img

পটুয়াখালী থেকে বিএনপির রোডমার্চ পিরোজপুরের পথে

প্রকাশিত :  ১১:১৭, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩

 পটুয়াখালী থেকে বিএনপির রোডমার্চ পিরোজপুরের পথে

নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন ও দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির লক্ষে সরকারের পদত্যাগের এক দফা দাবিতে বরিশাল বিভাগীয় বিএনপির রোডমার্চ পটুয়াখালী থেকে শুরু হয়ে এখন পিরোজপুরের পথে।

শনিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বোড়মার্চটি সকাল ১০টায় পটুয়াখালীর এয়ারপোর্ট থেকে শুরু হয়ে পিরোজপুরের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করে।

দলটির নেতাকর্মীসহ হাজার হাজার লোক সারিবদ্ধভাবে রোডমার্চে অংশগ্রহণ করে।

জানা যায়, রোডমার্চটি পটুয়াখালী থেকে ৮০ কিলোমিটার পথ পার হয়ে পিরোজপুরের কাউখালী উপজেলার শিয়ালকাঠী চৌরাস্তায় এসে এক সমাবেশের মধ্য দিয়ে শেষ হবে। সমাবেশে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা বক্তব্য রাখবেন। রোডমার্চটি যাত্রা পথে বরিশালের রূপাতলী, ঝালকাঠীর সাইটপাইক্যা ও রাজাপুরে পথসভা করবে।

আরো জানা যায়, সবশেষ বিকেল ৩টায় পিরোজপুরের কাউখালী উপজেলার শিয়ালকাঠী চৌরাস্তায় সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। পিরোজপুর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক অধ্যক্ষ আলমগীর হোসেন এ সমাবেশে সভাপতিত্ব করবেন। সমাবেশ স্থলে ইতোমধ্যেই অনেক নেতাকর্মী জড়ো হয়েছেন। পিরোজপুর জেলা বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের তত্ত্বাবধানে শুক্রবার সকাল থেকেই সমাবেশের মঞ্চ তৈরির কাজ চলছে।

পিরোজপুর জেলা যুবদলের আহ্বায়ক মারুফ হাসান জানান, পিরোজপুর জেলা যুবদলের নেতৃত্বে রোডমার্চে তিন সহস্রাধিক নেতাকর্মী অংশগ্রহণ করেছে।

পিরোজপুর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক অধ্যক্ষ আলমগীর হোসেন জানান, ইতোমধ্যে রোডমার্চ রবিশাল থেকে পিরোজপুরের উদ্দেশে যাত্রা করেছে। বৈরী আবহাওয়া সত্ত্বেও পিরোজপুর জেলা বিএনপি সকল প্রকার প্রস্ততি নিয়েছে। রোডমার্চে পিরোজপুর জেলা বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের ২০ হাজার নেতাকর্মী অংশগ্রহণ করছে।


জাতীয় এর আরও খবর

img

বাংলাদেশ সরকারের উচিত শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদের অধিকার নিশ্চিত করা: জাতিসংঘ

প্রকাশিত :  ১৬:০৭, ১৭ জুলাই ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট: ১৯:৪৫, ১৭ জুলাই ২০২৪

শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ করা মৌলিক মানবাধিকার। বাংলাদেশ সরকারের উচিত মানুষের এ অধিকার নিশ্চিত করা। চলমান কোটা সংস্কার আন্দোলন নিয়ে এমন মন্তব্য করেছেন জাতিসংঘ মহাসচিবের মুখপাত্র স্টিফেন ডুজারিক।

গতকাল মঙ্গলবার জাতিসংঘ মহাসচিবের নিয়মিত প্রেস ব্রিফিংয়ে মুখপাত্র স্টিফেন ডুজারিক এ মন্তব্য করেন।

ব্রিফিংয়ে ডুজারিকের কাছে জানতে চাওয়া হয়, সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে বাংলাদেশজুড়ে আন্দোলন চলছে। সরকারি ছাত্রসংগঠন ছাত্রলীগ ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী আন্দোলনকারীদের ওপর হামলা চালিয়েছে। হামলায় ছয়জন নিহত হয়েছেন। বিষয়টি নিয়ে কি জাতিসংঘের মহাসচিব অবগত আছেন?

জবাবে স্টিফেন ডুজারিক বলেন, ‘হ্যাঁ, আমরা পরিস্থিতি সম্পর্কে অবগত। উদ্বেগ নিয়েই গভীরভাবে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। আমি মনে করি, বাংলাদেশসহ বিশ্বের অন্য সব জায়গায় মানুষের শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ করার অধিকার রয়েছে।’

জাতিসংঘ মহাসচিবের মুখপাত্র আরও বলেন, ‘যেকোনো হুমকি ও সংঘাত থেকে প্রতিবাদকারীদের রক্ষা করার উদ্যোগ নিতে আমরা বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানাই। বিশেষ করে তরুণ, শিশু ও বিশেষভাবে সক্ষম ব্যক্তিদের মতো যাঁদের বাড়তি নিরাপত্তার প্রয়োজন রয়েছে।’

‘শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ করা মানুষের মৌলিক মানবাধিকার’ মন্তব্য করে স্টিফেন ডুজারিক বলেন, বাংলাদেশ সরকারের উচিত মানুষের এ অধিকার নিশ্চিত করা।

জাতীয় এর আরও খবর