প্রকাশিত :  ১১:৫৪, ১৬ জুন ২০২১

রোনালদো কাণ্ডে কোকোকোলার প্রায় ৩৪ হাজার কোটি টাকা লোকসান

রোনালদো কাণ্ডে কোকোকোলার প্রায় ৩৪ হাজার কোটি টাকা লোকসান

স্পোর্টস ডেস্ক: ফুটবল বিশ্বের অন্যতম সুপারস্টার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। জনপ্রিয়তার দিক থেকে অন্য সবার চেয়ে কিছুটা ভিন্ন তিনি। শুধুমাত্র তার সোশ্যাল মিডিয়া ফলোয়ার হিসাব করলে এই পর্তুগিজ তারকার ধারে কাছেও নেই কেউ। সেই রোনালদোই যদি কোনো পণ্যকে খেতে নিষেধ করেন, তবে কি হতে পারে সেটা অনুমেয়ই করা যায়। তাই বলে প্রায় ৩৪ হাজার কোটি টাকা খোয়াতে হবে?

হ্যাঁ, এমনি হয়েছে। হাঙ্গেরির সঙ্গে ম্যাচের আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে আসেন রোনালদো। ওই সময় নিয়ম অনুযায়ী ইউরোর স্পন্সর বিশ্ববিখ্যাত কোমল পানীয় প্রতিষ্ঠান কোকোকোলার দুটি বোতল টেবিলে রাখা ছিল। কিন্তু রোনালদো কিছুটা বিরক্তির সঙ্গে বোতল দুটা নামিয়ে শুধুমাত্র একটা পানির বোতল রাখেন। আর সেখানে ইঙ্গিত দেন, কোক নয়, পানি পান করুন।

রোনালদোর এমন কাণ্ডের পর কি হতে যাচ্ছিল তা নিয়ে চোখ রাখতে শুরু করে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের গণমাধ্যমগুলো। তবে খুব একটা সময় লাগেনি। মাত্র আধঘণ্টার ব্যবধানেই ধস নেমেছে কোকোকোলার শেয়ার বাজারে। বিভিন্ন গণমাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী এই অল্প সময়ে কোকাকোলার ব্র্যান্ড মূল্য ৪০০ কোটি ডলার কমে গেছে। যা বাংলাদেশি টাকায় কোকাকোলার ৩৩ হাজার ৯১৫ কোটির সমান।

ঘটনার আগে ইউরোপের শেয়ার মার্কেট খোলার সময় কোকাকোলার বাজার মূল্য ছিল ৫৬ দশমিক ১০ ডলার। কিন্তু ঘটনার আধঘণ্টা পর মুহূর্তেই শেয়ারে দর ৫৫ দশমিক ২২ ডলারে নেমে আসে। অর্থাৎ এক লাফে ১.৬ শতাংশ দাম হারিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। ফলে কোকাকোলার দাম কমে দাঁড়িয়েছে ২৩ হাজার ৮০০ কোটি ডলার। যা আগে ছিল ২৪ হাজার ২০০ কোটি ডলার।

ঠিক কি কারণে এমনটা করলেন তা এখনো স্পষ্ট নয়, অনেকে ভাবছিল পেপসির সঙ্গে নতুন কোনো চুক্তির সম্ভাবনা থেকে এমনটা হতে পারে। তবে তেমন কিছুই এখনো হয়নি। আবার অনেকের মতে স্বাস্থ্য সচেতনতার ওপর গুরুত্ব দেওয়া রোনালদোর এ কাণ্ড নতুন নয়। এর আগে নিজের সন্তানদেরও কোক খেতে নিষেধ করতেন তিনি।



Leave Your Comments


খেলাধূলা এর আরও খবর