ক্যান্সারে আক্রান্ত ব্রিটিশ রাজা চার্লস

প্রকাশিত :  ০৪:০০, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট: ২০:০৪, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

ক্যান্সারে আক্রান্ত ব্রিটিশ রাজা চার্লস
ব্রিটেনের রাজা চার্লস

ব্রিটেনের রাজা চার্লস ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছেন।  এ কারণে তিনি আপাতত জনসমক্ষে সব ধরনের অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়া থেকে বিরত থাকবেন। তবে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবে তার দায়িত্ব পালন চালিয়ে যাবেন।

সোমবার বাকিংহ্যাম প্যালেস এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, চিকিৎসায় সেরে ওঠার ব্যাপারে সম্পূর্ণ আস্থা রয়েছে ৭৫ বছর বয়সী রাজা চার্লসের। যত দ্রুত সম্ভব আবার স্বাভাবিক দায়িত্ব পালনে ফিরবেন বলেও আশাবাদী তিনি।



চার্লস গত মাসে তিন রাত হাসপাতালে কাটিয়েছেন। সেখানে তার প্রোস্টেটের চিকিৎসা হয়। হাসপাতালে চিকিৎসাকালে তার শারীরিক অবস্থা নিয়ে অন্য একটি বিষয়ে উদ্বেগ দেখা দেয়। তার কোন ধরনের ক্যানসার হয়েছে, সে বিষয়ে কিছু না জানালেও প্যালেস জানিয়েছে, রাজা চার্লসের প্রোস্টেট ক্যানসার হয়নি।

মা রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের মৃত্যুর পর ২০২২ সালের সেপ্টেম্বরে ব্রিটেনের রাজা হিসেবে অভিষেক ঘটে চার্লসের।

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, রাজা তার দুই ছেলেকেই নিজের অসুস্থতার খবর ব্যক্তিগতভাবে জানিয়েছেন। খবর পেয়ে যুক্তরাষ্ট্রে থাকা প্রিন্স হ্যারি খুব শিগগিরই বাবাকে দেখতে লন্ডনে আসবেন।

বাকিংহ্যাম প্যালেস আরও জানিয়েছে, নরফকের স্যানড্রিংহ্যাম থেকে সোমবার লন্ডনে ফিরেছেন চার্লস। সেখানে তার চিকিৎসা শুরু হয়েছে। তিনি জনবহুল অনুষ্ঠানে অংশ না নিলেও রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন এবং ব্যক্তিগত মিটিংগুলো চালিয়ে যাবেন।

Leave Your Comments


গাজার পক্ষে প্রচার চালিয়ে ব্রিটিশ এমপির জয়

প্রকাশিত :  ১৫:২৩, ০১ মার্চ ২০২৪

যুক্তরাজ্যের বামপন্থি রাজনীতিবিদ জর্জ গ্যালোওয়ে গাজার পক্ষে প্রচার চালিয়ে পার্লামেন্টের উপনির্বাচনে জয় পেয়েছেন। তবে নির্বাচনে জয় পেলেও হারিয়েছেন লেবার পার্টির সমর্থন। 

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা এ খবর জানিয়েছে।

দেশটির উত্তরের শহর রোচডেলের আসনে জয়ী হয়েছেন ওয়ার্কার্স পার্টির প্রবীণ রাজনীতিবিদ জর্জ গ্যালোওয়ে। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বীর চেয়ে ১২ হাজার ৩৩৫ ভোট বেশি পেয়েছেন তিনি।

শুক্রবার নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের পর লেবার পার্টির কিয়ের স্টারমারকে উদ্দেশ করে গ্যালোওয়ে বলেন, গাজায় নিরপরাধ মানুষকে হত্যার সমর্থন দিয়েছেন স্টারমার। গাজা যুদ্ধবিরতির আহ্বান প্রত্যাখ্যান করেছিলেন তিনি।

যুক্তরাজ্যের মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ এলাকাগুলোতে গ্যালোওয়ে ফিলিস্তিনের পক্ষে প্রচার চালাচ্ছেন।

img