প্রকাশিত :  ০৮:১৯, ০৯ অক্টোবর ২০২১

লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাবের নতুন মেম্বারশীপ আবেদন শুরু

লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাবের নতুন মেম্বারশীপ আবেদন শুরু

কিনু মিয়া, লন্ডন : লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাব কভিড কালিন বাস্তবতায় মেম্বারশীপ ফিতে ২৫% ডিসকাউন্ট দিয়েছে। তবে এটাশুধুমাত্র নবায়নের জন্য। চলমান ৮০ পাউন্ড নির্ধারিত রেখে শুধুমাত্র কভিড বাস্তবতার আলোকে বর্তমান মেম্বারদের জন্য এইবিশেষ বিবেচনা করা হয়েছে। ফলে বর্তমান মেম্বারদের জন্য ফি ৬০ পাউন্ড। সম্প্রতি ক্লাবের নির্বাহী কমিটির সভায় এই সিদ্ধান্তহয়। এছাড়া নতুন আবেদনকারীর ফি ১০০ পাউন্ড থাকছে। আবেদন সফলকাম না হলে ২০% এডমিন ফি কেটে রাখা হবে।

আগ্রহী আবেদনকারীকে মেম্বারশীপ পলিসির পরিবর্তন ও সংযোজনের আলোকে ছবিসহ ফরম পূরণ করতে হবে। সরাসরি ক্লাবঅফিসে অথবা পোষ্টে জমা দিতে হবে। এড্রেস এবং ব্যাংকিং তথ্য ফরমেই রয়েছে।

পুরো পলিসি পেপার এবং ফরম ভালো করে পড়ে সংশ্লিষ্ট ডক্যুমেন্টসহ আবেদন জমা দেয়ার জন্য বিশেষ ভাবে অনুরোধ করাহয়েছে। উল্লেখ্য, মূলত নতুন সংযোজন পুরোনো পলিসিকে সুনির্দিষ্ট করেছে, বড়ধরনের মৌলীক পরিবর্তন আসেনি। যেমন–পুরোনো পলিসি অনুযায়ী আবেদনকারীকে নিউজ মিডিয়ায় দু বছরের ধারাবাহিকতার উল্লেখ করতে হবে।

এবার ফি নেয়া হবে শুধুমাত্র ব্যাংক ট্রান্সফার এবং চেক–এর মাধ্যমে। নিজের ব্যাংক একাউন্টের বাইরে  একান্ত নিজের পরিবারেরকোনো সদস্যের একাউন্টের চেক গৃহীত হবে। নিজের একাউন্ট থেকে ব্যাংক ট্রান্সফারের ক্ষেত্রে আবেদনের সাথেই রিসিট কপিদিতে হবে। নতুন আবেদনকারীর মিডিয়া কর্তৃপক্ষের একটি রেফারেন্স লাগবে। উল্লেখ থাকতে হবে তিনি এতে দু বছর যাবতযুক্ত। না হলে অপর কতৃপক্ষেরও রেফারেন্স আনতে হবে। রিনিউ আবেদনে যদিও রেফারেন্স লাগবে না, কিন্তু সর্বশেষ কর্মস্থলে দুবছরের কম থাকলে একটি রেফারেন্স দিতে হবে।

সুনির্দিষ্ট ক্রাইটেরিয়াসহ মেম্বারশীপ পলিসি:

সদস্য গ্রহণের ক্ষেত্রে বর্তমানে বিভিন্ন মাধ্যমে সাংবাদিকতার কাজে যুক্ত ব্যক্তিদের জন্য সুনির্দিষ্ট ক্রাইটেরিয়া নির্ধারণ করাহয়েছে। অবশ্য মেম্বার পদে আবেদনের বেলায় ইউকেতে নূন্যতম দুই বছর বসবাস এবং সর্বশেষ দু’বছর ধারাবাহিকভাবেমিডিয়ায় সক্রিয় থাকার যে সাংবিধানিক পুরোনো পলিসি রয়েছে সেটি এখোনো বহাল রয়েছে। যোগ হয়েছে কিছু প্রমাণাদি জমাদেয়ার বিষয়। যেমন: টিভি ও অনলাইন এবং পত্রপত্রিকার রিপোর্টারকে সর্বশেষ বছরে অন্তত ৫টি রিপোর্ট প্রমাণ হিসেবেউপস্থাপন করতে হবে। ফ্রিল্যান্স হলে যথার্থ প্রমাণ থাকতে হবে এবং আবেদনের সাথে দিতে হবে অন্তত ৫টি প্রতিবেদন/ লেখা।আর যারা প্রত্যক্ষ সাংবাদিকতায় নন তারা নিউজ এবং কারেন্ট এফেয়ার্সে কীভাবে যুক্ত তার তিনটি বা চারটি সঠিক উদাহরণদেবেন। উল্লেখ্য, নতুন নিয়মে মেম্বারশীপ আবেদনের শেষ দিন ৩১ অক্টোবর।

অনলাইন থেকে আবেদনের বেলায় অতিরিক্ত শর্তাবলী:

সবার জন্য কিছু পলিসি ছাড়াও অনলাইন মিডিয়ার আবেদনকারীকে অতিরিক্ত কিছু ডক্যুমেন্ট দিতে হবে। সংবাদকর্মী হিসেবেসক্রিয় থাকতে হবে বৃটিশ বাংলাদেশী কমিউনিটিতে। নিজস্ব ওয়েবসাইট ও ব্যাংক একাউন্ট/লিমিটেড কোম্পানী থাকতে হবে।ফেইসবুক পেইজে নূন্যতম ১০ হাজার ফলোয়ার আর ইউটিউভ চ্যানেলের ক্ষেত্রে নূন্যতম ১ হাজার সাবসক্রাইবার হতে হবে।

ফাউন্ডিং ও মুক্তিযোদ্ধা মেম্বাররা বিশেষ মর্যাদা পাবেন: 

ইউকেজুড়ে ৩১৮ জন মেম্বারের ২৮ বছর ধরে প্রতিষ্ঠিত এই ক্লাবের ফাউন্ডিং মেম্বাররা আজীবন কোনো সক্রিয়তার ডক্যুমেন্টজমা দেয়া ছাড়াই বিশেষ মর্যাদায় মেম্বার থাকবেন– ইসির প্রস্তাবিত এই সিদ্ধান্ত এসজিএমে পাশ হয়েছে। আর সদস্যের সম্পূরকপ্রস্তাবে পাশ হয়েছে— ক্লাবের মুক্তিযোদ্ধা মেম্বাররাও আজীবন সমান মর্যাদা পাবেন। বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীউপলক্ষে ক্লাবের সক্রিয় মুক্তিযোদ্ধা সদস্যদের প্রতি সম্মান জানিয়ে তাদের জন্য সদস্যপদ নবায়নের এই বিশেষ সুবিধা দেয়াহয়েছে। তাঁরা শুধুমাত্র ফি জমা দিয়ে সদস্য হবেন।



Leave Your Comments


কমিউনিটি এর আরও খবর