প্রকাশিত :  ০৮:৫১, ২৬ নভেম্বর ২০২১

হবিগঞ্জে বিদ্রোহী হয়ে বহিস্কৃত ২৫ আ.লীগ নেতা

 হবিগঞ্জে বিদ্রোহী হয়ে বহিস্কৃত ২৫ আ.লীগ নেতা

জনমত ডেস্ক : হবিগঞ্জে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় উপজেলা, পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতিসহ ২৫ জনকে দল থেকে সাময়িক বহিস্কার করেছে জেলা আওয়ামী লীগ।
একই সাথে নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সাইফুল জাহান চৌধুরীর ভাই বিদ্রোহী হওয়া এবং তিনি তার ভাইয়ের পক্ষে নির্বাচনে কাজ করার বিষয়টি জানতে চেয়ে কারণ দর্শনো নোটিশ দেয়া হয়েছে।
বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট মো. আবু জাহির এমপি ও সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মো. আলমগীর চৌধুরী স্বাক্ষরিত সংবাদপত্রে প্রেরিত বিজ্ঞপ্তিতে তাদেরকে বহিস্কারের বিষয়টি জানানো হয়।
বুধবার (২৪ নভেম্বর) বহিস্কারের আদেশটি জারি করা হয়।
বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, স্থানীয় সরকার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ও তৃতীয় ধাপে জেলার আজমিরীগঞ্জ, নবীগঞ্জ এবং সদর উপজেলার ২৬টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সেই লক্ষে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে ২৬ জনকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। সেখানে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রতীক নৌকার বিরুদ্ধে গিয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছন ২৫ আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী। দলীয় শৃঙ্খলা বিরোধী কার্যকলাপের অভিযোগে তাদেরকে আওয়ামী লীগ থেকে সাময়িক বহিস্কার করা হয়েছে।
একই সাথে স্থানীয়ভাবে বহিস্কারের জন্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যকরি কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের কাছে লিখিতভাবে আবেদন জানানো হয়।
বহিস্কারকৃতরা হলেন, হবিগঞ্জ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ সদস্য মীর জালাল, আওয়ামী লীগ নেতা, কয়ছর আহমেদ শামীম, আওয়ামী লীগ নেতা আমিরুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগ সদস্য মো. সেবলু মিয়া, আওয়ামী লীগ নেতা মো. আক্তার হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক আবুল কালাম বাবুল, রাজিউরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক মো. তাজ উদ্দিন, উপজেলা যুবলীগ আহবায়ক ও বর্তমান চেয়ারম্যান মো. তাজ উদ্দিন।
নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ইমদাদুর রহমান মুকুল, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্মলেন্দু দাস রানা, পূর্ব ভাকৈ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সদস্য মেহের আলী মহালদার, যুবলীগ সহ সভাপতি খালেদ মোশাররফ, আওয়ামী লীগ নেতা জায়েদ উদ্দিন জায়েদুল, যুবলীগ নেতা মো. নোমান হোসেন, উপজেলা কৃষকলীগ নেতা মো. আব্দুল মুকিত, আওয়ামী লীগ নেতা আবু তালেব চৌধুরী নিজাম, সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সদস্য জাবেদুল আলম চৌধুরী সাজু, আওয়ামী লীগ নেতা জুনেদ হুসেন চৌধুরী, কালিয়ারভাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ইমদাদুল হক চৌধুরী ও দেবপাড়া ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি শামীম আহমেদ।
আজমিরীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ সহ সভাপতি মো. আশরাফ উদ্দিন, আলী আমজাদ তালুকদার, সাংগঠনিক সম্পাদক নলিউর রহমান তালুকদার, প্রচার সম্পাদক মো. স্বাধীন মিয়া ও জলসুখা ইউনিয়ন যুবলীগ সধারণ সম্পাদক মো. ফয়েজ মিয়া।
এদিকে, দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিয়োগে নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল জাহান চৌধুরীকে কারণ দর্শনানো নোটিস দেওয়া হয়েছে।
নোটিশে বলা হয়েছে, নবীগঞ্জ উপজেলার ৮ নম্বর সদর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিদ্রোহী হিসেবে নির্বাচন করছেন তার ভাই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সদস্য জাবেদুল আলম চৌধুরী সাজু। তার পক্ষে কাজ করছেন সাইফুল জাহান চৌধুরী। আগামী ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের কাছে জবাব দিতে বলা হয়েছে।





Leave Your Comments


সিলেটের খবর এর আরও খবর