প্রকাশিত :  ০০:২৪, ২৬ জুলাই ২০২১

কবি ও লেখক হামিদ মোহাম্মদের গ্রন্থ ‘কবিতাসমগ্র’ ও উপন্যাস ‘পঙ্খিরাজ’ নিয়ে লন্ডনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

কবি ও লেখক হামিদ মোহাম্মদের গ্রন্থ ‘কবিতাসমগ্র’ ও উপন্যাস ‘পঙ্খিরাজ’ নিয়ে লন্ডনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

লন্ডন, ২৫ জুলাই: কবি ওলেখক হামিদ মোহাম্মদের দুটি গ্রন্থ কবিতাসমগ্রও উপন্যাস পঙ্খিরাজনিয়ে আলোচনাঅনুষ্ঠানের আয়োজন করে কবিতার প্লাটফরম কবিকণ্ঠ। গত ২৪ জুলাই বিকেলে পূর্ব লন্ডনে অবস্থিত লন্ডনবাংলা প্রেসক্লাবেআয়োজিত অনুষ্ঠানে আলোচনায় অংশ নেন বিশিষ্টজনের মধ্যে সাপ্তাহিক পত্রিকার প্রধানসম্পাদক মোহাম্মদ বেলাল আহমদ, নাট্যকার,উপস্থাপক বুলবুল হাসান, কবি সারওয়ার ই আলম, কবিময়নূর রহমান বাবুল, কবি শাহ শামীমআহমদ, কবি শামীম শাহান, লেখক ও অনুবাদক ফেরদৌস কবির টিপু ও আহবাব মিয়া।হামিদ মোহাম্মদের কবিতাসমগ্র থেকে কবিতা পাঠ করেন মানবাধিকার নেত্রী অজন্তা দেবরায়, সাংস্কৃতিক নেত্রী ইয়াসমীন মাহমুদ পলিন,আবৃত্তিকার মানস চৌধুরী, বাচিকশিল্পী শহিদুল ইসলাম সাগর ও বাচিকশিল্পী সালাউদ্দিন শাহিন। সব শেষেআলোচনায় অংশ নেন কবি হামিদ মোহাম্মদ। এতে আলোচনায় উঠে আসা নানা প্রশ্নের জবাবদেন তিনি।

ব্যতিক্রমী এই অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলমানাইএসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক এম, এ রকিব,কবি সৈয়দ হিলাল সাইফ, লেখক আনোয়ার শাহজাহান, সংস্কৃতিকমীর্নাসিমা আলী, সংবাদকমীর্ সুভাষদে ও বিশ্বজিত রায় অপু।

অনুষ্ঠানে হামিদ মোহাম্মদের কবিতাকে সুরারোপ করে পরিবেশন করেন সঙ্গীতশিল্পী সঞ্জয় দে ছাড়াওঅনুষ্ঠানে গান গেয়ে শোনান কণ্ঠশিল্পী রীপা রকিব। সমগ্র অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনায়ছিলেন কবি টি এম আহমেদ কায়সার। সভাপতিত্ব করেন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সৈয়দএনামুল ইসলাম।  উল্লেখ্য, এটি ছিল কোভিড১৯ এর প্রকোপের দীর্ঘ পৌনে দুবছর পরলন্ডনে আয়োজিত কোন সাহিত্যানুষ্ঠান।


আলোচনায় অংশ নিয়ে বক্তারা বলেন, হামিদ মোহাম্মদের কবিতা পড়ে মনে হয়েছে তার লেখনির সৃষ্টি ক্ষমতা অসাধারণ,বহুমাত্রিক বিষয় নিয়ে কবিতা লেখা কম কথা নয়।প্রেম,  দেশপ্রেম, রাজনীতি ও সমাজেরঅসংগতি,প্রাপ্তিঅপ্রাপ্তি নিয়ে প্রায় চার শতাধিক কবিতার আকর গ্রন্থ-কবিতাসমগ্রএকটি বিশাল কাজ। ১৯৭৬ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত প্রায় পয়তাল্লিশ বছরের নানাস্পর্শ তাকে আলোড়িত করেছে। এই সংগ্রহের প্রতিটি কবিতা পাঠককে টেনে ধরে, কোন কোনকবিতার বিষয়বস্তু ও স্বপ্ন এবং কল্পনার বিশালতা এমনই যে পাঠককে তার চমকেও দেয়।এছাড়া কবিতার ভাষা সহজ, বুঝতে বেগপেতে হয় না।

ঊক্তারা বলেন, ‘পঙ্খিরাজউপন্যাস যদিও সিলেট অঞ্চলের একটি নির্দিষ্ট ভূভাগেরজীবন বৈচিত্রকে কেন্দ্র করে গড়ে ওঠা কাহিনি, কিন্তু বড় অর্থে বাংলাদেশটাই কাহিনির মূল পটভূমি। বাউল  ঘরানায় কাহিনি আবর্তিত। মৌলবাদী উত্থান এবংগ্রাম্য কলুষ রাজনীতিকে উপজীব্য করে কাহিনির গতিপ্রবাহ। তবে, গ্রন্থের মূলে রয়েছে স্বাধীনতা এবং বিশ্বাসের প্রতিঅবিচল এক জগতের অপ্রতিরোধ্য বাসনা।

উল্লেখ্য, হামিদ মোহাম্মদের কবিতাসমগ্রসম্প্রতি প্রকাশ করেছে ঢাকার অন্যতম প্রকাশনা সংস্থা অনার্য পাবলিশার্স।এবং পঙ্খিরাজপ্রকা করেছেসিলেটের সনামধন্য প্রকাশনা সংস্থানাগরী


ব্ক্তারা লেখকের অনলাইনে প্রকাশিত অন্যান্য গ্রন্থের মধ্যে 'জাহাঙ্গীরর ডরপাথরকন্যারও প্রশংসা করেন।

হামিদ মোহাম্মদ একজন লেখক হলেও মূলত সাংস্কৃতিক সংগঠক। সিলেটে প্রগতিশীলসাংস্কৃতিক আন্দোলন গড়ে তুলতে ১৯৮৩ সালে শিকড় সংস্কৃতি চক্র প্রতিষ্ঠা,  খেলাঘর,উদীচীর কমীর্ এবং শিল্পকলা একাডেমীর ১৯৮৩৮৭ মেয়াদের কার্যকরি সদস্য এবং ১৯৮৮ সালে লন্ডনেউদীচী প্রতিষ্ঠার প্রধান কর্ণধার হামিদ মোহাম্মদ। ১৯৮৯ সালে লন্ডনে উদীচীর উদ্যোগেও জাতীয় সাহিত্য প্রকাশনীর সহযোগিতায় সপ্তাহব্যাপী সর্ববৃহৎ বাংলাদেশ বইমেলারঅন্যতম আয়োজক ছিলেন হামিদ মোহাম্মদ। সাপ্তাহিক যুগভেরী অধুনা দৈনিক যুগভেরীর ১৯৭৬থেকে ১৯৮৭ সাল পর্যন্ত স্টাফ রিপোর্টার,সাহিত্যসম্পাদক এবং ১৯৭৬ সালে সিলেট প্রেসক্লাবের সদস্যপদ লাভ ছাড়াও ১৯৭৮ থেকে ৮২ সাল পর্যন্ত দুই মেয়াদে সিলেট প্রেসক্লাবেরকার্যকরি সদস্য। 

২০১০ সাল থেকে লন্ডনে বসবাসসূত্রে সাপ্তাহিক পত্রিকায় কন্টিবিউটার,লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাব সদস্য এবং সাংস্কৃতিকআন্দোলনের কমীর্ হিসেবে উদীচী যুক্তরাজ্য সংসদএর উপদেষ্টা, প্রগতিশীলসাহিত্যান্দোলনের অন্যতম প্লাটফরম কবিকণ্ঠএর প্রতিষ্ঠাতা কর্ণধার ছাড়াও যেকোনো প্রতিবাদীআন্দোলনে সোচ্চার কণ্ঠ হামিদ মোহাম্মদ। ২০১৮ সালে লন্ডনে ধর্ষণ বিরোধীÑপ্রতিবাদের কবিতাপাঠএবং বর্ণবাদ, সাম্পদায়িকতাও মৌলবাদ বিরোধীকবিতাপাঠ এবং কবি মুজিব ইরমএর কবিতা ও সাহিত্যনিয়েব্যতিক্রমধমীর্ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন হামিদ মোহাম্মদ।


সাংস্কৃতিক আন্দোলনসংগ্রামেযুক্ত থাকা হামিদ মোহাম্মদ নিয়মিত কবিতা, গল্প, প্রবন্ধনিবন্ধ লিখেন। প্রকাশিত গ্রন্থÑকবিতা স্বপ্নেরলাল ঘুড়ি’ ‘আমার মৃত্যুর পরকোনো শোকসভা হবে না’ ‘উড়ালপাখি’ ‘তোমার অনিন্দ্য নামএবং গল্পগ্রন্থÑ‘হৃদয়ে রঙধনু’ ‘লাল গোলাপউপন্যাসÑ’কালোদানব’‘স্কোয়াটিংমাতাল বাঁশি ও পঙ্খিরাজ’‘পাথরকন্যা,’ ‘জাহাঙ্গীরর ডর। মননশীলগ্রন্থ-শিকড়ের দিনগুলি ওঅন্যান্যনন্দিত ভুবনে’‘বিলেতের সাহিত্য’, রূপালি সোনালি মাটিএবং বিশেষগ্রন্থ-প্রেমের কবিতা’‘কবিতা সমগ্র

 



Leave Your Comments


শিল্প-সংস্কৃতি এর আরও খবর