img

রোজায় মুখে দুর্গন্ধ হলে কী করবেন?

প্রকাশিত :  ০৮:৫৯, ২৭ মার্চ ২০২৪

রোজায় মুখে দুর্গন্ধ হলে কী করবেন?

চলছে রমজান মাস। প্রতিদিন দাঁত ব্রাশ করলেও রোজা থাকা অবস্থায় মুখে দুর্গন্ধ হতে পারে।এমনিতেই  দীর্ঘ সময় না খাওয়ার কারণে মুখে কেমন যেন দুর্গন্ধ হয়। চিকিৎসা পরিভাষায় একে বলা হয় ‘হ্যালিটোসিস’ । রোজার সময়ে  অনেকেই এই সমস্যার সম্মুখীন হন। এটা বেশ বিব্রতকরও । তবে, সাধারণ কিছু বিষয় মাথায় রাখলেই এই সমস্যা সহজে এড়ানো যায়।

মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে কী করবেন 

১. চিকিৎসকরা বলছেন, দীর্ঘ সময় পানি না খাওয়ার কারণে শরীর ডিহাইড্রেটেড হয়ে পড়ে। এতে মুখে দুর্গন্ধ হতে পারে। এ কারণে রোজা ভাঙা মাত্রই পর্যাপ্ত পানি পান করতে হবে। 

২. মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে দাঁতের আনাচ-কানাচে খাবার জমতে না দেওয়া যাবে না। এই সমস্যা সমাধানে সবচেয়ে কার্যকর উপায় হচ্ছে দাঁত ব্রাশ করা। যত ক্ষণ বাড়িতে থাকবেন, প্রতি বার খাওয়ার পর দাঁত ব্রাশ করার অভ্যাস করুন। 

৩. দাঁত ব্রাশ করা সবসময় সম্ভব না হলে খাওয়ার পরে মুখ ধোয়ার জন্য মাউথওয়াশ ব্যবহার করতে পারেন। এতে মুখের দুর্গন্ধ দূর হবে। 

৪. দীর্ঘ ক্ষণ রোজা রাখার পর মিষ্টিজাতীয় খাবার না খাওয়াই ভালো। কারণ, অতিরিক্ত চিনি মুখে ব্যাকটেরিয়ার বৃদ্ধি ঘটায়। এতে দাঁতের উপর যে এনামেলের পরত থাকে, তা উঠে যায়।

৫.অনেকসময় দাঁত, মাড়ির সমস্যা থাকলেও মুখে দুর্গন্ধ হতে পারে। তাই আগে সেই সমস্যার সমাধান করুন। দাঁতের তেমন কোনও সমস্যা না থাকলেও নির্দিষ্ট সময় পর পর দাঁত পরীক্ষা করানো জরুরি।

img

মাঝেমধ্যে একা চুপচাপ বসে থাকাও কেন জরুরি

প্রকাশিত :  ১২:৪৭, ২৪ এপ্রিল ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট: ১২:৫৪, ২৪ এপ্রিল ২০২৪

সারাদিন তো কাজ আর কাজ। নিজের জন্য আলাদা করে সময় বের করার সময় পান না। মনোরোগ বিশেষজ্ঞদের মতে,ভালো থাকতে নিজেকে সময় দেওয়া খুবই জরুরি। এজন্য মাঝেমধ্যে একা একাই বসে থাকার চেষ্টা করবেন। এই বসে থাকা মানে শুধুই বসে থাকা। অর্থাৎ আর কোনও কাজ করা নয়। একদম চুপ করে বসে থাকা। গবেষকরা বলছেন, এর বেশ কিছু উপকার রয়েছে। এতে শরীর ও মন দুই-ই ভালো থাকে। 

চুপচাপ কোনও কাজ না করে বসে থাকলে কী কী উপকার হয়-

মেজাজ ভালো থাকে: মনোরোগ বিশেষজ্ঞদের মতে, এতে মন মেজাজ ভালো থাকে। কোনও কারণে মন বিক্ষিপ্ত ও খারাপ থাকলে এভাবে কিছুক্ষণ বসে থাকতে পারেন। নিজেকে সময় দিলে আবার পুরোনো পরিস্থিতিতে ফিরে আসা যায়। 

কাজ করার ক্ষমতা বাড়ে: চুপচাপ একাকী বসে থাকলে কাজ করার ক্ষমতাও বাড়ে। কারণ এতে মনঃসংযোগ করার ক্ষমতা বাড়ে। পাশাপাশি দক্ষতাও বাড়ে।

যে কোনও শিক্ষা গভীর হয়: প্রতিদিনই আমরা কোনো না কোনো অভিজ্ঞতার মধ্যে দিয়ে যাই‌। এসব আমাদের নানা শিক্ষা দেয়। কিন্তু এই শিক্ষাগুলি আত্মস্থ করার জন্য নিজের সঙ্গে নিজের বোঝাপড়া জরুরি। চুপটি করে বসে থেকে কোনও কাজ না করলে মন সেই সময়টা পায়। 

সৃজনশীল ক্ষমতা বাড়ে : একা কিছু না করে বসে থাকলে সৃজনশীল ক্ষমতা বাড়ে। মন নতুন কিছু ভাবতে পারে। 

চাপ কমে:  সারাদিন নানা ধরনের কাজের চাপে মন ও শরীর ক্লান্ত হয়ে পড়ে। চুপ করে বসে থাকলে এ ধরনের কমাতে সাহায্য করে। 

নিজেকে সময় দেওয়া: পরিবার, সংসার, অফিস সবকিছু সামলেও নিজেকে সময় দেওয়া খুব জরুরি। এভাবে কিছুক্ষণ কাজ না করে বসে থাকলে নিজেকে সময় দেওয়া যায়। যা নিজেকে ভালোভাবে গড়ে তুলতে ভুলগুলি শুধরে নিতে জরুরি।