img

ডিপোজিট ছাড়া বাড়ি কেনার সুযোগ দিচ্ছে স্কিপটন বিল্ডিং সোসাইটি

প্রকাশিত :  ১৮:৫১, ১৫ আগষ্ট ২০২৩

ডিপোজিট ছাড়া বাড়ি কেনার সুযোগ দিচ্ছে স্কিপটন বিল্ডিং সোসাইটি

ব্রিটেনের কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক, ব্যাঙ্ক অফ ইংল্যান্ড এর সদর দপ্তর রাজধানী লন্ডনে অবস্থিত। লন্ডনে বসে সিদ্ধান্ত নেন ব্যাংকের কর্মকর্তারা, যার প্রভাব পড়ে সারা দেশের অর্থনীতিতে। বৃহস্পতিবার ভিত্তি সুদের হার আরও দশমিক ২৫ শতাংশ বাড়িয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক। নতুন ভিত্তি সুদের হার ৫ থেকে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫.২৫ শতাংশে। এর ফলে দেশের সাধারণ জনগণের পকেটে আরও বেশী টান পড়েছে। পানির মতো টাকা কীভাবে খরচ হয়ে যাচ্ছে, অনেকে বুঝতেই পারছেন না।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক সুদের হার বাড়ালে সবার আগে তাৎক্ষণিক প্রভাব পড়ে প্রপার্টি মার্কেটে। বাড়ির মালিকদের মরগেজ পেমেন্ট বেড়ে যায়। বাড়িওয়ালারা এই বাড়তি খরচ সামাল দিতে ঘরের ভাড়া বাড়িয়ে দেন। এই পরিস্থিতিতে অনেক ভাড়াটিয়া এখন হিসাব করে দেখেছেন ভারা ঘরে থাকার চেয়ে বাড়ি কিনে বসবাস করার খরচ কম। তাই অনেকে বাড়ি কেনায় উৎসাহিত হচ্ছেন।

দেশের অন্যান্য স্থানের মতো ইয়র্কসায়ার অঞ্চলেও ঘরের ভাড়া গত দুই দশকের তুলনায় অনেক দ্রুত বাড়ছে। এমন বাস্তবতায় ইয়র্কসায়ারের স্কিপটন বিল্ডিং সোসাইটি গত মে মাস থেকে শতভাগ মরগেজে বাড়ি কেনার সুযোগ সৃষ্টি করেছে। এর ফলে বাড়ির ক্রেতাদের কোনো ডিপোজিট লাগেনা। নতুন বাড়ি ক্রেতাদের জন্য এটি একটি সুবর্ণ সুযোগ, যারা ক্রমবর্ধমান ভাড়ার চাপে অতিস্ট।

স্কিপটন বিল্ডিং সোসাইটির মাধ্যমে বাড়ি কিনেছেন লেয়লা। এই বিল্ডিং সোসাইটি জানিয়েছে, কেন্দ্রীয় ব্যাংক সুদের হার বাড়ালেও তাঁরা তাদের ভেরিয়েবল রেইটের মরগেজ গ্রহণকারীদের ওপর বাড়তি সিদের বোঝা চাপাবেনা।

তবে একটি দুঃসংবাদ আছে। ইয়র্কশায়ার ও নর্থ মিডল্যান্ডস অঞ্চলে রিপজেশন বেড়ে গেছে। রিপজেশন হলো, মরগেজ পরিশোধে ব্যর্থ হওয়ার কারণে মরগেজদাতা প্রতিষ্ঠান কর্তৃক ঘরের দখল ওঁ মালিকানা ফিরিয়ে নেয়া।

ব্রিটেনে মূল্যস্ফীতি এখন নিম্নগামী। ফলে সুদের হারও উপযুক্ত সময়ে কমিয়ে আনবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। তখন দেশের জনগণ হাঁফ ছেড়ে কিছুটা বাঁচবে।

যুক্তরাজ্য এর আরও খবর

ইংলিশ চ্যানেলে নৌকা ডুবে শিশুসহ নিহত ৫ | JANOMOT | জনমত

img

নিজ আসন হারানোর শঙ্কায় ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত :  ০৬:৩৮, ২০ জুন ২০২৪

এবছরের নির্বাচনে পরাজিত হয়ে পার্লামেন্টে নিজ আসন হারাতে পারেন ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক। সাভান্তা জনমত জরিপের পর এমন পূর্বাভাস পাওয়া যাচ্ছে। জরিপের ফল প্রকাশ করেছে ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্য টেলিগ্রাফ। 

গত ৭ জুন থেকে ১৮ জুনের মধ্যে প্রায় ১৮ হাজার মানুষের ওপর এই জরিপ পরিচালনা করা হয়।

জরিপের ফলে দেখা গেছে, নির্বাচনে সুনাকের কনজারভেটিভ দল ব্রিটিশ পার্লামেন্টের ৬৫০ সদস্যের নিম্নকক্ষ হাউজ অব কমন্সে মাত্র ৫৩টি আসন পাওয়ার পথে রয়েছে। যেখানে বিরোধীদল লেবার পার্টি পেতে পারে ৫১৬টি আসন।

সাভান্তা পরিচালিত জনমত জরিপে বলা হচ্ছে, প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক ইংল্যান্ডের উত্তরাঞ্চলে তার নর্থ ইয়র্কশায়ার রিচমন্ড আসনে লেবার দলের কাছে পরাজিত হতে পারেন। এমন হলে সুনাকই হবেন প্রথম ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী যিনি নিজ আসন হারাবেন।

সাম্প্রতিক বেশিরভাগ জনমত জরিপেই জাতীয় নির্বাচনে কির স্টারমারের লেবার পার্টিকে ভোটে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির তুলনায় প্রায় ২০ শতাংশ পয়েন্ট এগিয়ে থাকতে দেখা যাচ্ছে।

নতুন আরও কয়েকটি জরিপের ফল বলছে, এক শতাব্দীরও বেশি সময়ের মধ্যে এবারের নির্বাচনে কনজারভেটিভরা সবচেয়ে শোচনীয় হারের মুখে রয়েছে। জেরেমি হান্টের মতো বিশিষ্ট নেতারাও এবার তাদের পার্লামেন্টারি আসন খোয়াতে পারেন।

সুনাক যুক্তরাজ্যে আগাম নির্বাচন ঘোষণা করেছেন আগামী ৪ জুলাই। এ নির্বাচনে এমনকী ওয়েলসে কনজারভেটিভ পার্টির নাম-নিশানা পুরোপুরি মুছে যেতে পারে বলেও পূর্বাভাস পাওয়া যাচ্ছে কয়েকটি জরিপে।

সূত্র: রয়টার্স

যুক্তরাজ্য এর আরও খবর