প্রতারণার অভিযোগ

img

গায়ক নোবেলের বিরুদ্ধে ডিবির চার্জশিট

প্রকাশিত :  ০৬:৩০, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট: ০৬:৩৯, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

গায়ক নোবেলের বিরুদ্ধে ডিবির চার্জশিট
গায়ক মাঈনুল আহসান নোবেল

প্রতারণার অভিযোগে গায়ক মাঈনুল আহসান নোবেলের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলায় আদালতে চার্জশিট দাখিল করেছে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। দণ্ডবিধির ৪০৬/৪২০ ধারায় এ চার্জশিট দাখিল করা হয়।

বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) আদালতের মতিঝিল থানার সাধারণ নিবন্ধন শাখার কর্মকর্তা পুলিশের উপ-পরিদর্শক আলমগীর হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, গত ৩০ জানুয়ারি ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রাজেশ চৌধুরির আদালতে নোবলকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দাখিল করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের লালবাগ জোনাল টিমের পরিদর্শক হুমায়ুন কবির। আদালত অভিযোগপত্রটি দেখিলাম বলে স্বাক্ষর করে বিচারের জন্য বদলির আদেশ দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, অগ্রিম টাকা নিয়ে অনুষ্ঠানে না গিয়ে প্রতারণার অভিযোগে গায়ক মাঈনুল আহসান নোবেলের বিরুদ্ধে মামলা করেন শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ হেডকোয়ার্টার পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি ব্যাচ ২০১৬ এর প্রতিনিধি মো. সাফায়েত ইসলাম। গত বছরের ১৭ মে আদালত এ মামলার এজাহার গ্রহণ করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়েছে, ২০২৩ সালের ২৮ এপ্রিল শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ হেডকোয়ার্টার পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি ব্যাচ ২০১৬ এর প্রথম পুনর্মিলনী আয়োজন করা হয়। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে গান গাওয়ার জন্য মাইনুল আহসান নোবেলের সঙ্গে মোট এক লাখ ৭৫ হাজার টাকা চুক্তি করা হয়। পরে নোবেলকে বিভিন্ন সময়ে সর্বমোট ১ লাখ ৭২ হাজার টাকা দেওয়া হয়। তবে অনুষ্ঠানে না গিয়ে প্রতারণা করে এ অর্থ আত্মসাৎ করেন তিনি।

img

অভিনেতা রুমি মারা গেছেন

প্রকাশিত :  ০৪:৩৪, ২২ এপ্রিল ২০২৪

মারা গেছেন ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা অলিউল হক রুমি। সোমবার (২২ এপ্রিল) ভোর ৩টা ৫৮ মিনিটে দেশের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। 

জনমতকে তার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন ছোট পর্দার অভিনেতা আনোয়ার হোসাইন।

তিনি বলেন, রুমি ভাই আজ তিনটা ৫৮ মিনিটে মারা গেছেন। তিনি রাজধানীর ইবনে সিনা হসপিটালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।  এছাড়া অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্বসহ অনেকেই সামাজিক মাধ্যমে রুমির মৃত্যুর খবর জানিয়েছেন। করেছেন শোক প্রকাশ। 

জানা গেছে, কোলন ক্যানসারে আক্রান্ত ছিলেন অভিনেতা। প্রথমে ভারতের চেন্নাই নেওয়া হয়েছিল তাকে। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে দেশে আনা হয়। এরপর দেশেই চলছিল চিকিৎসা। 

অভিনয়ে রুমির পথচলা শুরু ১৯৮৮ সালে মঞ্চ নাটকের মাধ্যমে।  প্রথম নাটকটি ছিল এখন ক্রীতদাস। সে বছরই ছোট পর্দায় অভিষেক হয় তার। এই যাত্রা শুরু হয়েছিল  কোন কাননের ফুল নাটকের মাধ্যমে। ২০০৯ সালে দরিয়াপাড়ের দৌলতী সিনেমার মাধ্যমে বড় পর্দায় নাম লেখান।

তবে তিনি দর্শকের কাছে পৌঁছান ছোটপর্দার মাধ্যমে। বিশেষ করে গত কয়েক বছর ধরে বরিশালের আঞ্চলিক ভাষায় বেশকিছু নাটক করেন তিনি। এই নাটকগুলোই তাকে জনপ্রিয় এনে দেয়।

রুমি অভিনীত নাটকের মধ্যে সাজেশন সেলিম’, ‘বোকাসোকা তিনজন’, ‘মেকাপ ম্যান’, ‘ঢাকা টু বরিশাল’, ‘ঢাকা মেট্রো লাভ’, ‘বাপ বেটা দৌড়ের উপর’, ‘আমেরিকান সাহেব’, ‘জার্নি বাই বাস’, জমজ-৫’, ‘জমজ-৬’, ‘জমজ-৭’, ‘জমজ-৮’, ‘জমজ-৯’, ‘জমজ-১০’ উল্লেখযোগ্য।