প্রকাশিত :  ০৬:৪৬, ৩০ জুলাই ২০২১
সর্বশেষ আপডেট: ২০:৫৮, ৩০ জুলাই ২০২১

যে কারণে বিজয়ীরা অলিম্পিক পদকে কামড় দেন

যে কারণে বিজয়ীরা অলিম্পিক পদকে কামড় দেন

স্পোর্টস ডেস্ক : আপনারা একটা ব্যাপার সবসময় দেখে থাকবেন যে, অলিম্পিক ও অন্যান্য ক্রীড়া ইভেন্টে পোডিয়ামে দাঁড়িয়ে বিজয়ী খেলোয়াড়রা নিজেদের পদক কামড়ে ধরেন। কিন্তু কখনো কী ভেবে দেখেছেন এমনটা তারা কেনো করেন? নিশ্চয়ই টুর্নামেন্টের নিয়ম নয় এটা। ব্যাপারটা নিয়ে অনেকের মাঝে কৌতূহলও রয়েছে।

বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রীড়া ইভেন্ট অলিম্পিকে এটা খুব সাধারণ দৃশ্য। চলমান টোকিও অলিম্পিকেও বিজয়ী খেলোয়াড়দের পদকে কামড় দিতে দেখা গেছে।

সেই প্রেক্ষিতেই কিনা টোকিও অলিম্পিকের অফিশিয়াল টুইটার পেজে রসিকতা করে একটা ‘সাবধান বাণী’ পোস্ট করা হয়েছে। সেখানে লেখা, অলিম্পিকের পদক কোনো খাওয়ার বস্তু নয় এবং আমরা তা আনুষ্ঠানিকভাবে নিশ্চিত করতে চাই।

অলিম্পিকের অফিশিয়াল টুইটার পেজে এক পোস্টে লেখা হয়েছে, টোকিও অলিম্পিকের পদকগুলো জাপানের সাধারণ মানুষের দান করা ইলেকট্রনিকস পণ্য রিসাইকেল করে তৈরি। তাই এটাতে কামড় না দেওয়া উচিত। তারপরও অনেকেই কাজটা করবেন।

কিন্তু ক্রীড়াবিদেরা কেনো পদকে কামড় বসান সে ব্যাপারে ইন্টারন্যাশনাল কমিটি অব অলিম্পিক হিস্টোরিয়ানসের নির্বাহী সদস্য ডেভিড ওয়ালিচেনস্কি সিএনএনকে বলেছেন, সম্ভবত ফটোসাংবাদিকদের অনুরোধেই প্রচলনটা শুরু হয়। তারা ক্রীড়াবিদদের এভাবে পোজ দিতে অনুরোধ করেন। ক্রীড়াবিদেরা নিজ থেকে এমনটা করেন বলে মনে করি না।

তবে প্রকৃত ঘটনা অন্যকিছু বলেই ধারণা করা হয়। প্রাচীন সময়ে সোনার মুদ্রা আসল নাকি নকল সেটি পরীক্ষা করতে কামড় দিয়ে দেখা হতো। সোনায় কামড় দিলে সেটিতে দাগ পড়তে বাধ্য। কিন্তু নকল হলে দাঁতে ব্যাথা লাগবে। মূলত এ কারণেই অলিম্পিক পদকে কামড় দেওয়ার প্রচলনটি এসেছে।



Leave Your Comments


খেলাধূলা এর আরও খবর