নাফ নদে সর্বোচ্চ সতর্ক পাহারায় বিজিবি

প্রকাশিত :  ০৯:১৯, ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

নাফ নদে সর্বোচ্চ সতর্ক পাহারায় বিজিবি

পার্শ্ববর্তী দেশ মিয়ানমারের রাখাইনে গোলাগুলি ও সংঘর্ষ বেড়ে যাওয়ায় বাংলাদেশ সীমান্ত দিয়ে যাতে রোহিঙ্গারা ঢুকতে না পারে, সে ব্যাপারে নাফ নদে সর্বোচ্চ সতর্ক পাহারায় রয়েছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। এ লক্ষ্যে সোমবার সকালে টেকনাফের দমদমিয়ায় নাফ নদ সীমান্তে স্পিড বোট দিয়ে জালিয়ার দ্বীপে টহল বাড়িয়েছে বিজিবি।

টেকনাফ ব্যাটালিয়ন (বিজিবি-২) অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. মহিউদ্দীন আহমেদ রোহিঙ্গার অনুপ্রবেশ ঠেকানো হচ্ছে জানিয়ে বলেন, ‘নাফ নদ অতিক্রম করে মিয়ানমারের রোহিঙ্গা নাগরিকদের পাশাপাশি কোনো লোকজন যাতে টেকনাফ সীমান্ত দিয়ে অনুপ্রবেশ করতে না পারে, সে জন্য অতিরিক্ত বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। সকাল থেকে দমদমিয়ার নাফ নদ সীমান্তে বিজিবির তিনটি স্পিড বোটের টহল অব্যাহত রয়েছে।’ 

আরও পড়ুন: খুলনায় গৃহবধূর চোখে-মুখে ‘সুপার গ্লু’ দিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, মালামাল লুট


এদিকে মিয়ানমারের মংডু থেকে ছোট ছোট ট্রলারে টেকনাফ সীমান্ত দিয়ে কয়েকদিন ধরে সীমান্তে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করছে অনেক রোহিঙ্গা। তবে একজন রোহিঙ্গাও যাতে সীমান্ত ডিঙাতে না পারে, তা নিশ্চিত করতে সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থায় রয়েছে বিজিবি। 

কর্নেল মহিউদ্দীন আহমেদ বলেন, বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে লোকজন অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালাচ্ছে কিন্তু আমরা নতুন করে কাউকে ঢুকতে দিচ্ছি না। আজকে পর্যন্ত ১৩৭ জনকে প্রতিহত করা হয়েছে। অন্য দিনের তুলনায় এ দিন সীমান্ত শান্ত ছিল। 

অন্যদিকে রোহিঙ্গা অধ্যুষিত মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সরকারি বাহিনীর সঙ্গে আরাকান আর্মির চলমান তুমুল লড়াই ও গোলাগুলির শব্দে ৪ থেকে ৭ ফেব্রুয়ারির মধ্যে সেনাসহ ৩৩০ জন বিজিপি সদস্য বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়। তাদের ফেরত যাওয়ার বিষয়ে এখনও কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি।


Leave Your Comments


গুলশানে ছাদ থেকে লাফিয়ে স্পেনের কূটনীতিকের মৃত্যু

প্রকাশিত :  ১৩:৪০, ০৩ মার্চ ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট: ১৩:৫০, ০৩ মার্চ ২০২৪

রাজধানীর গুলশানে একটি ভবনের ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ে স্পেনের এক নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। তার নাম ইসমাইল গিল সেরেনো (৫৮)।

রোববার (৩ মার্চ) দুপুর ২টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে। পুলিশের ধারণা, তিনি আত্মহত্যা করে থাকতে পারেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে স্পেনের দূতাবাসের এক কূটনীতিক বলেন, ‘তিনি (ইসমাইল গিল সেরানো) গত চার-পাঁচ দিন ধ‌রে অস্বাভা‌বিক আচরণ ক‌রে আস‌ছি‌লেন। রাস্তার মানুষকে মারধর ও ফোন ছি‌নি‌য়ে নেওয়ার ম‌তোও ঘটনা ঘ‌টি‌য়ে‌ছেন তি‌নি। দূতাবাসেও তিনি বিভিন্ন কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে উগ্র আচরণ করতেন। সহকর্মীদের মারধরও করেছেন।’  

ক্রাইমসিনের পুলিশের এক কর্মকর্তা জানান, ‘একটা সুইসাইড নোট পাওয়া গেছে। সেখানে তিনি বলেছেন-‘তার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়, তিনি শান্তি চান।’

img