img

সেলিব্রিটি ক্রিকেট লিগে মারামারি, আহত ৬

প্রকাশিত :  ০৭:০৭, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২৩
সর্বশেষ আপডেট: ১৪:১৫, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২৩

সেলিব্রিটি ক্রিকেট লিগে মারামারি, আহত ৬

শোবিজ তারকাদের নিয়ে রাজধানীর মিরপুরের শহিদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে আয়োজিত ‘সেলিব্রিটি ক্রিকেট লিগ’-এ দুই দলের খেলোয়াড়দের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। গতকাল শুক্রবার (২৯ সেপ্টেম্বর) রাতে গ্রুপপর্বের ম্যাচে দুই দলের খেলোয়াড়দের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, নির্মাতা মোস্তফা কামাল রাজ ও দীপঙ্কর দীপনের দলের খেলা চলাকালীন মাঠে থাকা দুই দলের সতীর্থদের মাঝে উত্তেজনা ছাড়িয়ে পড়ে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে ফের খেলা শুরু হয়। তবে ম্যাচ শেষে রাত সাড়ে ১১টার পর ফের উত্তেজিত হয়ে পড়েন দুই দলের সতীর্থরা, যা একসময় মারামারিতে রূপ নেয়।

সেখানে নির্মাতা মোস্তফা কামাল রাজ ও অভিনেতা শরিফুল রাজ গায়ে হাত তোলেন বলে অভিযোগ করেন নায়িকা রাজ রিপা। কান্নাজড়িত কণ্ঠে তিনি সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচারের দাবি জানান। মারামারিতে আহত হওয়া খেলোয়াড়দের রাজধানীর জাতীয় অর্থোপেডিক্স হসপিটালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতরা হলেন— শিশির সরদার, রাজ রিপা, জয় চৌধুরী, আতিকুর রহমান, শেখ শুভ ও আশিক জাহিদ।

দীপঙ্কর দীপনের দলের খেলোয়াড় নায়ক জয় চৌধুরী জানান, নির্মাতা রাজ অভিনেতা মনোজ প্রামাণিককে মেরে ফেলার হুমকিও দেন। এ ছাড়া আয়োজকদের নামে ম্যাচ পাতানোর অভিযোগ এনেছেন তিনি। নব্বই দশকের জনপ্রিয় অভিনেতা মনির খান শিমুল খেলছেন দীপঙ্কর দীপনের দলে। এই অভিনেতাও ম্যাচ পাতানোর অভিযোগ তোলেন আয়োজকদের বিরুদ্ধে। একই সঙ্গে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানান তিনি।

এ বিষয়ে অফিসিয়াল বক্তব্য ও ব্যাখ্যা দেবেন বলে জানিয়েছেন নির্মাতা দীপঙ্কর দীপন ও আয়োজক কতৃপক্ষ। অন্যদিকে নির্মাতা মোস্তফা কামাল রাজ ও তার দলের সদস্যরা মারামারিতে জড়ানোর পরেই মাঠ ছাড়েন। তাই এসব অভিযোগের বিষয়ে তাদের কারও কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

img

স্ত্রী-সন্তানের সামনেই লংকান ক্রিকেটারকে গুলি করে হত্যা

প্রকাশিত :  ১১:১০, ১৭ জুলাই ২০২৪

শ্রীলংকার সাবেক ক্রিকেটার ধাম্মিকা নিরোশানকে স্ত্রী-সন্তানের সামনেই গুলি করে হত্যা করা হলো। মঙ্গলবার রাতে আম্বালাঙ্গোদায় নিজ বাড়িতেই গুলিতে নিহত হন তিনি। 

মর্মান্তিক এ ঘটনা ক্রিকেট বিশ্ব এবং শ্রীলংকা ক্রিকেটকে শোকের মধ্যে নিমজ্জিত করেছে। 

স্থানীয় পুলিশ জানিয়েছে, একজন অজ্ঞাতনামা হামলাকারী নিরোশানের বাড়িতে প্রবেশ করে এবং তাকে গুলি করে। ওই সময় ধাম্মিকা নিরোশান তার স্ত্রী এবং দুই সন্তানের সঙ্গেই ছিলেন।

সন্দেহভাজন হামলাকারী পলাতক। তবে ঠিক কী কারণে ওই হামলাকারী নিরোশানকে গুলি চালিয়েছিল, তা এখনও স্পষ্ট নয়।

আম্বালাঙ্গোদা পুলিশ জানিয়েছে, তারা অপরাধীকে ধরার চেষ্টা করছে এবং ঘটনার তদন্ত চলছে। প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, অভিযুক্ত ১২ বোরের বন্দুক নিয়ে এসেছিল।

৪১ বছর বয়সি নিরোশান অনূর্ধ্ব-১৯ স্তরে শ্রীলংকার প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন। ২০০০ সালে সিঙ্গাপুরের বিরুদ্ধে তার অভিষেক হয়। তিনি অনূর্ধ্ব-১৯ পর্যায়ে দুই বছর টেস্ট ও ওয়ানডে ক্রিকেট খেলেছেন এবং দলের অধিনায়কত্বও করেছেন। নিরোশান একজন ডানহাতি ফাস্ট বোলার এবং ডানহাতি ব্যাটসম্যান ছিলেন। ২০০২ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে পাঁচ ইনিংসে ১৯.২৮ গড়ে ৭ উইকেট শিকার করেছিলেন নিরোশান।

তিনি ১২টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচে ১৯টি উইকেট নেওয়ার পাশাপাশি ব্যাট হাতে করেছেন ২০০ রান। একই সময়ে ৮টি লিস্ট-এ ম্যাচে তিনি ৪৮ রান করেছেন এবং ৫টি উইকেট নিয়েছেন। সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস