img

হারের দিনেও অনন্য রেকর্ড ধোনির

প্রকাশিত :  ০৪:৫৮, ০১ এপ্রিল ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট: ০৫:০১, ০১ এপ্রিল ২০২৪

হারের দিনেও অনন্য রেকর্ড ধোনির

ক্রিকেট অঙ্গনের বড় তারকা মহেন্দ্র সিং ধোনি এক বছর পর ব্যাট হাতে নেমেছেন। চার-ছয়ের পসরায় ১৬ বলে করেছেন ৩৭ রান। চেন্নাইয়ের আনন্দের কারণ সেটিই।

ধোনি যে মাঠে খেলেন, সেটিই নাকি তার হোম ভেন্যু। কথাটা যে বাড়াবাড়ি নয়, তা টের পাওয়া গেল দিল্লি ক্যাপিটালসের বিপক্ষে ম্যাচে। চেন্নাইয়ের হার প্রায় নিশ্চিত। এমন সময় ক্রিজে ৪২ বছরের ধোনি। প্রিয় ‘থালা’ যখন মাঠে নামছেন তখন বিশাখাপত্তমে কান পাতা দায়। 


তবে এদিন ধোনি ফিনিশার রোলে সফল হলেন না। চেন্নাই হারল ২০ রানের ব্যবধানে। চলতি আসরে যা তাদের তৃতীয় হার। কিন্তু হেরে যাওয়া ম্যাচেও অনন্য নজির গড়ছেন ধোনি। যে কীর্তিতে তিনি একাই অবস্থান করছেন। তার পাশে নেই আর কেউই।

প্রথম উইকেটকিপার হিসাবে এদিন ৩০০তম ডিসমিসাল ধোনি। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের সফলতম উইকেটকিপারও তিনিই। ধোনির ৩০০ ডিসমিসালের মধ্যে রয়েছে ২১৩টি ক্যাচ এবং ৮৭টি স্ট্যাম্পিং। রোববার রবীন্দ্র জাদেজার বলে পৃথ্বী শয়ের ক্যাচ ধরার পরেই এই নজির গড়েন তিনি।

এই তালিকায় ধোনি অবশ্য বেশ আগে থেকেই শীর্ষে অবস্থান করছেন। তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন পাকিস্তানের প্রাক্তন উইকেটকিপার কামরান আকমল। তিনি ২৭৪টি ডিসমিসাল করেছেন। যার মধ্যে ১৭২টি ক্যাচ এবং ১০২টি স্টাম্পিং করেছেন। তৃতীয় স্থানে থাকা দীনেশ কার্তিকেরও ২৭৪টি ডিসমিসাল (২০৭টি ক্যাচ এবং ৬৭টি স্ট্যাম্পিং) রয়েছে।


img

ইতিহাস গড়লেন বাংলাদেশি নারী বক্সার জিন্নাত ফেরদৌস

প্রকাশিত :  ০৯:১২, ২৪ এপ্রিল ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট: ০৯:৫৬, ২৪ এপ্রিল ২০২৪

বক্সিংয়ে ইতিহাস গড়েছেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী জিন্নাত ফেরদৌস। প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে আফ্রিকার ডারবানে জিতেছেন ম্যান্ডেলা কাপের স্বর্ণপদক। এটিকে গেল দেড় দশকে দেশের বক্সিংয়ে সেরা সাফল্য মনে করেন ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক। 

দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত নেলসন ম্যান্ডেলা কাপ আন্তর্জাতিক বক্সিং প্রতিযোগিতায় গতকাল সোনা জয় করেছেন বাংলাদেশের যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী বক্সার জিনাত ফেরদৌস। ৫০ কেজি ওজন শ্রেণিতে তিনি ফাইনালে হারিয়েছেন ইথিওপিয়ার প্রতিযোগীকে। বিদেশের মাটিতে এমন সফলতার পর গর্বিত দেশের বক্সিং সংশ্লিষ্টরা।

জিন্নাত ফেরদৌসের বক্সিংয়ে আবির্ভাব গত বছর হঠাৎ করেই। তিনি লাল-সবুজের হয়ে অংশ নেন এশিয়ান গেমসেও। সেখানে যদিও প্রথম বিশ্বমঞ্চে তেমন ভালো কিছু করতে পারেননি।

এরপর যুক্তরাষ্ট্রে ব্যক্তিগত কোচের কাছে ট্রেনিং চালিয়ে যান জিন্নাত। তার ঝুলিতে অবশেষে সাফল্য ধরা দিয়েছে। দক্ষিণ আফ্রিকায় ম্যান্ডেলা কাপে গোল্ড জিতেছেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী জিন্নাত।

বক্সিং ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম তুহিন বলেছেন, জিন্নাতের স্বর্ণপদক জয় দেশের বক্সিংয়ের জন্য অনেক বড় একটি সফলতা। তার স্বর্ণ জয়ই দেশের সেরা সাফল্য। জিন্নাতের পারফরম্যান্স, অভিজ্ঞতা ও ফাইটিং দক্ষতা খুবই ভালো। আগামী মাসের ২৫ তারিখ থেকে শুরু হওয়া ফাইটে ভালো কিছু আশা করতে পারি।’