প্রকাশিত :  ০৫:৫০, ২৪ জানুয়ারী ২০২৩

ফুটবলে ‘সাদা কার্ড’র অভিষেক

ফুটবলে ‘সাদা কার্ড’র অভিষেক

স্পোর্টস ডেস্ক: বিশ্ব ফুটবলে লাল কার্ড এবং হলুদ কার্ডের ব্যবহার বহু বছরের পুরোনো। এর প্রয়োগ কম-বেশি জানা আছে ফুটবলপ্রেমীদের। এবার ফুটবল দুনিয়া পরিচিত হলো সাদা বা হোয়াইট কার্ডের সঙ্গেও। সোমবার (২৩ জানুয়ারি) রাতে পর্তুগালে মেয়েদের ফুটবলে অভিনব এই কার্ডের প্রচলন ঘটল।

মূলত মাঠের খেলায় ফুটবলারদের নিয়ম নীতির মধ্যে রাখতেই ব্যবহার করা হয় হলুদ এবং লাল কার্ড। প্রথমে হলুদ কার্ড দেখিয়ে বেপরোয়া খেলোয়াড়কে সতর্ক করা হয়। কাজ না হলে কিংবা পুনরায় ভুল করলে লাল কার্ড দেখিয়ে তাকে মাঠ থেকে বহিষ্কার করা হয়। কোচদের বের করে দেওয়া হয় ডাগ আউট থেকে।

তবে সাদা কার্ড কঠোরতা নয় বরং কোমলতার প্রতীক হিসেবে এর প্রচলন চালু হলো। ফুটবল বিশ্বের অংশ হয়ে যাওয়া এই কার্ড দেখাটা শাস্তি নয়, বরং পুরস্কার বলে আখ্যা দেওয়া যেতে পারে। কেবল বিশেষক্ষেত্রে এই কার্ড ব্যবহারযোগ্য। সোমবার অভিষেক হলো হোয়াইট তথা সাদা কার্ডের।

মেয়েদের পর্তুগিজ কাপের কোয়ার্টার ফাইনালে বেনফিকা বনাম স্পোর্টিং লিসবন ম্যাচ দিয়ে এই কার্ডের যাত্রা শুরু হলো। হলুদ কিংবা লাল কার্ড দেখে থাকেন খেলোয়াড় কিংবা কোচিং স্টাফরা। কিন্তু সাদা কার্ড দেখতে পারেন যে কোনো ব্যক্তি। যেমনটা দেখলেন মাঠে মানবিক বা হৃদয় ছুঁয়ে যাওয়া দুই দলের চিকিৎসকরা।

বেনফিকা-লিসবন ম্যাচে স্টেডিয়ামে অসুস্থ হয়ে পড়া এক দর্শককে জরুরি চিকিৎসা সেবা দিয়েছেন তারা। এই ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের ফেয়ার প্লে হিসেবে এই কার্ড দেখানো হয়েছে। মাঠে কিংবা গ্যালারিতে ‘ফেয়ার প্লে’ উৎসাহিত করতেই অভিনব এই কার্ড দেওয়ার পদ্ধতি চালু হলো।

আলোচিত এই ম্যাচটি গ্যালারিতে বসে উপভোগ করেছেন প্রায় ১৫ হাজার দর্শক। ঐতিহাসিক ম্যাচটিতে বেনফিকা ৫-০ গোলে জিতে সেমিফাইনালে উঠেছে। তবে সাদা কার্ডের রেওয়াজ চালু হওয়ার ঘটনায় অনেকটাই আড়ালে পড়ে গেল ম্যাচের ফল। যা ছাপিয়ে বিশ্বজুড়ে ঝড় উঠল সাদা কার্ড নিয়েই।




Leave Your Comments


খেলাধূলা এর আরও খবর