খুলনায় গৃহবধূর চোখে-মুখে ‘সুপার গ্লু’ দিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, মালামাল লুট

প্রকাশিত :  ০৮:১৪, ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট: ০৯:০৪, ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

খুলনায় গৃহবধূর চোখে-মুখে ‘সুপার গ্লু’ দিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, মালামাল লুট

খুলনার পাইকগাছায় গভীর রাতে গৃহবধূর চোখ-মুখে ‘সুপার গ্লু’ আঠা দিয়ে সঙ্ঘবদ্ধ ধর্ষণ করা হয়েছে। এছাড়া কানের দুল ও স্বর্ণালংকারসহ মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। রোববার (১১ ফেব্রুয়ারি) ভোর রাতে উপজেলার রাড়ুলি গ্রামে ওই ঘটনা ঘটে। 

ভুক্তভোগীর স্বামী, দেবর ও স্থানীয়রা জানিয়েছেন, ‘গৃহবধূর স্বামী, এক ছেলে ও মেয়ে রোববার রাতে বাড়ির বাইরে ছিলেন। রাত তিনটার দিকে মই বেয়ে বাড়ির ছাদে উঠে শাবল দিয়ে দরজা ভেঙে ঘরের ভেতর প্রবেশ করে দুর্বৃত্তরা। এরপর গৃহবধূর চোখে ও মুখে ‘সুপার গ্লু’ আঠা দিয়ে তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করা হয়। ধর্ষণ শেষে কানের দুল ও গলার চেইনসহ মালামাল নিয়ে পালিয়ে যায় তারা। খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে তাকে।

এলাকাবাসী জানায়, ভুক্তভোগীর স্বামী কাঁচামাল ব্যবসায়ী। ঘটনার রাতে তিনি ব্যবসায়িক কাজে গড়ুইখালী বাজারে ছিলেন। তার ছেলে বাগেরহাটে এবং মেয়ে খুলনায় থেকে লেখাপড়া করে।

আরও পড়ুনএবার সুবর্ণচরে ঘরের সিঁদকেটে মা-মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ

খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারী রেজিস্ট্রার ডা. মো. কনক হোসেন জানান, স্বর্ণালংকার নেয়ার সময় ভুক্তভোগী নারীর কানের কিছু অংশ ছিঁড়ে গেছে। এছাড়া শরীরে আঘাতের একাধিক চিহ্ন রয়েছে। চোখে আঠা লাগানো ছিল। চক্ষু ডাক্তার তার চোখে ড্রপ দিয়েছেন। এ ছাড়া অন্যান্য চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। বর্তমানে সার্জারি বিভাগের অধীনে ভর্তি রয়েছেন। তাকে ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে নিয়ে যাওয়া হবে।

খুলনার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইদুর রহমান জানান, ইতোমধ্যে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের শনাক্ত এবং তাদেরকে আটক করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

Leave Your Comments


আল্লামা লুৎফুর রহমানের ইন্তেকাল

প্রকাশিত :  ০৯:৫০, ০৩ মার্চ ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট: ১০:০৭, ০৩ মার্চ ২০২৪

বাংলাদেশ মাজলিসুল মুফাসসিরিনের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন মোফাসসিরে কোরআন আল্লামা লুৎফুর রহমান মারা গছেনে (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

রোববার (৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ২টা ৫৪ মিনিটে রাজধানীর ইবনে সিনা হাসপাতালে তিনি মারা যান। গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তার ছোট ছেলে আবু সালমান মোহাম্মদ আম্মার।

এর আগে, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি সকাল পৌনে ১০টায় লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার নিজবাড়িতে ব্রেনস্ট্রোক করেন মাওলানা লুৎফুর রহমান। সঙ্গে সঙ্গে বাড়ির লোকজন তাকে লক্ষ্মীপুর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান তিনি ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়েছেন। পরে সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় আনা হয়।

প্রখ্যাত এ আলেমে আল্লামা লুৎফর রহমান একজন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ইসলামি বক্তা। একজন স্বনামধন্য বক্তা হিসেবে দেশে-বিদেশে তার অনেক পরিচিতি রয়েছে।

ব্যক্তিজীবনে মাওলানা লুৎফর রহমান ৫ কন্যা ও ২ ছেলের জনক। কর্মজীবনে তিনি রাজখালি আলিয়া মাদরাসার অধ্যক্ষ হিসেবে অত্যন্ত সুনামের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ১৯৯১ ও ১৯৯৬ সালে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে লক্ষ্মীপুর রামগঞ্জ নির্বাচনী এলাকার প্রার্থী হিসেবে অংশ নেন।

img