img

রাজবাড়ী থেকে শরীয়তপুর অভিমুখে বিএনপি’র রোডমার্চ আজ

প্রকাশিত :  ০৬:১৬, ০৩ অক্টোবর ২০২৩

রাজবাড়ী থেকে শরীয়তপুর অভিমুখে বিএনপি’র রোডমার্চ আজ

এবার রাজবাড়ী থেকে শরীয়তপুর অভিমুখে সরকার পতনের একদফা দাবিতে রোডমার্চ করবে বিএনপি। আজ সকাল সাড়ে ৯টায় রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ থেকে উদ্বোধনী সমাবেশের মাধ্যমে রোডমার্চ শুরু হবে। ১৩০ কিলোমিটার পথে ফরিদপুরসহ কয়েকটি স্থানে পথসভা অনুষ্ঠিত হবে।

শরীয়তপুর স্টেডিয়ামে সমাপনী সমাবেশের মাধ্যমে রোডমার্চ শেষ হবে। রোডমার্চে নেতৃত্ব দেবেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী ও ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল আউয়াল মিন্টু। এছাড়া রোডমার্চে সমন্বয়কের দায়িত্বে আছেন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক (ফরিদপুর বিভাগ) শামা ওবায়েদ ও সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সেলিমুজ্জামান সেলিম, খন্দকার মাশুকুর রহমান। 

উল্লেখ্য, সরকারের পদত্যাগ দাবিতে ১৯শে সেপ্টেম্বর থেকে আগামী ৫ই অক্টোবর পর্যন্ত লাগাতার কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি। ঘোষিত কর্মসূচির মধ্যে রংপুর থেকে দিনাজপুর, বগুড়া থেকে রাজশাহী, ভৈরব থেকে সিলেট, বরিশাল থেকে পিরোজপুর, ঝিনাইদহ থেকে খুলনা, ময়মনসিংহ থেকে কিশোরগঞ্জ পর্যন্ত ছয়টি রোডমার্চ করেছে তারা। এছাড়া রাজধানীতে একাধিক সমাবেশ করেছে তারা। এদিকে আগামী ৫ই অক্টোবর কুমিল্লা থেকে চট্টগ্রাম পর্যন্ত চলমান কর্মসূচির সর্বশেষ রোডমার্চ করবে বিএনপি। এদিকে দুপুর ১টায় সুপ্রিম কোর্ট বার ভবনের দ্বিতীয় তলায় আইনজীবীদের সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

ইউনাইটেড ল’ইয়ার্স ফ্রন্টের আয়োজনে এতে বক্তব্য রাখবেন সিনিয়র আইনজীবী নেতৃবৃন্দ।  

ওদিকে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সকাল সাড়ে ১০টায় জাতীয় প্রেস ক্লাব সামনে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।  

বাংলাদেশ ইয়ুথ ফোরামের আয়োজনে এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখবেন বিএনপি ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু।

 

জাতীয় এর আরও খবর

img

বাংলাদেশ সরকারের উচিত শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদের অধিকার নিশ্চিত করা: জাতিসংঘ

প্রকাশিত :  ১৬:০৭, ১৭ জুলাই ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট: ১৯:৪৫, ১৭ জুলাই ২০২৪

শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ করা মৌলিক মানবাধিকার। বাংলাদেশ সরকারের উচিত মানুষের এ অধিকার নিশ্চিত করা। চলমান কোটা সংস্কার আন্দোলন নিয়ে এমন মন্তব্য করেছেন জাতিসংঘ মহাসচিবের মুখপাত্র স্টিফেন ডুজারিক।

গতকাল মঙ্গলবার জাতিসংঘ মহাসচিবের নিয়মিত প্রেস ব্রিফিংয়ে মুখপাত্র স্টিফেন ডুজারিক এ মন্তব্য করেন।

ব্রিফিংয়ে ডুজারিকের কাছে জানতে চাওয়া হয়, সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে বাংলাদেশজুড়ে আন্দোলন চলছে। সরকারি ছাত্রসংগঠন ছাত্রলীগ ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী আন্দোলনকারীদের ওপর হামলা চালিয়েছে। হামলায় ছয়জন নিহত হয়েছেন। বিষয়টি নিয়ে কি জাতিসংঘের মহাসচিব অবগত আছেন?

জবাবে স্টিফেন ডুজারিক বলেন, ‘হ্যাঁ, আমরা পরিস্থিতি সম্পর্কে অবগত। উদ্বেগ নিয়েই গভীরভাবে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। আমি মনে করি, বাংলাদেশসহ বিশ্বের অন্য সব জায়গায় মানুষের শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ করার অধিকার রয়েছে।’

জাতিসংঘ মহাসচিবের মুখপাত্র আরও বলেন, ‘যেকোনো হুমকি ও সংঘাত থেকে প্রতিবাদকারীদের রক্ষা করার উদ্যোগ নিতে আমরা বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানাই। বিশেষ করে তরুণ, শিশু ও বিশেষভাবে সক্ষম ব্যক্তিদের মতো যাঁদের বাড়তি নিরাপত্তার প্রয়োজন রয়েছে।’

‘শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ করা মানুষের মৌলিক মানবাধিকার’ মন্তব্য করে স্টিফেন ডুজারিক বলেন, বাংলাদেশ সরকারের উচিত মানুষের এ অধিকার নিশ্চিত করা।

জাতীয় এর আরও খবর