প্রকাশিত :  ১৮:৪৫, ১৩ মে ২০২২

এক নজরে ২৬ কোম্পানির ইপিএস

এক নজরে ২৬ কোম্পানির ইপিএস

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ২৬ কোম্পানি গত সপ্তাহে চলতি অর্থবছরের প্রথম ও তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’২২) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

এই ২৬ কোম্পানির মধ্যে রয়েছে ইসলামিক ফাইন্যান্স, এশিয়া ইন্স্যুরেন্স, উত্তরা ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংক, বিডি ফাইন্যান্স, প্রাইম ব্যাংক, সেনা কল্যাণ ইন্স্যুরেন্স, কুইনসাউথ টেক্সটাইল, পেনিনসুলা, যমুনা ব্যাংক, পূবালী ব্যাংক, এক্সিম ব্যাংক, রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্স, হামিদ ফেব্রিক্স, প্রিমিয়ার ব্যাংক, গ্রীণ ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স, ভিএফএস থ্রেড, মার্কেন্টাইল ইন্স্যুরেন্স, এনআরবিসি ব্যাংক, লিনডে বিডি, কনফিডেন্স সিমেন্ট, ন্যাশনাল হাউজিং, সিটি ব্যাংক, ইউনাইটেড ইন্স্যুরেন্স কর্ণফুলী ইন্স্যুরেন্স এবং ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড।

সলামিক ফাইন্যান্স: প্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২২) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩০ পয়সা। আগের অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৪১ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১৫ টাকা ৬১ পয়সা। আগের অর্থবছরের একই সময়ে ছিল ১৫ টাকা ৪১ পয়সা।

একই সময়ে শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৪ টাকা ৯৮ পয়সা (নেগেটিভ)। আগের অর্থবছরের একই সময়ে ছিল ২৭ পয়সা (নেগেটিভ)।

এশিয়া ইন্স্যুরেন্স: প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩৬ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস ছিল ৫৪ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য ছিল ১৯ টাকা ২৩ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ১৮ টাকা ৬৫ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৪২ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে ছিল ১ টাকা ০৩ পয়সা।

উত্তরা ব্যাংক: প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৮১ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস ছিল ৭৫ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি ক্যাশ ফ্লো নেগেটিভ ৯ টাকা ৪৯ পয়সা, আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির ক্যাশ ফ্লো ছিল নেগেটিভ ১ টাকা ৫১ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য হয়েছে ৩৩ টাকা ৬৮ পয়সা, আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির সম্পদ মূল্য ছিল ৩১ টাকা ৫৭ পয়সা।

ব্র্যাক ব্যাংক: প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৭৭ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৮২ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি ক্যাশ ফ্লো হয়েছে ৭ টাকা ২০ পয়সা, আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির ক্যাশ ফ্লো ছিল নেগেটিভ ৬ টাকা ১৫ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য হয়েছে ৩৮ টাকা ৯৮ পয়সা, আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির সম্পদ মূল্য ছিল ৩১ টাকা ৮০ পয়সা।

বিডি ফাইন্যান্স: প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৪২ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস ছিল ৪৭ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি ক্যাশ ফ্লো হয়েছে ২ টাকা ৪০ পয়সা, আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির ক্যাশ ফ্লো ছিল ৮১ পয়সা

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য হয়েছে ১৮ টাকা ১৫ পয়সা, আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির সম্পদ মূল্য ছিল ১৭ টাকা ৭৩ পয়সা।

প্রাইম ব্যাংক: প্রথম প্রান্তিকে ব্যাংকটির সমন্বিত শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৯২ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ব্যাংকটির ইপিএস ছিল ১ টাকা ৩৪ পয়সা।

সেনাকল্যান ইন্স্যুরেন্স:প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানি শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৯৫ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ব্যাংকটির ইপিএস ছিল ৯০ পয়সা।

 ৩১ মার্চ, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য হয়েছে ১৯ টাকা ৫৩ পয়সা।

কুইনসাউথ টেক্সটাইল: তৃতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫১ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ব্যাংকটির ইপিএস ছিল ৩২ পয়সা।

অর্থবছরের প্রথম তিন প্রান্তিকে অর্থাৎ ৯ মাসে শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ১ টাকা ১২ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে আয় ছিল ৮০ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য হয়েছে ১৫ টাকা ৫৩ পয়সা।

পেনিনসুলা চিটাগং: তৃতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০৮ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ব্যাংকটির ইপিএস ছিল ০৪ পয়সা।

অর্থবছরের প্রথম তিন প্রান্তিকে অর্থাৎ ৯ মাসে ইপিএস হয়েছে ৭২ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে আয় ছিল ৪৬ পয়সা আয়।

৩১ মার্চ, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য হয়েছে ৩০ টাকা।

যমুনা ব্যাংক: প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৭২ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ব্যাংকটির ইপিএস ছিল ১ টাকা ৬০ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে ব্যাংকটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৩১ টাকা ৩৩ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে ছিল ৩১ টাকা ৪২ পয়সা।

একই সময়ে ব্যাংকটির শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৯ টাকা ৪২ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে ছিল ১৫ টাকা ৬২ পয়সা।

পূবালী ব্যাংক: প্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২২) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ১৯ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৯৮ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৪০ টাকা।

এক্সিম ব্যাংক: প্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২২) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৫ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ০৫ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ২১ টাকা ৯৭ পয়সা।

রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্স: প্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২২) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ২৮ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ১ টাকা ৩৫ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৬০ টাকা ৯২ পয়সা।

হামিদ ফেব্রিকস: তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২২) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২০ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ৩৪ পয়সা।

অর্থবছরের প্রথম তিন প্রান্তিকে অর্থাৎ ৯ মাসে (জুলাই’২১-মার্চ’২২) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৩৮ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ১ টাকা ৩১ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৩৭ টাকা ৯৩ পয়সা।

প্রিমিয়ার ব্যাংক: প্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি২-মার্চ’২২) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ৬৫ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৫৬ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ২২ টাকা ১২ পয়সা।

গ্রীনডেল্টা ইন্সুরেন্স:প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ১ টাকা ৭৮ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস ছিল ১ টাকা ৭৬ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি ক্যাশ ফ্লো হয়েছে ৬৭ পয়সা, আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির ক্যাশ ফ্লো ছিল ৫৫ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য হয়েছে ৬৯ টাকা ৬৭ পয়সা, আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির সম্পদ মূল্য ছিল ৬৯ টাকা ৩২ পয়সা।

ভিএফএস থ্রেড: তৃতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৫১ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস ছিল ৪১ পয়সা।

তৃতীয় প্রান্তিক বা ৯ মাসে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ১ টাকা ৪০ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস ছিল ১ টাকা ২৭ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি ক্যাশ ফ্লো হয়েছে ১ টাকা ৮৭ পয়সা, আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির ক্যাশ ফ্লো ছিল ৮৯ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য হয়েছে ১৯ টাকা ৩৪ পয়সা, আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির সম্পদ মূল্য ছিল ১৮ টাকা ৭০ পয়সা।

মার্কেন্টাইল ইন্সুরেন্স:প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৭৫ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস ছিল ৭২ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২২ তারিখে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি ক্যাশ ফ্লো হয়েছে ৫২ পয়সা, আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির ক্যাশ ফ্লো ছিল ৫৭ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য হয়েছে ২০ টাকা পয়সা, আগের বছর একই সময়ে কোম্পানিটির সম্পদ মূল্য ছিল ২০ টাকা ৩৮ পয়সা।

লিনডে বিডি: প্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২২) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ১৯ টাকা ৬৫ পয়সা, গত বছর একই সময়ে আয় ছিল ১৮ টাকা ৮৮ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২২ তারিখে শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য হয়েছে ৪১৫ টাকা ২০ পয়সা।

এনআরবিসি ব্যাংক: প্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২২) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় হয়েছে ৮৯ পয়সা, গত বছর একই সময়ে সমন্বিত আয় ছিল ৪২ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২২ তারিখে শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য হয়েছে ১৭ টাকা ১৪ পয়সা।

ন্যাশনাল হাউজিং: প্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২২) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৭৪ পয়সা, গত বছর একই সময়ে আয় ছিল ৭২ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২২ তারিখে শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য হয়েছে ১৯ টাকা ৩৯ পয়সা।

কনফিডেন্স সিমেন্ট: তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২২) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ২ টাকা ৬২ পয়সা, গত বছর একই সময়ে আয় ছিল ৭ টাকা ৮০ পয়সা।

এদিকে, তৃতীয় প্রান্তিকে তথা ৯ মাসে (জুলাই’২১-মার্চ’২২) শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৮ টাকা ৪৬ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ১৪ টাকা ১৬ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২২ তারিখে শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য হয়েছে ৮০ টাকা ৩২ পয়সা।

সিটি ব্যাংক: প্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২২) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় হয়েছে ৮৩ পয়সা, গত বছর একই সময়ে আয় ছিল ৯৭ পয়সা।

৩১মার্চ, ২০২২ তারিখে শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য হয়েছে ৩০ টাকা ৭১ পয়সা।

ইউনাইটেড ইন্স্যুরেন্স: প্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২২) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৩১ পয়সা, গত বছর একই সময়ে আয় ছিল ২৮ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২২ তারিখে শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য হয়েছে ৩৪ টাকা ৮৫ পয়সা।

ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক: প্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২২) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় হয়েছে ২৬ পয়সা, গত বছর একই সময়ে আয় ছিল ৩৮ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২২ তারিখে শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য হয়েছে ২৯ টাকা ৬৮ পয়সা।

কর্ণফুলী ইন্স্যুরেন্স: প্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’২২) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় হয়েছে ৫৯ পয়সা, গত বছর একই সময়ে আয় ছিল ৪৫ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০২২ তারিখে শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য হয়েছে ২০ টাকা ৭৮ পয়সা।





Leave Your Comments


অর্থনীতি এর আরও খবর