img

হঠাৎ কেন বুবলীকে খোঁচা পরীমনির

প্রকাশিত :  ১০:৩৫, ১৩ নভেম্বর ২০২৩

হঠাৎ কেন বুবলীকে খোঁচা পরীমনির

অভিনেত্রী শবনম বুবলি এবং কৌশিক হোসেন তাপসের সম্পর্ককে কেন্দ্র করে বিতর্ক জারি রইল।  এরই মাঝে রহস্যময় এক স্ট্যাটাস দিলেন ঢাকাই সিনেমায় জনপ্রিয় নায়িকা পরীমণি।

তার এই রহস্যময় স্ট্যাটাসের পাঠোদ্ধার করতে একটু পেছনে তাকাতে হবে। গত ৪ নভেম্বর রাত থেকে বুবলী-তাপসের প্রেমের গুঞ্জনটা শুরু। গানবাংলা টেলিভিশনের চেয়ারপারসন ও তাপসের স্ত্রী ফারজানা মুন্নির ফেসবুক থেকে দেওয়া একটা স্ট্যাটাসে সূত্র ধরে। সেই স্ট্যাটাসে বলা হয়, ‘তাপস ও বুবলী মাঝে সম্পর্ক চলছে। বুবলী আমার পরিবার ধ্বংস করছে, যেভাবে করেছে অপু বিশ্বাসের জীবন। শাকিব খানকে ব্ল্যাকমেইল করে প্রেগন্যান্ট হয়েছেন, এখন তার টার্গেট তাপস। যদি আমার কিছু হয় এর জন্য দায়ী থাকবেন তাপস এবং বুবলী।’

এরপর ওইদিনই ফারজানা মুন্নি জানান, তার আইডি হ্যাকড হয়েছিল। পরে বুবলীও সংবাদমাধ্যমে একই কথা জানান। সেই সঙ্গে তিনি জানান, তার বিরুদ্ধে ‘নোংরা ষড়যন্ত্র’ হচ্ছে।

বলী বলেন, ‘এসব নোংরা ষড়যন্ত্র আর কত নিবো জানা নেই। কিসের কোন পোস্ট নিয়ে সকাল থেকে হঠাৎ করে সাংবাদিকদের কাছ থেকে জানলাম, যা বলতেও রুচিতে বাঁধছে। শুনেছি, হ্যাকাররা ফেসবুক আইডি হ্যাক করে পোস্ট করেছিল, হ্যাকারদের শনাক্ত করার কাজ চলছে। একটি গ্রুপ ব্যক্তিগতভাবে আমার প্রত্যেকটা কাজের জায়গায় নানাভাবে নোংরামি শুরু করেছে গত বেশ কিছুদিন ধরে।’

এ বিষয়টি অনেকটাই ধামাচাপা পড়তেই শুক্রবার (১১ নভেম্বর) রাত থেকে ফেসবুকের কয়েকটি পেজে বুবলী-তাপসের প্রেম নিয়ে ফারজানা মুন্নি ও চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাসের কথপোকথনের একটি অডিও রেকর্ড ভাইরাল হয়।এতেও ষড়যন্ত্রের গন্ধ পেয়েছেন বুবলী। এরপর যথারীতি সংবাদমাধ্যমে লিখিত বিবৃতি পাঠিয়েছেন এই নায়িকা। বিবৃতিতে বুবলী বলেন, ‘কোনো কনভারসেশনে শুধু একজনের কথা যেখানে রাখা হয়, সেখানে কী উদ্দেশ্য থাকে? আপনারাই বলুন। এমনকি অডিওতে মিম, পরী, মাহি কারও সঙ্গে কথা হলো না, শুধু অপু বিশ্বাসের সঙ্গেই কথা হলো, ব্যাপারগুলো এত পরিকল্পিত যে আমার বুঝতে বাকি নেই কী নোংরামো হচ্ছে।’

আর এই বিষয়টা হয়তো নজর এড়াইনি পরীমণিরও। তিনি শনিবার রাত ১২টার পর (১২ নভেম্বর) নিজের ফেসবুক আইডিতে একটি রহস্যময় স্ট্যাটাস দিয়েছেন। পরীমণি লেখেন, ‘উনি সবকিছু এমন ষড়যন্ত্র বইলা চালায়ে যাইতে চায় ক্যান!’

যদিও পরীমণি সেই স্ট্যাটাসে কারও নাম উল্লেখ করেননি। কিন্তু নেটিজেনরা ধরেই নিয়েছেন এই রহস্যময় স্ট্যাটাসটি বুবলীকে নিয়েই দিয়েছেন তিনি। নেটিজেনরাও তার পোস্টে এমনই রহস্যময় মন্তব্য করেছেন।

img

সহ অভিনেতাকে চড়, চুলের মুঠি ধরে নোরাকে পালটা থাপ্পড়!

প্রকাশিত :  ১০:১৬, ২১ জুন ২০২৪

বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় আইটেম ডান্সার নোরা ফতেহি। দিলবর গার্ল নোরার শরীরী বিভঙ্গ ঝড় ঝোলে বড় পর্দায়। হিন্দি, তেলুগু, মালায়ালি, তামিল ছবির গানে নোরার শরীরী হিল্লোল নেশা ধরায় দর্শকের মনে। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিয়ো ভাইরাল। যেখানে নোরা তাঁর কেরিয়ারের প্রথম ছবির শ্যুটিংয়ের এক ভয়ংকর অভিজ্ঞতা ভাগ করেছেন। সহ অভিনেতার সঙ্গে চুলোচুলি পর্যন্ত করেছেন হট ডিভা নোরা ফতেহি।

বাংলাদেশে শ্যুটিং করতে গিয়ে সেই অভিজ্ঞতা কপিল শর্মার শোয়ে এসে ভাগ করেছেন দিলবর গার্ল। প্রথম ছবি \'রোর: টাইগ্রেস অফ দ্য সুন্দরবনস\'। ওই ছবির শ্যুটিং সেটেই নোরা ও তাঁর সহ অভিনেতা একে অপরকে কষিয়ে চড় মারেন।

নোরা বলেন, জঙ্গলে সিনেমার শ্যুটিং চলছিল। সহ অভিনেতা তাঁর সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করা শুরু করেন। সই জন্য নোরা রেগে গিয়ে সপাটে চড় কষিয়ে দেন সহ অভিনেতাকে। এরপরই দুজনের মধ্যে শুরু হয় তুমুল অশান্তি। কেউ কাউকে ছেড়ে দিতে নারাজ। মহিলা বলে তাঁকে ছেড়ে দিতে নারাজ অভিনেতা। নোরাকে পালটা চড় মারেন ছবির নায়ক। এরপর একে অপরের চুল ধরে টানাটানিও করেন। ইউনিটের অনেকেই এগিয়ে এসে হস্তক্ষেপ করেন। তবুও উত্তপ্ত পরিস্থিতি সামলানো মুশকিল হয়ে গিয়েছিল।

শর্মাজির শোয়ে \'অ্যান অ্যাকশন হিরো\' -এর প্রচারে এসেছিলেন নোরা। তখনই জীবনের প্রথম ছবি নিয়ে অভিজ্ঞতা ভাগ করেন অভিনেত্রী।

সাম্প্রতিক অতীতে নোরা সেলেব পাপারাৎজ্জিদের ছবি তোলার কায়দা নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন। শরীরের বিশেষ অঙ্গে প্যাপেরা ক্যামেরা ফোকাস করেন বলে অভিযোগ নোরার। যে কোনও অনুষ্ঠানেই মহিলাদের বিভিন্ন অ্যাঙ্গেলে দাঁড়ানোর অনুরোধ করেন সেলেব পাপারাৎজ্জিরা। এমনভাবে ক্যামেরা ফোকাস করা হয় যা ভীষণই অস্বস্তিকর।

এক সাক্ষাৎকারে মরোক্কান সুন্দরী ক্ষোভ উগরে দিয়ে বলেন, \'আমার মনে হয় পাপারাৎজ্জিদরা এইরকম পশ্চাৎ দেখেননি। এটা শুধু আমার সঙ্গে হয় এমনটা নয়। যে কোনও অভিনেত্রীর সঙ্গেই এই ঘটনা ঘটান পাপারাৎজ্জিরা। অনেক সময় হয়তো পশ্চাৎদেশ জুম করে দেখান না কিন্তু, শরীরের অন্য অংশে সেটা করা হয়। অনেক সময় তো জুম ইন করার মতো কিছু থাকেও না। সেই সময় কী সের উপর ফোকাস করেন পাপারাৎজ্জিরা?\' নোরার সংযোজন, \'আমি আমার শারীরিক গঠন নিয়ে খুশি। এই জন্য নিজেকে লাকি মনে হয়। আমি কখনই নিজের শরীরের গঠন নিয়ে অস্বস্তিবোধ করি না।