প্রকাশিত :  ১০:০২, ১৯ জুন ২০২১
সর্বশেষ আপডেট: ১০:১৭, ১৯ জুন ২০২১

জাতীয় পরিচয় পত্র প্রদানের দাবিতে লন্ডন হাইকমিশনে স্বারকলিপি পেশ

জাতীয় পরিচয় পত্র প্রদানের দাবিতে লন্ডন হাইকমিশনে স্বারকলিপি পেশ

জনমত ডেস্ক: গত ১৪ জুন সোমবার বাংলাদেশে হাইকোটের নতুন রুলে বলা হয়েছে জাতীয় পরিচয় পত্র ছাড়া আদালত ও থানায় মামলা গ্রহন করা হবে না। এর ফলে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে থাকা ১ কোটি ৬০ লাখের বেশী প্রবাসী যাদের জাতীয় পরিচয় পত্র নেই তাদের মধ্যে অসন্তোষ ছড়িয়ে পড়েছে। বিশেষ করে যুক্তরাজ্য প্রবাসীরা হাইকোটের এই রায় পূর্ণবিবেচনার দাবীর পাশাপাশি দ্রুত হাইকমিশনের মাধ্য পরিচয় পত্র প্রদানে সরকারের প্রতি আহবান জানিয়েছেন। একই সাথে প্রবাসীদের পাসপোর্ট জাতীয় পরিচয় পত্রের বিকল্প হিসেবে বিবেচনার দাবী জানাচ্ছেন।

প্রবাসীদের উদ্বেগর বিষয়টি তুলে ধরে আজ লন্ডনস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশনে স্বারক লিপি প্রদান করেছে যুক্তরাজ্য প্রবাসীদের সংগঠন এনআরবি।

১৮ জুন শুক্রবার সহকারী হাইকমিশনার জুলকার নাইনের কাছে এই এই স্মারকলিপি তুলেদেন সংগঠনের নেতারা। এসময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের প্রতিনিধি সাংবাদিক আহাদ চৌধুরী বাবু, সাংবাদিক জুয়েল রাজ, সাংবাদিক শাহ বেলাল।


স্মারকলিপি

তারিখঃ ১৮ জুন ২০২১

বরাবর,

মাননীয় হাই কমিশনার মহোদয়,

বাংলাদেশ হাই কমিশন লণ্ডন, যুক্তরাজ্য।

বিষয়ঃ জাতীয় পরিচয়পত্র সংক্রান্ত মহামান্য হাইকোর্টের রায় নিয়ে প্রবাসীদের উদ্বেগ প্রসঙে স্মারকলিপি।


জনাব,

যথাবিহীত সম্মান প্রদর্শন পূর্বক নিবেদন যে , আমরা নিম্ন স্বাক্ষরকারীগণ যুক্তরাজ্য এন আরবি লন্ডনের পক্ষ থেকে একটি জন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় কে সামনে নিয়ে প্রবাসীদের উদ্বেগ, উৎকণ্ঠা এবং শংকার কথা বিবেচনায় এনে আপনার সদয় দৃষ্টি এবং আমাদের দাবীর জায়গা থেকে অবগত করার প্রচেষ্টা হিসেবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রি সহ সংশ্লিষ্ট দায়িত্বশীলদের দৃষ্টি নিবন্ধন করার জন্য স্মারকলিপিটি পেশ করছি।

মাননীয় হাই কমিশনার, আপনি অবগত আছেন যে, পৃথিবীর ১৬৮ দেশে প্রায় ১ কোটি ৬০ লাখ বাংলাদেশি বসবাস করেন। তারা প্রতিবছর রেমিট্যান্স পাঠিয়ে দেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। করোনা মহামারী সময়ে, গত বছর প্রবাসীরা পাঠিয়েছেন রেকর্ড সৃষ্টিকারী ২২ বিলিয়ন ডলার। প্রবাসীদের প্রত্যেকেই কোনো না কোনোভাবে দেশের সঙ্গে সম্পৃক্ত রয়েছে পারিবারিক ও আত্মীয়তার বন্ধনে। কিন্তু বিভিন্ন সময় প্রবাসীরা নানা জটিলতার শিকার হন স্থানীয় প্রভাবশালীদের দ্বারা, আবার কখনো প্রতারিত হন নিজের পরিবারের সদস্যদের মাধ্যমে। শেষ ভরসা হিসেবে প্রবাসীরা কখনো কখনো আদালতের দ্বারস্থ হন। বিশেষ করে তৃতীয় বাংলা খ্যাত যুক্তরাজ্যের প্রবাসীদের চতুর্থ পঞ্চম প্রজন্ম প্রতিনিধিত্ব করছে। আমরা নানা ভাবে চেষ্টা করে যাচ্ছি নতুন প্রজন্মকে দেশের সাথে সংযুক্ত রাখতে। কিন্তু পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদে আমরা দেখেছি, বাংলাদেশের মহামান্য হাইকোর্ট এক আদেশে বলেছেন, এখন থেকে মামলা করতে বাদীর জাতীয় পরিচয়পত্র লাগবে।

বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে এই ধরণের একটি উদ্যেগকে আমরা সাধুবাদ জানাই। সময়ের প্রয়োজনে এবং মিথ্যা মামলার হয়রানী ভুয়া প্রতারণা মুলক, হয়রানী প্রতিরোধে এই রায় যুগান্তকারী হিসাবেই বিবেচিত হবে বলে আমরা বিশ্বাস করি। দেশে বসবাসকারী নাগরিকদের জন্য এটি কষ্টসাধ্য নয় এবং প্রাপ্ত বয়স্ক সকল নাগরিকই দেশের ভোটার হিসাবে সবার কাছেই জাতীয় পরিচয়পত্র আছে।

কিন্তু, প্রবাসীদের ক্ষেত্রে আদালতের এই আদেশ সমানভাবে প্রযোজ্য হলে প্রবাসীরা হয়রানী ও প্রতারণার শিকার হবেন বলে মনে করছেন। সংবাদটি প্রকাশিত হবার পর থেকেই সামাজাইক যোগাযোগ মাধ্যম সহ নানাভবেই নানা শ্রেণী পেশার মানুষ তাদের উদ্বেগ জানিয়েছেন। কারণ ১,৬০,০০,০০০ প্রবাসীর বেশির ভাগের কাছে নেই এনআইডি।

যদিও বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে থাকা প্রবাসীদের জন্য এনআইডি প্রদানের উদ্যোগ অব্যাহত রয়েছে- তবে কাজটি অনেক কঠিন ও সময়সাপেক্ষ। সুতরাং প্রবাসীরা যদি এনআইডি বা জাতীয় পরিচয়পত্র ছাড়া আদালতের দ্বারস্থ হতে না পারে তাহলে তাদের সহায় সম্পত্তি রক্ষার শেষ আশ্রয়স্থলটিতে পৌঁছাতে সৃষ্টি হবে জটিলতা। এই সুযোগে প্রভাবশালীরা প্রবাসীদের সম্পত্তি দখলের চেষ্টায় আরও বেশি সফল হবে। সামগ্রিক বিবেচনায় প্রবাসীদের আপাতত এই আদেশটি থেকে বাইরে রাখা যায় কিনা বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করা দরকার।

আমরা আস্থা এবং ভরসার জায়গা থেকে বাংলাদেশের জাতীয় নিরাপত্তায় এ ধরনের সিদ্ধান্তকে সঠিক বলে মনে করি। তবে আমরা সরকারের সকল উন্নয়ন অগ্রগতির সহযাত্রী হিসেবে থাকতে চাই। এবং তারি সাথে আমাদের স্বার্থের বিষয়টি আমলে নেওয়ার যৌক্তিক দাবি উত্থাপন করছি।

আপনার সদয় অবগতির জন্য জানাচ্ছি যে গতকাল, বাঙালি অধ্যুষিত পূর্ব লণ্ডনের আলতাব আলী পার্কে একই দাবীতে আমাদের সংগঠনের পক্ষে মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে গণমাধ্যম কর্মী সহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও সেখানে আমাদের দাবীর প্রতি একাত্ম হয়ে সমবেত হয়েছিলেন ।

আশা করি বিষয়টি সংশ্লিষ্ট মহলে অবগত করতে আপনার সহযোগীতা বরাবরের মতো অব্যাহত থাকবে।


এন আর বি লন্ডনের পক্ষে –

আনসার আহমেদ উল্লাহ

আহাদ চৌধুরী বাবু

জামাল খান

আসম মাসুম

জুয়েল রাজ

শাহ বেলাল




Leave Your Comments


কমিউনিটি এর আরও খবর