প্রকাশিত :  ০৭:৩৫, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

শিক্ষার্থীদের চুল কেটে দেয়ায় সেই শিক্ষিকার পদত্যাগ, তদন্ত কমিটি গঠন

শিক্ষার্থীদের চুল কেটে দেয়ায় সেই শিক্ষিকার পদত্যাগ, তদন্ত কমিটি গঠন

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে ও তোপের মুখে পড়ে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক কর্তৃক কাঁচি দিয়ে ১৪ শিক্ষার্থীর মাথার চুল কেটে দেওয়ার ঘটনায় মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় অভিযুক্ত সেই শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিন বাতেন তার দায়িত্বে থাকা ৩টি পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন। 

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির অতিরিক্ত দায়িত্বপ্রাপ্ত ট্রেজারার আব্দুল লতিফ। তিনি জানান, মঙ্গলবার রাতে ওই শিক্ষক তার দায়িত্বে থাকা সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যায়ন বিভাগের চেয়ারম্যান, সহকারী প্রক্টর ও প্রক্টরিয়াল বোর্ডের সদস্য এই ৩টি পদ থেকেই স্থায়ীভাবে পদত্যাগ করেছেন।

তিনি আরও জানান, ওই শিক্ষক চাকরি থেকে স্থায়ীভাবে পদত্যাগ না করায় তার শিক্ষকতা পদ থেকে পদত্যাগ চেয়ে শিক্ষার্থীরা রাতে আবারও আন্দোলন শুরু করে ও তা অব্যহত রাখার ঘোষণা দেয়।

তবে এ বিষয়ে কথা বলার জন্য বরীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যায়ন বিভাগের চেয়ারম্যান সহকারী প্রক্টর ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনের মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

ট্রেজারার আব্দুল লতিফ বলেন, গতকাল রাতে তিনি তার দায়িত্বে থাকা ৩টি গুরুত্বপূর্ণ পদ থেকে পদত্যাগ করলেও শিক্ষার্থীরা তার শিক্ষক পদ থেকেও পদত্যাগ চাইছে। কিন্তু তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ তদন্ত করে প্রমাণ না হওয়া পর্যন্ত আমরা এটা করতে পারি না। অভিযোগ প্রমাণিত হলে তখন এই বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া।



Leave Your Comments


শিক্ষা এর আরও খবর