প্রকাশিত :  ০৬:৩০, ২৪ জানুয়ারী ২০২৩
সর্বশেষ আপডেট: ০৬:৪২, ২৪ জানুয়ারী ২০২৩

জগন্নাথপুরের গৌরাঙ্গ দেব জানেন না তিনি মারা গেছেন!

জগন্নাথপুরের গৌরাঙ্গ দেব জানেন না তিনি মারা গেছেন!

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলায় জীবিত ব্যক্তিকে মৃত দেখিয়ে ভোটার তালিকা হালনাগাদ করার অভিযোগ উঠেছে। গৌরাঙ্গ দেব নামের এক ব্যবসায়ী সম্প্রতি উপজেলা নির্বাচন কার্যালয়ে গিয়ে জানতে পারেন তিনি মৃত। পরে তিনি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের নিকট থেকে জীবিত থাকার প্রত্যয়ন দিলেও কাগজপত্রে এখনো তিনি জীবিত হয়ে উঠতে পারেন নি।

গৌরাঙ্গ দেব উপজেলার পাইলগাঁও ইউনিয়নের দক্ষিণ পাইলগাঁও গ্রামের বাসিন্দা ও উপজেলার রানীগঞ্জ বাজারের ব্যবসায়ী।

উপজেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্র জানায়, ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রমের অংশ হিসেবে মাঠ পর্যায়ে তথ্য সংগ্রহ করেন মাঠ কর্মকর্তা উপজেলার অনঙ্গ মোহন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মনিবুর রহমান। সুপারভাইজার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন উপজেলার রমাপতিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আনোয়ারুল হক। তারা গৌরাঙ্গ দেবকে মৃত দেখিয়ে নির্বাচন কার্যালয়ে তথ্য পাঠান।

গৌরাঙ্গ দেব জানান, গত ২ নভেম্বর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনেও আমি ভোট দিয়েছি। জরুরি কাজে ব্যাংকে গেলে আমার ভোটার আইডি কার্ড কম্পিউটারে না দেখালে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ আমাকে উপজেলা নির্বাচন কার্যালয়ে যোগাযোগের পরামর্শ দেন। তাদের পরামর্শে নির্বাচন কার্যালয়ে গিয়ে জানতে পারি ভোটার তালিকা হালনাগাদের সময় আমাকে মৃত দেখানো হয়েছে।

মাঠ কর্মকর্তা সহকারী শিক্ষক মনিবুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি ফোন ধরেননি। তবে সুপারভাইজার রমাপতিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আনোয়ারুল হক বলেন, মাঠ পর্যায়ের তথ্য অনুযায়ী আমি স্বাক্ষর করেছি। কেন এমন ভুল হলো খোঁজ নিয়ে দেখব।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্ব) সাঈফুদ্দিন আহমেদ বলেন, আমি জরুরি মিটিং এ আছি। জগন্নাথপুর কার্যালয়ের সহকারীর সঙ্গে যোগাযোগ করুন। তাকে বলুন আমার সঙ্গে যোগাযোগ করতে আমি বিষয়টি দেখছি।

জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাচন কার্যালয়ের অফিস সহকারী তাপস চন্দ্র দাস বলেন, স্যার এ বিষয়ে কাজ করেছেন। তিনি শুনানি করে বিষয়টি সুরাহার চেষ্টা করবেন।




Leave Your Comments


সিলেটের খবর এর আরও খবর