img

ফিলিস্তিনে হামলার প্রতিবাদে বিশ্বকাপ ফাইনালে মাঠে ঢুকে পড়লেন এক দর্শক

প্রকাশিত :  ১২:১৭, ১৯ নভেম্বর ২০২৩

ফিলিস্তিনে হামলার প্রতিবাদে বিশ্বকাপ ফাইনালে মাঠে ঢুকে পড়লেন এক দর্শক

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ফিলিস্তিনে চলছে ইসরাইলি সামরিক বাহিনীর নির্যাতন। এই নির্যাতনের প্রতিবাদে এবং ফিলিস্তিনকে মুক্ত করার দাবিতে  ‘ফিলিস্তিনে বোমা ফেলা বন্ধ করো’ লেখা জামা পরে সরাসরি মাঠে ঢুকে পড়লেন এক সমর্থক। এর আগে বিশ্বকাপের একটি ম্যাচে গ্যালারিতে ফিলিস্তিনি পতাকা হতে কয়েকজন দর্শককে দেখা গেছে। 

রোববার বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচ চলাকালীন ঘটনাটি ঘটে। শুধু তাই নয়, এ সময় ওই সমর্থক ক্রিজে থাকা বিরাট কোহলিকে জড়িয়েও ধরেন।

হিন্দুস্তান টাইমস জানায়, ফাইনালে যখন ভারত চাপে আছে, ঠিক তখনই তিনি মাঠে ঢুকে পড়েন এবং কোহলিকে জড়িয়ে ধরেন। এই ঘটনায় বিরাট কোহলি বেশ বিরক্ত হন। পরে ফিলিস্তিনি ওই সমর্থককে মাঠ থেকে বের নিয়ে যান নিরাপত্তারক্ষীরা। কিছুক্ষণ থমকে থাকার পর ফের শুরু হয় খেলা।

যিনি মাঠে ঢুকে আসেন, তিনি সাদা রঙের একটি টি-শার্ট পরেছিলেন। টি-শার্টের সামনের দিকে বোমা বিস্ফোরণের মতো ছবি ছিল। আর তাতে লেখা ছিল, ‘স্টপ বম্বিং প্যালেস্তাইন (ফিলিস্তিনে বোমা ফেলা বন্ধ করো)।’

তবে ওই সমর্থককে আটক করা হয়েছে কিনা কিংবা তার সাথে কী আচরণ করা হয়েছে, তা এখনো জানা যায়নি।

img

স্ত্রী-সন্তানের সামনেই লংকান ক্রিকেটারকে গুলি করে হত্যা

প্রকাশিত :  ১১:১০, ১৭ জুলাই ২০২৪

শ্রীলংকার সাবেক ক্রিকেটার ধাম্মিকা নিরোশানকে স্ত্রী-সন্তানের সামনেই গুলি করে হত্যা করা হলো। মঙ্গলবার রাতে আম্বালাঙ্গোদায় নিজ বাড়িতেই গুলিতে নিহত হন তিনি। 

মর্মান্তিক এ ঘটনা ক্রিকেট বিশ্ব এবং শ্রীলংকা ক্রিকেটকে শোকের মধ্যে নিমজ্জিত করেছে। 

স্থানীয় পুলিশ জানিয়েছে, একজন অজ্ঞাতনামা হামলাকারী নিরোশানের বাড়িতে প্রবেশ করে এবং তাকে গুলি করে। ওই সময় ধাম্মিকা নিরোশান তার স্ত্রী এবং দুই সন্তানের সঙ্গেই ছিলেন।

সন্দেহভাজন হামলাকারী পলাতক। তবে ঠিক কী কারণে ওই হামলাকারী নিরোশানকে গুলি চালিয়েছিল, তা এখনও স্পষ্ট নয়।

আম্বালাঙ্গোদা পুলিশ জানিয়েছে, তারা অপরাধীকে ধরার চেষ্টা করছে এবং ঘটনার তদন্ত চলছে। প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, অভিযুক্ত ১২ বোরের বন্দুক নিয়ে এসেছিল।

৪১ বছর বয়সি নিরোশান অনূর্ধ্ব-১৯ স্তরে শ্রীলংকার প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন। ২০০০ সালে সিঙ্গাপুরের বিরুদ্ধে তার অভিষেক হয়। তিনি অনূর্ধ্ব-১৯ পর্যায়ে দুই বছর টেস্ট ও ওয়ানডে ক্রিকেট খেলেছেন এবং দলের অধিনায়কত্বও করেছেন। নিরোশান একজন ডানহাতি ফাস্ট বোলার এবং ডানহাতি ব্যাটসম্যান ছিলেন। ২০০২ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে পাঁচ ইনিংসে ১৯.২৮ গড়ে ৭ উইকেট শিকার করেছিলেন নিরোশান।

তিনি ১২টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচে ১৯টি উইকেট নেওয়ার পাশাপাশি ব্যাট হাতে করেছেন ২০০ রান। একই সময়ে ৮টি লিস্ট-এ ম্যাচে তিনি ৪৮ রান করেছেন এবং ৫টি উইকেট নিয়েছেন। সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস