প্রকাশিত :  ১৪:১২, ০২ জুন ২০২১
সর্বশেষ আপডেট: ১৪:১৯, ০২ জুন ২০২১

বার্সার সঙ্গে মেসির চুক্তিতে কেবল স্বাক্ষরটাই বাকি

বার্সার সঙ্গে মেসির চুক্তিতে কেবল স্বাক্ষরটাই বাকি

স্পোর্টস ডেস্ক: জাতীয় দলের হয়ে ট্রফিখরা কাটাতে কোপা আমেরিকা নিয়ে পরিকল্পনা সাজাতে ব্যস্ত লিওনেল মেসি। তবে বিশ্বজুড়ে বার্সেলোনা সমর্থকরা ভাবনায় রয়েছেন মেসির ক্লাব ছাড়া নিয়ে। তাদের সেই ভাবনা কিছুটা হলেও কমতে পারে স্প্যানিশ ক্রীড়া দৈনিক মার্কার প্রকাশিত খবরে। তারা লিখেছে, মেসি-বার্সার চুক্তির সবকিছু ঠিকঠাক। তাদের অধিনায়ক চুক্তিপত্রে সই করলেও পাবে আনুষ্ঠানিকতা।

স্পেনের জনপ্রিয় দৈনিক কাদেনা কোপ-এর সাংবাদিক মিগুয়েল রিকোর বরাত দিয়ে মার্কা জানিয়েছে, আরো ২ বছর ন্যু ক্যাম্পেই থাকছেন মেসি। হুয়ান লাপোর্তা সভাপতি হিসেবে আসার পর থেকেই সবকিছু বদলে যেতে শুরু করেছে। মেসির চাওয়া অনুযায়ী স্কোয়াড গড়ছে কাতালানরা। এরই মধ্যে বার্সেলোনা দলে ভিড়িয়েছে আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার সার্জিও আগুয়েরো, স্প্যানিশ ডিফেন্ডার এরিক গার্সিয়া ও ডাচ মিডফিল্ডার জর্জিনো ভাইনালডামকে।

নড়বড়ে রক্ষণ শক্তিশালী করতে আরো এক ডিফেন্ডার নু ক্যাম্পে এনেছে কাতালান জায়ান্টরা। রিয়াল বেতিস থেকে এসেছেন ব্রাজিলিয়ান রাইটব্যাক এমারসন রয়্যাল। ব্রাজিলের ক্লাব আতলেতিকো মিনেইরো থেকে রিয়াল বেতিসের সঙ্গে একরকম ভাগাভাগি করে, যৌথ দলবদলে এই তরুণকে কিনেছিল বার্সেলোনা। যে কারণে এমারসনকে বেতিসের কাছে দুবছর ধারে পাঠিয়েছিল কাতালানরা। এই দুবছরে বেতিসের অন্যতম শক্তির জায়গা হয়ে উঠেছেন এমারসন। চুক্তিতে ছিল, দুবছর পর বার্সা চাইলে নব্বই লাখ ইউরো দিয়ে এমারসনকে বেতিসের কাছ থেকে পাকাপাকিভাবে কিনতে পারবে। সে সুযোগটাই নিয়েছে বার্সেলোনা। এমারসনের সঙ্গে তিন বছরের চুক্তি করেছে তারা।

গত মৌসুমের শুরুতে বার্সা ছাড়তে চেয়েছিলেন মেসি। আইনের মারপ্যাঁচে পড়ে শেষ পর্যন্ত থেকে যান তিনি। আগের সভাপতি হোসেপ মারিয়া বার্তোমেউর সঙ্গে শীতল সম্পর্কের কারণে ক্লাব ছাড়তে চেয়েছিলেন। মৌসুম শেষ হতেই বার্সার সঙ্গে চুক্তি শেষ হয়ে গেছে মেসির। এখন তিনি ‘ফ্রি এজেন্ট’। বিনা ট্রান্সফার ফিতেই অন্য কোন ক্লাবে নাম লেখানোর সুযোগ রয়েছে মেসির। তবে কয়েকদিন আগে বার্সা সভাপতি হুয়ান লাপোর্ত জানান, ‘মেসির সঙ্গে চুক্তির সবকিছু ইতিবাচকভাবে এগোচ্ছে। চূড়ান্ত ঘোষণা দেয়া হবে শীঘ্রই।’ 



Leave Your Comments


খেলাধূলা এর আরও খবর