img

সায়ন্তিকাকে নিয়ে কঠোর সিদ্ধান্ত প্রযোজকের

প্রকাশিত :  ১০:৪৪, ০১ অক্টোবর ২০২৩
সর্বশেষ আপডেট: ১১:২৫, ০১ অক্টোবর ২০২৩

সায়ন্তিকাকে নিয়ে কঠোর সিদ্ধান্ত প্রযোজকের

শাকিব খানের পর এবার বাংলাদেশে এসেছিলেন জায়েদ খানের নায়িকা হয়ে। কিন্তু এবারের সফর সুখকর হলো না কলকাতার নায়িকা সায়ন্তিকা ব্যানার্জির। প্রযোজকের সঙ্গে দ্বন্দে বাদ পরলেন সিনেমা থেকে। প্রযোজক মনিরুল ইসলাম সংবাদমাধ্যমকে জানালেন, ‘ছায়াবাজি’ সিনেমা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে ভারতীয় এই নায়িকাকে। মিথ্যাচারের কারণে এই বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত বলে জানান তিনি।

‘ছায়াবাজি’ সিনেমায় অভিনয়ের জন্য গত আগস্টের শেষ দিকে কলকাতা থেকে ঢাকায় আসেন সায়ন্তিকা। ঢাকায় নেমেই শুটিংয়ে কক্সবাজারে ছুটে যান সায়ন্তিকা। শুটিং চলার কয়েক দিন পরই কলকাতার এই নায়িকার সঙ্গে জটিলতা তৈরি হয়। এরপর শুটিং শেষ না করে চলে যান তিনি।

দেশ ছাড়ার পরই প্রযোজক মনিরুল ইসলাম, নায়ক জায়েদ খান ও নায়িকা সায়ন্তিকাকে নিয়ে নানা ধরনের কথা চাউর হতে থাকে। চলে অভিযোগ আর পাল্টা অভিযোগ। একে অপরকে নিয়ে অসম্মানজনক ও অশ্রদ্ধাপূর্ণ কথাও বলেন। শেষ পর্যন্ত দেখা গেল, ছবিটির ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত হয়ে পড়ছে।

কয়েকদিনের শুটিংয়ে প্রযোজকের প্রায় ৩৫ লাখ টাকা খরচ হয়ে গেছে। তাই তিনি চান এই সিনেমার শুটিং শেষ হোক। তবে সায়ন্তিকাকে নিয়ে তিনি কাজ করতে চান না। প্রযোজক মনিরুল ইসলাম জানান, ‘ছায়াবাজি’ সিনেমায় সায়ন্তিকাকে বাদ দিয়ে তাঁর বদলে দেশি নায়িকা নিয়ে কাজ করবেন। তিনি বলেন, ‘এত মিথ্যাচার আর নিতে পারছি না। এ সিনেমার কাজ আর করব না। যদি করিও, সায়ন্তিকাকে বাদ দিয়ে দেশি শিল্পী নিয়ে নতুন করে এ সিনেমার কাজ শুরু করব।’

‘ছায়াবাজি’ নামে তিনি মূলত একটি ওয়েব সিরিজ বানাতে চেয়েছিলেন। এরপর জায়েদ খানের অনুরোধে পরিকল্পনা বদল করেন তিনি। এরপরই শুরু হয় সিনেমা নিয়ে নানান জটিলতা। এখন অপেক্ষা এই জটিলতা কাটিয়ে আবারও ‘ছায়াবাজি’র শুটিংয়ে ফেরার।


img

নারীর প্রতি সহিংসতায় জবান বন্ধ থাকলে আপনি মুনাফিক: পরীমনি

প্রকাশিত :  ১১:১৩, ১৭ জুলাই ২০২৪

কোটা সংস্কারের একদফা দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে উত্তাল সারা দেশ। মঙ্গলবার রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় ছাত্রলীগ-যুবলীগ নেতাকর্মীদের সঙ্গে কোটাবিরোধী আন্দোলকারী শিক্ষার্থীদের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। 

চট্টগ্রামে ছাত্রলীগ-যুবলীগের হামলায় চট্টগ্রাম কলেজের দুই ছাত্রসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। রংপুরে পুলিশের গুলিতে আবু সাইদ নামে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) কোটা সংস্কার আন্দোলনের সমন্বয়ক নিহত হয়েছেন। এছাড়া ঢাকায় অজ্ঞাত পরিচয় একজন নিহত হয়েছেন। 

গতকাল সোমবারও ছাত্রলীগের দফায় দফায় হামলায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে দুই শতাধিক ছাত্র-ছাত্রী আহত হয়েছেন।

শিক্ষার্থীদের আন্দোলন নিয়ে এতদিন নীরব থাকলেও সরব হয়েছেন দেশের বিনোদন জগতের অনেক তারকা। শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার নিন্দা জানিয়ে কোটা সংস্কারের পক্ষে নিজেদের অবস্থান জানিয়ে ফেসবুকে পোস্ট দিয়েছেন একাধিক তারকা।

সোমবার চিত্রনায়িকা পরীমনি আহত এক শিক্ষার্থীর ছবি শেয়ার করে লিখেছেন, ‘নারীর প্রতি সহিংসতায় আপনার জবান বন্ধ থাকলে আপনি মুনাফিক।’

কোটাবিরোধী আন্দোলনকারীদের পক্ষে দেওয়া পরীমনির ওই স্ট্যাটাসটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। এমন স্ট্যাটাসের জন্য অনেকেই নায়িকার প্রশংসা করেছেন। 

একজন লিখেছেন, ‘যদি পোস্টটা মন থেকে দিয়ে থাকেন, এই ভালো কাজটার জন্য আপনার জন্যও অনেকের ভালো লাগা কাজ করবে’।  

শেখ জাহিদুল নামে একজন লিখেছেন, ‘আমি মৃত্যু পর্যন্ত যেই সংগঠনকে ঘৃণা করব, তার নাম ছাত্রলীগ’। 

আরেকজন লিখেছেন, ‘সত্যিকারের মানুষরাই নারীকে সম্মান করতে জানে’।