল করতে অগ্নিসংযোগ, পেট্রোল বোমা ও গাড়ি ভাঙচুরসহ ভয়াবহ নাশকতার ছক এঁকেছে বলে পুলিশ ও গোয়েন্দার একাধিক সূত্রে জানা গেছে।

গোয়েন্দা সূত্রে জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন মেহেরচণ্ডি, বিনোদপুর, কাজলা, ধরমপুর, মির্জাপুর, ভদ্রা, বুধপাড়াসহ আশেপাশের এলাকার মেসগুলোতে নিয়মিত বৈঠক ও সাংগঠনিক কার্যক্রম চালাচ্ছে শিবির। নির্বাচনকে বানচাল করতে সেসব বৈঠক থেকে নেওয়া হচ্ছে বিভিন্ন সিদ্ধান্ত। এছাড়া এসব বৈঠকের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোতে নেতাকর্মীদের শক্ত অবস্থানের তাগিদ দেওয়া হচ্ছে।

গত ১৫ দিনে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টেডিয়ামসহ বেশ কয়েকটি আবাসিক হলের আশ-পাশে মধ্যরাতে প্রায় ১০-১২ টি ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় শিবির জড়িত বলে দাবি করছেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনু বলেন, ‘নির্বাচনের আগ মুহূর্তে ক্যাম্পাসকে অস্থিতিশীল করার জন্য শিবির পরিকল্পনা করতে পারে। সম্প্রতি মধ্যরাতে তারা বেশ কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে শিক্ষার্থীদের মনে আতঙ্ক সৃষ্টি করেছে। শিবিরের এসব নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড ঠেকাতে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ প্রস্তুত রয়েছে। শিবিরের সব ধরণের অপকর্ম ঠেকিয়ে ক্যাম্পাসে সুষ্ঠু ও স্থিতিশীল পরিবেশ বজায় রাখতে ছাত্রলীগ সর্বদা সচেষ্ট থাকবে।’

মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) মাহবুব আলম বলেন, ‘নির্বাচনকে সামনে রেখে ক্যাম্পাসের পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার জন্য ইতোমধ্যে নজরদারী বৃদ্ধি করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকাগুলোতে ধারাবাহিকভাবে অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। কেউ নাশকতার চেষ্টা করলে তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’



Leave Your Comments


শিক্ষা এর আরও খবর