প্রকাশিত :  ২১:০৭, ১৮ জুন ২০২১

হিন্দু এসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান প্রশান্ত দত্তের বিইএম সম্মাণনা লাভ

হিন্দু এসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান প্রশান্ত দত্তের বিইএম সম্মাণনা লাভ

জনমত রিপোর্টঃ রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথ এর জন্মদিন উপলক্ষে সিলেট জেলার ওসমানী নগর উপজেলা তথা বালাগঞ্জের কৃতি সন্তান, বাংলাদেশ হিন্দু এসোসিয়েশন (বিএইচএ) ইউকে’র চেয়ারম্যান, বিশিষ্ট কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব প্রশান্ত দত্ত পুরকায়স্থ বিইএম (ব্রিটিশ এম্পায়ার মেডেল) সম্মাণনা লাভ করেছেন।


বিএইচএম’র চেয়ারম্যান বৃটেনের করোনাকালীন সমাজ সেবার জন্য এই সম্মাণনা লাভ করেন। দুই সন্তানের জনক প্রশান্ত দত্ত পুরকায়স্থ দীর্ঘ একত্রিশ বছর ধরে ব্রিটিশ সরকারের রাজস্ব বিভাগের গুরুত্বপূর্ণ পদে কাজ করছেন। এছাড়া তিন দশকের অধিক সময় জনসেবায় নিয়োজিত আছেন। তিনি শেরপুর আজাদ বক্ত হাই স্কুল থেকে মাধ্যমিক শিক্ষা ও সিলেটের এম,সি ইন্টারমিডিয়েট কলেজ থেকে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় উত্তির্ণ হয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলা বিভাগে বি,এ অনার্স এবং মাষ্টার্স ডিগ্রী সম্পন্ন করেন । 

তিনি বালাগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম পৈলানপুর ইউনিয়নে চান্দপুর গ্রামের শহীদ পরিবারে স্বর্গীয় যতীন্দ্র দত্ত পুরকায়স্থের কনিষ্টপুত্র। ১৯৮৬ সালে তিনি উচ্চ শিক্ষার্থে লন্ডন আসেন এবং পরবর্তীতে তিনি এখানেই স্থায়ীভাবে বসবাসের সুযোগ লাভ করেন । 

দেশ, মাটি, মানুষ ও শিকড়ের সাথে সম্পৃক্ত থেকে, বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতির পূজারী প্রশান্ত দত্ত পুরকায়স্থ বৃটেনের বহুজাতিক সমাজে জাতীয় পরিচয় সুপ্রতিষ্ঠিত করার লক্ষ্যে ২০০১ সালে সহকর্মীদের নিয়ে বাংলাদেশ হিন্দু এসোসিয়েশন ইউকে প্রতিষ্ঠা করেন। একই সাথে বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন - সনাতন এসোসিয়েশন, সিভিল সার্ভিস ইন্টারফেইথ, ঢাকা ইউনিভার্সিটি অ্যালুমনাই ইন দ্যা ইউকে, এম, সি ও সরকারী কলেজ রিইউনিয়ন কমিটি ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাথে নিরলসভাব কাজ করে যাচ্ছেন। বিএইচএ ইউকে’র মাধ্যমে লন্ডনে দু’জন গুরুতর অসুস্থ ও অসহায় ছাত্রদের সেবা দান ও ইমিগ্রেশন সংক্রান্ত আইনী সহায়তায় তাদের ভবিষ্যত কণ্টকমুক্ত করা তার দু’টি উল্লেখযোগ্য অবদান। প্রশান্ত পুরকায়স্থ বৃটেনের যুব সমাজকে শিকড়ের সাথে সম্পৃক্ত হতে উদ্বুদ্ধ করেন ও বিএইচএ ইয়ূথ ফোরাম গঠনে অনুপ্রাণীত করেন।