প্রকাশিত :  ০০:৩২, ০৯ জুলাই ২০২১

আসুন আগে নিজেরা বদলাই, সমাজ ও দেশ তখন বদলে যাবে এমনিতেই -

শিব্বীর আহমদ শুভ

আসুন আগে নিজেরা বদলাই, সমাজ ও দেশ তখন বদলে যাবে এমনিতেই -

গল্পের ছলেই বলি, কারণ আমরা কাজ থেকে গল্পই বেশি পছন্দ করে  থাকি।

একবার এক রাজ্যের রাজা ঘোষণা করলেন যে প্রজারা যেন রাজ্যের সকল দুধ রাজার দেয়া নির্ধারিত স্হানে এক রাতের  মধ্যেই  ঢেলে দিয়ে আসে। কি হুলস্হূল কান্ড! রাজার নির্দেশ পালন করতে চারদিকে সাজ সাজ রব পড়ে গেলো। সকলেই দুধ এনে রাজার পুকুরে ঢাললো। এ যেনো এক দেখবার মতো অবস্হা। কেউ বালতি করে, কেউ গামলায়, যে যেভাবে পেরেছে প্রত্যেকেই দুধ নিয়ে আসলো।

কেউ ভাবলো রাজা বোধহয় দুধ দিয়ে গোসল করবেন, কেউ ভাবলো রাজা সব দুধ ,রাজ্যের গরীব দু:খীদের মাঝে বিলিয়ে  দিবেন, আবার কেউ ভাবলো রাজা এবং তার সব সভাসদরা মিলে দুধ দিয়ে মিষ্টি বানিয়ে খাবেন। রাজার আদেশ মানতেই  হবে। তাই সারারাত রাজ্যের সব প্রান্ত হতে দুধ এনে প্রজারা রাজার আদেশ পালন করলো।

রাজা তো মহাখুশী !

প্রজারা কতো ভালো, ভয়ে হোক আর আদর করে হোক দুধ তো এনে ঢেলেছে।

পরেরদিন সকালে রাজা দুধ কেমন জমা হলো - তা দেখতে বের হলেন।

রাজা সেই দুধের নহরের পাশে এসে দাঁড়ালেন। এ কি! দুধ কোথায়? এতো শুধু পানি আর পানি! এক ফোঁটা দুধ কি কেউই ঢালেনি? রাজা ক্রোধে উন্মত্ত হয়ে তৎক্ষণাত রাজ সভায় জরুরী সভা ডাকলেন ।

মন্ত্রীগণ ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে ভাবছিলেন আজ বুঝি আর নিস্তার নাই। রাজা প্রধানমন্ত্রীকে জিজ্ঞাসা করলেন কি ব্যাপার খুলে বলো? প্রধানমন্ত্রী আমতা আমতা করে প্রজাদের এই ছলনার বিস্তারিত তুলে ধরলেন ।

রাজা বললেন একজনও কি দুধ নিয়ে আসে নাই?

মন্ত্রী জবাব না দিয়ে চুপ করে রইলেন।

রাজা চিন্তায় পড়ে গেলেন, তার প্রজারা যে একেকজন কি পরিমাণ দুর্নীতিবাজ! রাতের অন্ধকারে বাকি সবার আনা দুধের সাথে তার পানি মিশে যাবে এই ধারণা পোষন করে একজনও দুধ নিয়ে আসে নাই। সবাই পানি নিয়ে এসেছে । 

অথচ সকাল বেলা রাজা দুধ দিয়ে কি করেন তা দেখবার জন্য কি সুন্দর করে লাইনে এসে দাঁড়িয়েছে! এই প্রজাদের রাজা কি করবেন? মারবেন? কাটবেন কতজনকে?

ঠগ বাছতে বাছতে তো তার রাজ্যই উজাড় হয়ে যাবে।

আফসোস ছাড়া রাজা আর কি করবেন? 

আসলে এই পুরাতন গল্প কমবেশী সকলেরই জানা। কিন্তু আজ আমাদের দেশের প্রেক্ষাপটে এই গল্প এক বাস্তব উদাহরণ তা বলতে কোন দ্বিধা নেই।

‘দেশ গেল’ ‘দেশ গেল ‘ বলে যারা প্রতিনিয়ত ধুয়া তুলছেন তারাই বা কতটা সঠিক? বুকে হাত দিয়ে বলুন তো আমি কিম্বা আপনি কতজন দেশ ও দশের জন্য সত্যিকার অর্থে কি করেছি? কি করছি? অবশ্য হাতে গোনা যারা দেশের জন্য সত্যিকার অর্থে কাজ করছেন তাদের সাধুবাদ জানাই। 

সম্প্রতি আমার এক বন্ধু বিলেত থেকে দেশে  গিয়ে উনার কিছু জমিজমা সংক্রান্ত ঝামেলা শেষ করে এসেছেন। তাড়াতাড়ি কাজ শেষ করতে যেয়ে বলার আগেই নিজেই যেচে যেচে ঘুষ দিয়ে বাঁকা পথে কাজ শেষ করে এসেছেন।

আর দেশ হতে বিলেত এসেই বন্ধুমহলে রসিয়ে রসিয়ে সেই সব ঘটনার বিস্তারিত বর্ণনা দিলেন যেন দেশটা একেবারেই শেষ। প্রয়োজনে আমরাই সিস্টেম ভাঙ্গছি আর সুযোগ পেলেই সিষ্টেমের তুলোধুনো করছি। 

কী আজব আমরা ! 

আমাদের দেশে যতো ধরণের অনিয়ম, অনাচার বা সামাজিক অবক্ষয় এর কোনটারই সম্পূর্ণ রোধ কোন  সরকারই কোন কালেই করতে পারবে না যতদিন  না আমরা নিজেরা নিজেকে শোধরে না নিচ্ছি। স্বার্থের খাতিরে নীতি - প্রীতি সব জলাঞ্জলি দিয়ে ভালো মানুষ সেজে রাতের অন্ধকারে দুধের বদলে পানি ঢেলে সকালে রাজা দুধ দিয়ে কি করবেন তা দেখবার জন্য লাইনে দাঁড়িয়ে রাজার অহেতুক সমালোচনা করবেন তা তো হয় না রে ভাই! 

মুখোশে তো পাপ মোচন হয়না। তাই আসুন আগে নিজেরা নিজেদের বদলাই। সমাজ ও দেশ তখন এমনিতেই বদলে যাবে ।


শিব্বীর আহমদ শুভ, বার্নলী, ল্যাঙ্কাশায়ার, ইংল্যান্ড



Leave Your Comments


মতামত এর আরও খবর