পাকিস্তানে বন্ধ করে দেওয়া হলো টুইটার

প্রকাশিত :  ১৪:৫৫, ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট: ১৮:২২, ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

পাকিস্তানে বন্ধ করে দেওয়া হলো টুইটার

পাকিস্তানের জাতীয় নির্বাচন শেষ হয়ে চলছে ভোট গণনা। এখনো চূড়ান্ত ফল পাওয়া যায়নি। তবে এর মধ্যেই দেশটিতে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম  মাইক্রো ব্লগিং সাইট এক্স (সাবেক টুইটার)।

শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) দেশটির সাইবার সিকিউরিটি ও পর্যবেক্ষক সংস্থা নেটব্লকস'র বরাত দিয়ে সংবাদ প্রকাশ করেছে দ্য ডন।

এক এক্স বার্তায় সংস্থাটি বলেছে, লাইভ মেট্রিক্স দেখাচ্ছে দেশব্যাপী এক্স/টুইটারে বিড়ম্বনা দেখা যাচ্ছে। মোবাইল ও ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করে দিয়ে বিতর্কিত নির্বাচন হওয়ার দুইদিন পর এ ঘটনা ঘটল।

কয়েকজন এক্স ব্যবহারকারী জানিয়েছেন, সাধারণ ইন্টারনেট দিয়ে তারা এক্সে প্রবেশ করতে পারছেন না। এক্সে ঢুকতে তাদের ভিপিএন ব্যবহার করতে হচ্ছে।

উসামা খিলজিল নামের একজন লিখেছেন, নির্বাচনের দুইদিন পর পাকিস্তানে এক্সে শুধুমাত্র ভিপিএন ব্যবহার করে ঢোকা যাচ্ছে। কারণ অনলাইনে ভোট কারচুপির প্রমাণ আসা শুরু করেছে। এছাড়া ভোট গণনার স্বচ্ছতা নিয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় প্রশ্ন তোলার পর এক্স বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

আম্মার রশিদ নামের অপর একজন এক্সে লিখেছেন, ব্যাপক কারচুপি অভিযোগের নির্বাচনের দিন মোবাইল পরিষেবা ও ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট বন্ধের পর এবার পাকিস্তানি কর্তৃপক্ষ দেশজুড়ে টুইটার বন্ধ করে দিয়েছে।

Leave Your Comments


ফ্রিতে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স-এর কোর্স করাচ্ছে গুগল

প্রকাশিত :  ১১:০১, ০৩ মার্চ ২০২৪

আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স বা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা জোয়ার এনেছে প্রযুক্তির জগতে। ইতিমধ্যেই এআই-র দৌলতে চাকরি হারিয়েছেন হাজার হাজার মানুষ। আগামী কয়েক বছর পর চাকরি পেতে গেলে বা চাকরি টিকিয়ে রাখতে গেলে অবশ্যই প্রয়োজন কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বা আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স সম্পর্কে সম্যক জ্ঞান।

আমরা ডিজিটাল যুগে রয়েছি। ঘুম থেকে ওঠা থেকে ঘুমোতে যাওয়া অবধি, দৈনন্দিন সমস্ত কাজেই আমরা যন্ত্রনির্ভর হয়ে উঠছি। ডিজিটাল স্ক্রিনে বন্দি সকলে। যত সময় এগোচ্ছে, ততই অত্যাধুনিক হচ্ছে প্রযুক্তি। নিত্যদিনই নতুন নতুন জিনিস আবিষ্কার হচ্ছে। তবে সম্প্রতি প্রযুক্তির জগতে জোয়ার এনেছে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স বা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা।  লাখ লাখ টাকা দিয়ে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সের কোর্স করাচ্ছে বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান, কিন্তু আপনি কি জানেন বিনামূল্যেই আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সের কোর্স করা যায়?

বিনামূল্যে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সের কোর্স করার সুযোগ দিচ্ছে গুগল। চাইলে আপনিও এই কোর্স করতে পারেন। কী কী এই কোর্স, জেনে নিন—

১. ইন্ট্রোডাকশন টু জেনেরেটিভ এআই-জেনেরেটিভ আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সের মূল বিষয়বস্তুর সঙ্গে আপনার পরিচয় করায় এই কোর্স। অপারেশনাল মেকানিজম নিয়ে শিক্ষা দেয় এই কোর্স।

২. ইন্ট্রোডাকশন টু লার্জ ল্যাঙ্গুয়েজ মডেল—এন্ট্রি লেভেলে মাইক্রো লার্নিং নিয়ে কোর্স এটি।

৩. ইন্ট্রোডাকশন টু রেসপন্সিবল এআই কীভাবে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স ব্যবহার করা হয় এবং গুগল কীভাবে তাদের বিভিন্ন প্রোডাক্টে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স ব্যবহার করে, তা নিয়েই গুগল এই কোর্স  তৈরি করেছে।

৪. জেনারেটিভ এআই ফান্ডামেন্টাল-জেনারেটিভ এআই, লার্জ ল্যাঙ্গুয়েজ মডেল ও রেসপন্সিবল এআই নিয়ে তৈরি গুগলের এই কোর্স। কোর্স শেষে গুগলের তরফে একটি ব্যাজও দেওয়া হবে।

৫. ইন্ট্রোডাকশন টু ইমেজ জেনেরেশন—ছবিতে কীভাবে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স ব্যবহার করা হয়, সে সম্পর্কে শিক্ষা দেবে গুগলের এই কোর্স।

img