img

হংকংয়ে খেলেননি মেসি, ক্ষোভ দর্শকদের

প্রকাশিত :  ০৩:৫৭, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট: ০৬:১৮, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

হংকংয়ে খেলেননি মেসি, ক্ষোভ দর্শকদের
লিওনেল মেসি

হংকংয়ের স্থানীয় ক্লাবের বিপক্ষে একটি ফ্রেন্ডলি ম্যাচ গিয়েছিল লিওনেল মেসির দল ই্ন্টার মিয়ামি। খেলা ঠিকই অনুষ্ঠিত হয়েছে। কিন্তু  খেলতে পারেননি মেসি। কারণ, মেসিকে ওই ম্যাচে খেলাননি ইন্টার মিয়ামি কোচ। বিষয়টি নিয়ে চরম হতাশ ও বিরক্ত হয়েছেন দর্শকরা। যার খেলা দেখার জন্য এত আগ্রহ করে আসছেন, তিনিই নেই একাদশের মাঠে।

এতে চরম হতাশার সঙ্গে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন দর্শকরা। নিজেদের টিকেটের টাকাও ফেরত চেয়েছেন তারা। পরে এ বিষয়ে কথা বলে দেশটির সরকার। সরকারের ঘোষণায় বলা হয়, মেসিকে কেন খেলানো হয়নি, সে কারণে আয়োজকদের ডলার কেটে রাখা হবে।

তবে মেসি কেন খেলেনি  সে বিষয়ে কোনো কিছু্ই নিশ্চিত করে কিছু জানাননি ইন্টার মিয়ামি কোচ। এমনকি মেসিও এ বিষয়ে কোনো কথা বলেননি। তবে ঘটনার চারদিন পর অবশেষে বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছেন আর্জেন্টাইন বিশ্বকাপজয়ী তারকা।

মেসি নিজে থেকেই বিষয়টি নিয়ে কথা বলেননি। গতকাল মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে তাকে প্রশ্ন করা হয় এ বিষয়ে। পরে তিনি প্রশ্নের জবাব দেন।

মেসি বলেন, ‘পেশীর অস্বস্তির কারণে আমি হংকংয়ে শেষ ম্যাচ মিস করি। আমি সত্যিই খেলতে চেয়েছিলাম। কারণ, অনেক ভক্ত এসেছিলেন। কিন্তু এটি (ইনজুরি) খেলার অংশ।’

‘এটা দুঃখের। কারণ, আমি সবসময় সেখানে থাকতে চাই। বিশেষ করে যখন এই ধরনের খেলাগুলোর ক্ষেত্রে আমরা এতদূর ভ্রমণ করি এবং লোকেরা আমাদের একটি খেলা দেখতে অনেক আগ্রহী হয়। আশা করি, আমরা ফিরে এসে হংকংয়ে আরেকটি খেলা খেলতে পারবো।’-যোগ করেন মেসি।

img

ইতিহাস গড়লেন বাংলাদেশি নারী বক্সার জিন্নাত ফেরদৌস

প্রকাশিত :  ০৯:১২, ২৪ এপ্রিল ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট: ০৯:৫৬, ২৪ এপ্রিল ২০২৪

বক্সিংয়ে ইতিহাস গড়েছেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী জিন্নাত ফেরদৌস। প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে আফ্রিকার ডারবানে জিতেছেন ম্যান্ডেলা কাপের স্বর্ণপদক। এটিকে গেল দেড় দশকে দেশের বক্সিংয়ে সেরা সাফল্য মনে করেন ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক। 

দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত নেলসন ম্যান্ডেলা কাপ আন্তর্জাতিক বক্সিং প্রতিযোগিতায় গতকাল সোনা জয় করেছেন বাংলাদেশের যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী বক্সার জিনাত ফেরদৌস। ৫০ কেজি ওজন শ্রেণিতে তিনি ফাইনালে হারিয়েছেন ইথিওপিয়ার প্রতিযোগীকে। বিদেশের মাটিতে এমন সফলতার পর গর্বিত দেশের বক্সিং সংশ্লিষ্টরা।

জিন্নাত ফেরদৌসের বক্সিংয়ে আবির্ভাব গত বছর হঠাৎ করেই। তিনি লাল-সবুজের হয়ে অংশ নেন এশিয়ান গেমসেও। সেখানে যদিও প্রথম বিশ্বমঞ্চে তেমন ভালো কিছু করতে পারেননি।

এরপর যুক্তরাষ্ট্রে ব্যক্তিগত কোচের কাছে ট্রেনিং চালিয়ে যান জিন্নাত। তার ঝুলিতে অবশেষে সাফল্য ধরা দিয়েছে। দক্ষিণ আফ্রিকায় ম্যান্ডেলা কাপে গোল্ড জিতেছেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী জিন্নাত।

বক্সিং ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম তুহিন বলেছেন, জিন্নাতের স্বর্ণপদক জয় দেশের বক্সিংয়ের জন্য অনেক বড় একটি সফলতা। তার স্বর্ণ জয়ই দেশের সেরা সাফল্য। জিন্নাতের পারফরম্যান্স, অভিজ্ঞতা ও ফাইটিং দক্ষতা খুবই ভালো। আগামী মাসের ২৫ তারিখ থেকে শুরু হওয়া ফাইটে ভালো কিছু আশা করতে পারি।’