img

যুক্তরাজ্য বিএনপি সভাপতিকে প্রধানমন্ত্রীর তরফে চায়ের দাওয়াত

প্রকাশিত :  ১০:৫১, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩

যুক্তরাজ্য বিএনপি সভাপতিকে প্রধানমন্ত্রীর তরফে চায়ের দাওয়াত

জাতিসংঘের ৭৮তম সাধারণ অধিবেশনে আজ (শুক্রবার) ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে জ্যাকসন হাইটসে বিক্ষোভ মিছিল করেছে বিএনপি নেতাকর্মীরা। একইসঙ্গে আনন্দ মিছিল করে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাও। দুইপক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি অবস্থানে সেখানে উত্তেজনা তৈরি হয়। এই প্রেক্ষাপটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান সেখানে অবস্থানরত যুক্তরাজ্য বিএনপি\'র সভাপতি এম এ মালেককে চায়ের আমন্ত্রণ জানান।

সেখানে টাইম টেলিভিশনের তরফে ড. সিদ্দিকুর রহমানের কাছে জানতে চাওয়া হয় যুক্তরাজ্য বিএনপি সভাপতি এম এ মালেকের কাছে কী প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। ড. সিদ্দিকুর রহমান জানান, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নিউইয়র্কে অবস্থান করছেন। উনি আমাকে একটা নির্দেশনা দিলেন, যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি মালেক সাহেব এখানে এসেছেন।  উনি তাকে স্বাগত জানানোর জন্য  আমাকে বলেছেন এবং তাকে চায়ের দাওয়াত ও আপ্যায়ন করার জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন।

উনার নির্দেশ মোতাবেক আমি কিছুক্ষণ আগে তার সাথে দেখা করি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী আমি সেই দাওয়াত তাকে পৌঁছে দিয়েছি। আমি বলেছি, আপনাকে আমি চা খাওয়াতে চাই। কারণ, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এখানে এসেছেন।

আপনিও (এম এ মালেক) আমাদের অতিথি, মেহমান। যুক্তরাজ্য থেকে এসেছেন। আপনাকে স্বাগত জানাচ্ছি। এককাপ চা খাবেন। চা খাওয়ার দাওয়াত উনি গ্রহণ করেছেন। কিন্তু উনি একটি আবদারও করেছেন। এম এ মালেক সাহেব বলেছেন, আমার নেত্রী মুমূর্ষ অবস্থায়। আপনি কি পারেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে একটা আবেদন করতে যে, আমার নেত্রীকে (বেগম খালেদা জিয়া) বিদেশে যাওয়ার কোনো ব্যবস্থা উনি করে দিতে পারেন কিনা।\'

ড. সিদ্দিকুর রহমান বলেন, ‘উনি বলেছেন যদি প্রধানমন্ত্রী রাজি হন তাহলে আমার সাথে এক জায়গায় বসে উনি (এম এ মালেক) চা খাবেন। এটাই উনার সাথে আলাপ হয়েছে। এখানে কোনো নাটকীয়তা নাই।’

ড. সিদ্দিকুর রহমান বলেন, ‘ইতিমধ্যে এই প্রস্তাব আমি প্রধানমন্ত্রীর কাছে পৌঁছে দিয়েছি। এখন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কী করবেন সেই বিষয়টি তিনি আমাকেও জানাতে পারেন অথবা উনি যার মাধ্যমে আমাকে নির্দেশনা দিয়েছেন তাকেও জানাতে পারেন।’ এটার মাধ্যমে নতুন ইতিহাস সৃষ্টি হলো জানিয়ে তিনি বলেন, ‘ওখানে বিএনপির অনেক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিল। যুদ্ধাংদেহী ভাব আমি লক্ষ্য করিনি।’

এ বিষয়ে যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি এম এ মালেক বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি আমার কাছে এসেছিলেন। শেখ হাসিনা উনাকে বলেছেন আমার সঙ্গে কথা বলার জন্য। উনি চায়ের দাওয়াত দিয়েছেন। আমরা  স্বাগত জানিয়েছি। তবে আমরা বলেছি যে, আমাদের নেত্রী অসুস্থ। উনার সুস্থতার জন্য বিদেশে আসা দরকার। উনি যদি নেত্রীকে বিদেশে পাঠানোর ঘোষণা দেন, তাহলে আমরা উনার সঙ্গে চা খেতে রাজি। যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি বলেছেন, এই বার্তা উনি প্রধানমন্ত্রীর কাছে পৌঁছে দিবেন এবং পরবর্তীতে আমার সঙ্গে যোগাযোগ করবেন।\'

কর্মসূচির বিষয়ে যুক্তরাজ্য বিএনপির এই নেতা আরও বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন স্টেট থেকে কেন্দ্রীয় নেতা-নেত্রীরা উপস্থিত আছেন। তারা ইতোমধ্যে পুলিশের অনুমতি নিয়েছেন। আন্দোলনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, বিভিন্ন স্টেট থেকে হাজার হাজার নেতাকর্মী উপস্থিত হয়েছে। আগামীকালের কর্মসূচি শান্তিপূর্ণভাবে চলবে।

কমিউনিটি এর আরও খবর

img

ঢাকাদক্ষিণ উন্নয়ন সংস্থা ইউকের নবনির্বাচিত কমিটির অভিষেক ও ঈদ পুনর্মিলনী সম্পন্ন

প্রকাশিত :  ২০:৩০, ১৬ জুলাই ২০২৪

ঢাকাদক্ষিণ উন্নয়ন সংস্থা ইউকের নবনির্বাচিত কমিটির অভিষেক ও ঈদ পুনর্মিলনী  গত ১৫ জুলাই সোমবার পূর্ব লন্ডনের ইম্প্রেশন ইভেন্ট হলে সম্পন্ন হয়েছে। ঢাকাদক্ষিণ উন্নয়ন সংস্থা ইউকের সভাপতি আব্দুল লতিফ নিজামের সভাপতিত্বে সভা পরিচালনা করেন সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বাছির।

সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন সংগঠনের সদস্য ইসমাঈল হোসেন। পরে নবনির্বাচিত (২০২৪-২০২৬) কমিটিকে পরিচয় করিয়ে দেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার আমিনুর রশীদ খান এবং নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ নেজাম উদ্দিন। এরপর নবনির্বাচিত কমিটির সভাপতি আব্দুল লতিফ নিজাম শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন এবং উপস্থিত সবাইকে স্বাগত জানান। অনুষ্ঠানে সংস্থার সদস্য ছাড়াও কমিউনিটির বিশিষ্টজনরা উপস্থিত ছিলেন।

অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের স্পিকার কাউন্সিলর সাঈফ উদ্দিন খালেদ, চেয়ার অব নিউহ্যাম কাউন্সিল কাউন্সিলর রহিমা রহমান, কেমডেন কাউন্সিলের মেয়র কাউন্সিলর সামাথা খাতুন, বার্কিং এন্ড ড্যাগেনহাম কাউন্সিলের মেয়র কাউন্সিলর মঈন কাদরী সহ আরো অনেকে।

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বাছির নবগঠিত উপদেষ্টা কমিটির সদস্যদের পরিচয় করিয়ে দেন। উপদেষ্টাদের মধ্য অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, আতাউর রহমান আঙ্গুর মিয়া, জমির উদ্দিন আহমদ, আফজল হোসেন চৌধুরী, আলাউদ্দিন আহমদ, দেলওয়ার হোসেন লেবু, কাউন্সিলর জুবায়ের খান মিলন, আমিনুর রশীদ খান, মোস্তফা আহমদ এবং সালেহ আহমদ।

ঢাকাদক্ষিণ উন্নয়ন সংস্থার কার্যনির্বাহী কমিটির পক্ষে আলোচনায় অংশগ্রহন করেন, সহ-সভাপতি ইয়ামীম দিদার, দেলওয়ার আহমদ শাহান, মোঃ সেলিম আহমদ, ট্রেজারার জাকির হোসেন, সহ-সাধারন সম্পাদক মোঃ শামীম আহমদ, সহকারী ট্রেজারার ছাদেক আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক সোহেল আহমদ চৌধুরী, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আনোয়ার শাহজাহান, মেম্বারশীপ সম্পাদক কামরুল ইসলাম, শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক রায়হান উদ্দিন, ফান্ড রাইজিং সম্পাদক সোহেল আহমদ, সদস্য : মামুনুর রশীদ খান, আবজল হোসেন, খালেদ আজিম উদ্দিন জামাল, ইকবাল আহমদ চৌধুরী, আমিন উদ্দিন, জুবায়ের সিদ্দীক, কামরুজ্জামান কামরান, আজিজুর রহমান, মামুন আহমদ, জাবেদ আহমদ, মোহাম্মদ রাজিব প্রমুখ।

ঢাকাদক্ষিণ উন্নয়ন সংস্থা ইউকে’র জন্মলগ্ন থেকে এ পর্যন্ত যারা সভাপতি, সাধারন সম্পাদক ও ট্রেজারার নির্বাচিত হয়েছিলেন সবাইকে নির্বাচিত নতুন কমিটির (২০২৪-২০২৬) পক্ষ থেকে সম্মাননা ক্রেষ্ট প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন: সাবেক স্পিকার আহবাব হোসেন, কাউন্সিলর কামরুল হোসেন মুন্না, কাউন্সিলর ফয়জুর রহমান, লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের ট্রেজারার সালেহ আহমদ, গোলাপগন্জ উপজেলা এডুকেশন ট্রাস্ট ইউকের সভাপতি মোহাম্মদ ইছবাহ উদ্দিন, সাবেক সভাপতি আলতাফ হোসেন বাইছ, সাবেক সাধারন সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী রুহুল, গোলাপগঞ্জ হেল্পিং হ্যান্ডস ইউকের সভাপতি এমদাদ হোসেন টিপু, সাধারন সম্পাদক মাসুক উদ্দিন, সাবেক সভাপতি তমিজুর রহমান রঞ্জু, গোলাপগন্জ উপজেলা স্যোশাল ট্রাস্ট ইউকের সাধারন সম্পাদক তারেকুর রহমান ছানু, বিয়ানীবাজার ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের সাবেক সভাপতি দেলোয়ার হোসেন।

অনুষ্ঠানে ঢাকাদক্ষিণ উন্নয়ন সংস্থা ইউকের বার্ষিকী ২০২৪ এর মোড়ক উম্মোচন করা হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন সংস্থার সাবেক সাধারন সম্পাদক ইয়ামীম দিদার, সাবেক ট্রেজারার মোঃ শামীম আহমদ, প্রকাশনা সম্পাদক আনোয়ার শাহজাহান এবং নবনির্বাচিত সভাপতি আব্দুল লতিফ নিজাম, সাধারন সম্পাদক আব্দুল বাছির, ট্রেজারার জাকির হোসেন, সহ সভাপতি দেলওয়ার আহমদ শাহান, মোঃ সেলিম আহমদ, সহকারী ট্রেজারার ছাদেক আহমদ, সদস্য আবজল হোসেন, খালেদ আজিমউদ্দিন জামাল, ইকবাল আহমদ চৌধুরী সহ কমিটির নেতৃবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন কাউন্সিলর মুজিবুর রহমান জসিম, কাউন্সিলর এনামুল হক, কাউন্সিলর লিলু মিয়া, বিশ্ববাংলা ফাউন্ডেশন ইউকের সাধারন সম্পাদক শাহ মোস্তাফিজুর রহমান বেলাল, সাবেক স্পিকার মিজান চৌধুরী, সাবেক কাউন্সিলর মামুনুর রশীদ, সাবেক কাউন্সিলর গোলাম রব্বানী, ঢাকাদক্ষিণ উন্নয়ন সংস্থার সাবেক উপদেষ্টা শামীম আহমদ, ফখর উদ্দিন, লন্ডন টাওয়ার হ্যামলেটস কেয়ারার এসোসিয়েশনের শাহান চৌধুরী, জগলুল খান, গোলাপগঞ্জ উপজেলা এডুকেশন ট্রাস্টের সহ-সাধারন সম্পাদক শাহআলম কাসেম, ৫০ একটিভ ক্লাবের সভাপতি সৈয়দ সালিক আহমদ, সাবেক সভাপতি দৌলত খান বাবুল, সাধারন সম্পাদক আনফর আলী, বহরগ্রাম জনমঙ্গল সমিতির সভাপতি গুলজার হোসেন, সাধারন সম্পাদক কয়েছ আহমদ রোহেল, ফারুক আলী, হিলফুল ফুজুল যুক্তরাজ্যের উপদেষ্টা আবুল ফয়েজ, সৈয়দ তারেক আহমদ, লেখক সাংবাদিক ফোরামের সহ সভাপতি বাতিরুল হক সরদার, পেইটাপের সাহেদ উদ্দিন, সাবা বাশির, রাজা কাশফাইক, রুবায়েত জাহান, শানা লিন, খালিস আহমদ, আবদুস সালাম, আসিক রহমান, আবু আবদুল্লাহ চৌধুরী মারুফ, জুবায়ের চৌধুরী, বদরুল উদ্দিন রাজু, খায়রুল উদ্দিন পাপ্পু, আব্দুল মুনিম, রেজওয়ান শিবলু, গোলাপগন্জ হেল্পিং হ্যান্ডস ইউকের সাবেক সভাপতি বেলাল হোসেন, সাবেক সাধারন সম্পাদক মন্জুর আহমদ শাহনাজ,এনামুল হক লিটন, গোলাপগন্জ উপজেলা স্যোশাল ট্রাস্ট ইউকের সহ সভাপতি সালেহ আহমদ, ঢাকাদক্ষিণ সরকারি কলেজের সাবেক ভিপি তৌফিক আহমদ টিটু, শাহাদত হোসেন সায়েম, সাবেক জিএস অনারারী সদস্য রোমান আহমদ চৌধুরী, অনারারী সদস্য হাবিবুর রহমান চৌধুরী টিপু, গোলাপগঞ্জ উপজেলা এডুকেশন ট্রাস্টের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক জামিল আহমদ, বিয়ানীবাজার জনকল্যান সমিতির সহ সভাপতি আব্দুল হাকিম হাদী, সাব্বির আহমদ সাবলু, লিকন আহমদ, আকরাম হোসেন দারা, ইমরুল হোসেন, রাজিব আহমদ, মাহবুবুল আলম মুফতি, মোসাদ্দিক আহমদ, সোহেল আহমদ, তুহিন আহমদ শাহীন, নুর মোহাম্মদ সুমন, রেদওয়ান হোসেন রেজা, বাবলু ইসলাম মুহিত, কামরুজ্জামান চাকলাদার, সবুজ রহমান, ইসলাম উদ্দিন, ফরিজ উদ্দিন, কামিল আহমদ, মছরুর আহমদ, মিছবাহ উদ্দিন, তাহেরুজ্জামান, শহিদুল খান রাজু, মকসুদ আহমদ খান শাহাজান, মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম, আলী আকবর, সাব্বির আহমদ, জুবায়ের আহমদ, শাহরিয়ার ইসলাম খান, ইসলাম আহমদ চৌধুরী, শ্যামল আহমদ, তানভির শাহজাহান, ফারহাত বাছির প্রমুখ।

নবনির্বাচিত কার্যনির্বাহী কমিটির পক্ষ থেকে আগামীর পথচলায় সংগঠনের সকল সদস্য, অনারারী মেম্বার এবং ঢাকাদক্ষিণবাসীর কাছে মানবতার কল্যানে, বাংলাদেশে ঢাকাদক্ষিণবাসীর প্রয়োজনে, অসহায়দের সাহায্য গৃহিত সকল পদক্ষেপ ও বৃটেনে ঢাকাদক্ষিণবাসীর মধ্য সৌহার্দ্য-সম্পৃতির সকল আয়োজনে সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করেন।

উপস্থিত সকলেই ঢাকাদক্ষিণ উন্নয়ন সংস্থা ইউকে এবং ঢাকাদক্ষিণবাসীর ভুয়সী প্রশংসা করেন।

ঢাকাদক্ষিণ উন্নয়ন সংস্থার জন্মলগ্ন থেকে আজ অবদি সংগঠনের যারা পরলোকগমন করেছেন তাদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে এবং ঢাকাদক্ষিণবাসী সহ সকল মুসলিমউম্মাহর সুখময় জীবনের জন্য প্রার্থনা করা হয়, দোয়া পরিচালনা সংগঠনের সদস্য আখলাকুল আম্বিয়া।

অনুষ্ঠানের শেষে রাতের খাবার পরিবেশন করা হয় এবং মনমুগ্ধকর মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্টান পরিবেশন করেন বৃটেনের খ্যাতনামা শিল্পীবৃন্দ। শত শত সদস্য ও শুভাকাঙ্ক্ষীর স্বতস্ফূর্ত অংশগ্রহণে ইম্প্রেশন ভ্যানু একখন্ড ঢাকাদক্ষিণে পরিণত হয়েছিলো।

কমিউনিটি এর আরও খবর