img

ব্রিটিশ মিউজিয়ামের চুরি যাওয়া ২ হাজার মূল্যবান সম্পদ উদ্ধার

প্রকাশিত :  ১৮:৪৪, ০২ সেপ্টেম্বর ২০২৩

ব্রিটিশ মিউজিয়ামের চুরি যাওয়া ২ হাজার মূল্যবান সম্পদ উদ্ধার

বিভিন্ন সময় ব্রিটেনের জাদুঘর থেকে চুরি হয়েছে অনেক মূল্যবান প্রত্নতাত্ত্বিক সম্পদ। তবে জাদুঘরের চেয়ারম্যান জর্জ ওয়েসবোর্ন যে সুখবরের কথা জানালেন তা হলো– খোয়া যাওয়া ২ হাজার মূলবান জিনিস উদ্ধার হয়েছে। খবর বিবিসি’র।

সাবেক এই চ্যান্সেলর মনে করেন, এসব ঘটনায় জাদুঘরের যথেষ্ট সুনাম নষ্ট হয়েছে। তবে ক্ষতি কাটানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে জাদুঘরের একজন কর্মী বরখাস্ত হয়েছেন ইতোমধ্যে।

জাদুঘরে বিরল সব জিনিস সংরক্ষণ রয়েছে। নিখোঁজ হওয়া গুপ্তধনগুলোর মধ্যে স্বর্ণ, গহনা ও কিছু মূল্যবান পাথরের রত্ন ছিল। এ মিউজিয়াম যুক্তরাজ্যের অন্যতম বৃহত্তম পর্যটক আকর্ষণ।

তবে বিভিন্ন সময় মিউজিয়াম থেকে মূল্যবান পুরনো জিনিস চুরি যাওয়ায় নেটিজেনদের তোপের মুখে পড়েছেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষরা। শত শত বছরের পুরনো জিনিসগুলো সংরক্ষণের মূল উদ্দেশ্য ছিল একাডেমিক ও গবেষণার কাজে ব্যবহার করা।

জর্জ ওয়েসবোর্ন বিবিসি রেডিও- ৪- প্রোগ্রামে বলেছেন, চুরি যাওয়া কিছু বস্তু সংরক্ষণ শুরু হয়েছে।

২০২১ সালে তিনি মিউজিয়ামের দায়িত্বে বসেন তিনি। ১৭৫৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল ব্রিটিশ মিউজিয়াম। এতে ৪০ লাখ মূল্যবান বস্তু সংরক্ষণ করা হয়। কিন্তু ২০১৯ সাল পর্যন্ত মাত্র ৮০ হাজার জিনিস সাধারণ মানুষের জন্য প্রদর্শনে রাখা হয়েছিল। বাকিগুলোর জায়গা হয় স্টোরেজে। সেখান থেকেই অনেক কিছু চুরি হয়। এসব ঘটনায় এখনও তদন্ত চলছে।

যুক্তরাজ্য এর আরও খবর

ইংলিশ চ্যানেলে নৌকা ডুবে শিশুসহ নিহত ৫ | JANOMOT | জনমত

img

নিজ আসন হারানোর শঙ্কায় ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত :  ০৬:৩৮, ২০ জুন ২০২৪

এবছরের নির্বাচনে পরাজিত হয়ে পার্লামেন্টে নিজ আসন হারাতে পারেন ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক। সাভান্তা জনমত জরিপের পর এমন পূর্বাভাস পাওয়া যাচ্ছে। জরিপের ফল প্রকাশ করেছে ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্য টেলিগ্রাফ। 

গত ৭ জুন থেকে ১৮ জুনের মধ্যে প্রায় ১৮ হাজার মানুষের ওপর এই জরিপ পরিচালনা করা হয়।

জরিপের ফলে দেখা গেছে, নির্বাচনে সুনাকের কনজারভেটিভ দল ব্রিটিশ পার্লামেন্টের ৬৫০ সদস্যের নিম্নকক্ষ হাউজ অব কমন্সে মাত্র ৫৩টি আসন পাওয়ার পথে রয়েছে। যেখানে বিরোধীদল লেবার পার্টি পেতে পারে ৫১৬টি আসন।

সাভান্তা পরিচালিত জনমত জরিপে বলা হচ্ছে, প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক ইংল্যান্ডের উত্তরাঞ্চলে তার নর্থ ইয়র্কশায়ার রিচমন্ড আসনে লেবার দলের কাছে পরাজিত হতে পারেন। এমন হলে সুনাকই হবেন প্রথম ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী যিনি নিজ আসন হারাবেন।

সাম্প্রতিক বেশিরভাগ জনমত জরিপেই জাতীয় নির্বাচনে কির স্টারমারের লেবার পার্টিকে ভোটে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির তুলনায় প্রায় ২০ শতাংশ পয়েন্ট এগিয়ে থাকতে দেখা যাচ্ছে।

নতুন আরও কয়েকটি জরিপের ফল বলছে, এক শতাব্দীরও বেশি সময়ের মধ্যে এবারের নির্বাচনে কনজারভেটিভরা সবচেয়ে শোচনীয় হারের মুখে রয়েছে। জেরেমি হান্টের মতো বিশিষ্ট নেতারাও এবার তাদের পার্লামেন্টারি আসন খোয়াতে পারেন।

সুনাক যুক্তরাজ্যে আগাম নির্বাচন ঘোষণা করেছেন আগামী ৪ জুলাই। এ নির্বাচনে এমনকী ওয়েলসে কনজারভেটিভ পার্টির নাম-নিশানা পুরোপুরি মুছে যেতে পারে বলেও পূর্বাভাস পাওয়া যাচ্ছে কয়েকটি জরিপে।

সূত্র: রয়টার্স

যুক্তরাজ্য এর আরও খবর