প্রকাশিত :  ১৪:২৭, ০২ অক্টোবর ২০২১

প্রত্যয় এবার ভারতকে হারানোর

 প্রত্যয় এবার ভারতকে হারানোর

একটি জয়। তাও আসরের প্রথম ম্যাচে। শুক্রবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে পাওয়া ওই তিন পয়েন্টের পর লাল-সবুজ জার্সিধারীরা এখন আত্মবিশ্বাসের তুঙ্গে। তারা সোমবার কঠিনতম প্রতিপক্ষ ভারতকেও আমলে নিচ্ছে না।
শনিবার মালের টার্ফ গ্রাউন্ডে দুপুর ১২টার দিকে অনুশীলনের পর বাংলাদেশ দলের ফুটবলারদের শরীরের ভাষায় ফুটে উঠছিল ভারতকেও হারিয়ে দেয়ার দৃঢ়চেতা মনোভাব।
জ্বরের জন্য প্রথম ম্যাচ মিস করা মিডফিল্ডার সোহেল রানা তো স্পষ্ট করেই বললেন, দেখেন না ভারতের সাথে কী হয়! ভারতীয়দের বিপক্ষে ভালো কিছুর অপেক্ষায় আছে সবাই। সব ফুটবলার তেঁতে আছে তাদেরকে হারাতে।’
কোচ অস্কার ব্রুজনও টানা দ্বিতীয় জয়ের অপেক্ষায়। জানান, ‘আমাদের দল খুব ভালো অবস্থায় আছে। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগও খুব প্রতিদ্বন্দ্বিতা পূর্ণ। এই লিগের ফুটবলারদের নিয়েই এখন আমাদের পরবর্তী টার্গেট ভারতকে হারানো।
র‌্যাঙ্কিংয়ে শ্রীলঙ্কা পিছিয়ে থাকলেও যেকোনো আসরে যেকোনো দলের বিপক্ষে জয়ে শুরু করায় গুরুত্বটা সম্পূর্ণ ভিন্ন। তাই ভারতের মতো সাফের সবচেয়ে সফল দেশটিকেও পাত্তা দিতে চাচ্ছেন না সোহেল রানা ও ইব্রাহিমরা।
১৯৯৩ সালে সার্ক ফুটবল নামে জন্ম নেয়া আসরটি সাফ নাম ধারন করে ১৯৯৭ সাল থেকে। সার্ক ও সাফ ফুটবলের ইতিহাসের ভারতের সাথে বাংলাদেশের দেখা হয়েছে এ পর্যন্ত ৯বার। এর একটিতেই জয়ের স্বাদ লাল-সবুজ জার্সিধারীদের। ২০০৩ সালের ঢাকা সাফের সেমিফাইনালে পাওয়া ওই জয় অবশ্য ফিফার তালিকায় ড্র হিসেবে বিবেচিত।
কারণ, মতিউর মুন্নার সেই গোল্ডেন গোলের জয়টি এসেছিল ৯০ মিনিটের পর অতিরিক্ত সময়ে। বাকি আট ম্যাচের মধ্যে পাঁচটিতে জয় ভারতের। ড্রতে শেষ তিন ম্যাচ। ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে ১০৫-এ থাকা ভারতকে এবারের ১৩তম সাফে সব দলই শিরোপার অন্যতম ফেবারিট মনে করে। ৭ বার সাফ জয়ী সেই ভারতকেই এবার কাবু করে ফাইনালের পথে এগিয়ে যাওয়ার মিশন বাংলাদেশ দলের।
শনিবার বাংলাদেশ দলের ফুটবলারদের মধ্যে যারা আগের দিন ৬০ মিনিটের কম সময় খেলেছেন তাদের কঠোর পরিশ্রম করানো হয়। হালকা অনুশীলন হয়েছে ৯০ মিনিট খেলা ফুটবলাররা। তথ্য দেন, বাংলাদেশ দলের সহকারী কোচ মাহাবুব হোসেন রক্সি।
এ দিন অনুশীলনে ফিরেছেন সোহেল রানা। তবে ডিফেন্ডার রেজাউল করিম শনিবারও হোটেলে সময় কাটিয়েছেন জ্বর পরবর্তী শারীরিক দুর্বলতা দূর না হওয়ায়। করোনা হয়নি তার। সোহেল রানার ভারতের বিপক্ষে খেলা নিয়ে সংশয় আছে। তিনি নিজেই জানান, আমার শরীরটা এখনো দুর্বল। ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামতে পারবো। তবে ৯০ মিনিট খেলতে পারবো কি না তা বোঝার জন্য আরো এক দিন তো সময় আছে।
তবে শনিবার অনুশীলন করেননি ডিফেন্ডার ও গত ম্যাচে জয়ের নায়ক তপু বর্মন।
শ্রীলঙ্কার সাথে ম্যাচে ডান পায়ের গোড়ালিতে চোট লাগে তার। তাই একেবারেই হালকা স্ট্রেচিং করেছেন। তপু অবশ্য জানান, ‘আঘাতটা সামান্যই। ভারতের সাথে ম্যাচের আগেই ঠিক হয়ে যাবে।’ তেমন প্র্যাকটিস করেননি তারিক কাজীও। বাফুফের টেকনিক্যাল ডিরেক্টর পল স্মলির সাথে কথা বলেই বেশি সময় পার করেছেন তিনি।
সোহেল রানার বক্তব্য, লঙ্কানদের বিপক্ষে অতি জরুরি জয় পাওয়ার পর দল ভালো অবস্থানে চলে গেছে। যে কারণে ভারতের বিপক্ষেও ভালো করার আত্মবিশ্বাস বেড়ে গেছে। তবে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে যে সুযোগগুলো মিস করেছি ভারতের বিপক্ষে সেই সুযোগ অতো আসবে না। এরপরও যে কয়টি চান্স আসবে তা কাজে লাগাতে হবে। তিনি যোগ করেন, ভারতের বিপক্ষে আমাদের ভালো করতেই হবে। প্রথম ম্যাচের মতোই আগামী ম্যাচের সমাপ্তিটা ভালো করতে চাই।
২০১৯ সালে কলকাতার সল্টলেক স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে ভারতের বিপক্ষে গোল মিস করেছিলেন ইব্রাহিম। ম্যাচটি ১-১-এ ড্র হয়। তার মতে, ভারতের সাথে ম্যাচে ভিন্ন একটা উত্তেজনা থাকে। সবাই অপেক্ষায় থাকে এই ম্যাচ খেলার। আমরা সল্টলেকে যা পারিনি সাফে সেটা করতে চাই। এই ফরোয়ার্ড যোগ করেন, গত ম্যাচে নেপালের কাছে মালদ্বীপের ০-১ গোলে হারের পর এখন সব দলেরই ফাইনালে খেলার চান্স তৈরি হয়েছে।
কোচ অস্কার ব্রুজনের দল নিয়ে ময়নাতদন্ত, আমাদের ডিফেন্স লাইন একেবারে সলিড। সমস্যা একটিই- ফিনিশিং। গোল করার মতো ফুটবলারের অভাব। এটা নিয়েই কাজ করছি।



Leave Your Comments


খেলাধূলা এর আরও খবর