প্রকাশিত :  ১০:০৫, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩
সর্বশেষ আপডেট: ১০:২২, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩

মাওলানা সাঈদী তাফসিরের মাধ্যমে ইসলামের পুনর্জাগরণে অনন্য ভূমিকা রেখে গেছেন

মাওলানা সাঈদী তাফসিরের মাধ্যমে ইসলামের পুনর্জাগরণে অনন্য ভূমিকা রেখে গেছেন

বৃটেনের সর্বদলীয় উলামা সংগঠন বাংলাদেশী উলামা মাশায়েখ ইউকের উদ্যোগে বরেণ্য মুফাসসিরে কুরআন মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী (রহ:) স্মরণে তাঁর জীবন ও কর্মের উপর এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে রবিবার ২৪ সেপ্টেম্বর  লন্ডন মুসলিম সেন্টারের গ্রান্ড হলে। মাওলানা মোহাম্মদ হাসান ও মাওলানা দেলোয়ার হোসেনের তিলাওয়াতের মাধ্যমে সূচিত আলোচনা সভায় সংগঠনের সভাপতি মাওলানা এ কে মওদুদ হাসানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মাওলানা শাহ মিজানুল হক এর পরিচালনায় বৃটেনের বিশিষ্ট উলামায়ে কেরাম, পেশাজীবী ও কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ, মসজিদ সমূহের প্রতিনিধি ও বিপুল সংখ্যক ধর্মপ্রাণ মানুষ উপস্থিত ছিলেন। 

সভায় অতিথিগণ তাঁদের আলোচনায় বলেন, মাওলানা সাঈদী সাহেব বাংলাদেশের সমাজ ও জন মানুষে ইসলামী পুনর্জাগরণের চেতনা জাগ্রত করতে অনন্য ভূমিকা রেখেছেন। তিনি ওয়াজ ও বয়ানের ময়দানে এক বিপ্ল্বাত্মক পরিবর্তন আনেন। আল কোরআনের সুমিষ্ট তিলাওয়াত ও এর আলোকে ইসলামকে একটি পরিপূর্ণ জীবন বিধান হিসেবে তুলে ধরে তিনি সাধারণ ও শিক্ষিত সমাজে ব্যাপক জাগরণ তৈরী করেন। তিনি হক্ব চিহ্নিত করণে উচ্চাঙ্গ সাহিত্য সম্বনিত প্রাঞ্জল উপস্থাপনা মানুষকে চুম্বকের মতো আকর্ষণ করতো। 

বাংলাদেশের মানুষের ব্যক্তি, পরিবার ও সমাজ জীবনে যার প্রভাব সুদূর প্রসারী। তাঁর অন্যায় গ্রেফতারে তাই বাংলাদেশে নযীরবিহীন প্রতিবাদ হয় এবং প্রায় দেড়শতাধিক মানুষ জীবন দান করে। তিনি ছিলেন ইসলামের এক বিপ্লবী কণ্ঠ। অতিথিগণ বলেন, তাঁর এই অনন্য ও সাহসী ভূমিকার জন্য ইসলাম বিদ্বেষীরা সমাজ জীবনে খুব কোণঠাসা হয়ে পড়ছিল। তাই তাঁর বিরুদ্ধে এবং তাঁর কণ্ঠকে দমিয়ে দেবার জন্যে সুদূর প্রসারী ষড়যন্ত্র করে তারা। যা তাঁকে অহেতুক মামলায় দীর্ঘদিন কারাভোগ করে অবশেষে কারাবন্দী অবস্থায় বিদায় নিতে হয়েছে। তাঁরা বলেন, মাওলানা সাঈদী সেক্যুলার রাষ্ট্রব্যবস্থার নির্মম জুলুমের শিকার।

অতিথিগণ তাঁর আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন ও মহান আল্লাহর দরবারে তাঁর জন্য জান্নাতুল ফিরদাউসের উচ্চ মাকাম কামনা করেন।

সভায় বক্তব্য রাখেন দাওয়াতুল ইসলামের আমীর হাফিজ মাওলানা আবু সায়ীদ, সিনিয়র আইনজীবী ব্যারিষ্টার আব্দুর রাজ্জাক, ইসলামী শরীয়া কাউন্সিলের সেক্রেটারী জেনারেল ড. শায়খ শোয়াইব হাসান, ইস্ট লন্ডন মসজিদের খতীব শায়খ আবদুল কাইয়ুম, খেলাফত মজলিসের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমীর মাওলানা আব্দুল কাদির সালেহ, মুসলিম কমিউনিটি এসোসিয়েসনের কেন্দ্রীয় সভাপতি মুসলেহ ফারাদী, জমিয়তে উলামা’র কেন্দ্রীয় আন্তর্জাতিক সম্পাদক ড. মাওলানা শোয়েব আহমদ, বিশিষ্ট আইনজীবী ব্যারিষ্টার নজির আহমদ, মাজাহিরুল উলুম লন্ডন এর প্রিন্সিপাল মাওলানা ইমদাদুর রহমান মাদানী খেলাফত মজলিস যুক্তরাজ্যের সভাপতি মাওলানা ছাদিকুর রহমান, বিশিষ্ট আলেমেদ্বীন মাওলানা আব্দুর রহমান মাদানী, ইসলামী টিভিভাষ্যকার মুফতি আবদুল মুনতাকীম, মুফতি মাওলানা হাসান নূরী চৌধুরী ও মাওলানা আবদুল মালেক মুহসিন প্রমুখ। 

এ উপলক্ষে একটি সমৃদ্ধ স্মরিণকা প্রকাশ ও উপস্থিত অতিথি ও মুসল্লিগণের মধ্যে বিতরণ করা হয়।






Leave Your Comments


কমিউনিটি এর আরও খবর