প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত :  ১৩:৪০, ২৩ জুন ২০২১

যতবার আঘাত এসেছে, ততবার আওয়ামী লীগ ঘুরে দাঁড়িয়েছে

যতবার আঘাত এসেছে, ততবার আওয়ামী লীগ ঘুরে দাঁড়িয়েছে

জনমত ডেস্ক: আওয়ামী লীগ তো হীরার টুকরো, যতবার ভেঙেছে আরো জ্বলজ্বল করেছে, নতুনভাবে জ্যোতি ছড়িয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, আওয়ামী লীগের ওপর বারবার আঘাত এসেছে। কিন্তু যতবার আঘাত এসেছে, ততবার আওয়ামী লীগ ঘুরে দাঁড়িয়েছে।

আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আজ বুধবার বিকেলে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে আয়োজিত আলোচনাসভায় তিনি এ কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের প্রতিজ্ঞা ছিল বাংলাদেশ আমার বাবা স্বাধীন করে দিয়ে গেছেন। বাংলাদেশকে নিয়ে বঙ্গবন্ধুর যে স্বপ্ন ও চিন্তা, সেটা কখনো ব্যর্থ হতে পারে না। সেটাকে ব্যর্থ করার চেষ্টা হয়েছে। আওয়ামী লীগের নাম মুছতে চেষ্টা করা হয়েছে। আওয়ামী লীগ যখন সৃষ্টি হয়, তখন থেকেই মুসলিম লীগ আওয়ামী লীগকে ধ্বংস করার চেষ্টা করেছে। আইয়ুব খান, ইয়াহিয়া খান, জিয়াউর রহমান, জেনারেল এরশাদ এবং খালেদা জিয়া প্রত্যেকে ক্ষমতায় এসে আওয়ামী লীগকে ধ্বংস করতে চেয়েছেন। কত মানুষকে তারা হত্যা করেছেন? লক্ষ্য একটাই আওয়ামী লীগকে শেষ করা। কেন? আওয়ামী লীগ স্বাধীনতা এনে দিয়েছে, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে গরিব দুঃখী মানুষের পেটের ভাত হয়, মাথাগোঁজার ঠাঁই পায়, চিকিৎসা পায়, লেখাপড়ার সুযোগ পায়। এটা বোধহয় কিছু শ্রেণির পছন্দ না।

সমালোচকদের একটু ধৈর্য ধরার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিশ্ব পরিস্থিতিটা বুঝতে হবে। প্রতিটি মানুষ যেন ভ্যাকসিন পায় তার ব্যবস্থা আমরা পর্যায়ক্রমিকভাবে নিচ্ছি এবং সেটা আমরা করব, সবাই টিকা পাবেন।

শেখ হাসিনা বলেন,‌ ভারতে যখন মহামারি ব্যাপকভাবে শুরু হলো, তারা ভ্যাকসিন রপ্তানি বন্ধ করে দেওয়াতে আমরা কিছুটা সমস্যায় পড়েছিলাম। আমরা এখন আবার ভ্যাকসিন কিনতে শুরু করেছি। দেশের প্রত্যেকটা মানুষের কাছে যেন ভ্যাকসিন পৌঁছে যায় আমরা পর্যায়ক্রমিকভাবে তার ব্যবস্থা নিচ্ছি এবং সেটাই আমরা করব।

শেখ হাসিনা বলেন, করোনাভাইরাস যখনই দেখা দিয়েছে ভ্যাকসিনের জন্য আমরা প্রতিটি জায়গায় যোগাযোগ করেছি। কোথায় ভ্যাকসিন পাওয়া যায়। বিশ্বের অনেক দেশ এখনও ভ্যাকসিন দিতে পারেনি। আমরা কিন্তু ভ্যাকসিন নিয়ে এসে দেওয়াও শুরু করেছি।

এ সময় আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয় প্রান্তে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক, শাজাহান খান, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল-আলম হানিফ, ড. হাছান মাহমুদসহ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় ও ঢাকা মহানগরের শীর্ষ নেতারা।

সভায় স্বাগত বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। সঞ্চালনা করেন, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ। সভায় ‘শেখ হাসিনার নেতৃত্বের চার দশক: সংগ্রামী নেতা থেকে কালজয়ী রাষ্ট্রনায়ক’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। বইটির সম্পাদনা করেন দলের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ড. সেলিম মাহমুদ।




Leave Your Comments


জাতীয় এর আরও খবর