img

নেতানিয়াহু মানসিক ভারসাম্য হারিয়েছেন: ইরান

প্রকাশিত :  ০৫:১৮, ০২ এপ্রিল ২০২৪

নেতানিয়াহু মানসিক ভারসাম্য হারিয়েছেন: ইরান
ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ও ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আবদুল্লাহ
ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ও ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আবদুল্লা

দখলদার ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ‘মানসিক ভারসাম্য হারিয়েছেন’ বলে মন্তব্য করেছেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আবদুল্লাহ। সিরিয়ার দামেস্কে ইরানি কনস্যুলেটে হামলার পর প্রতিক্রিয়ায় এ কথা বলেন তিনি। মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) এক প্রতিবেদনে এমনটা জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদ সংস্থা আলজাজিরা।

হোসেইন আমির আবদুল্লাহ বলেন, সিরিয়ার রিয়ার দামেস্কে ইরানের কনস্যুলেটে হামলা ইসরায়েলের ‘গাজায় ইসরায়েলি শাসনের ধারাবাহিক ব্যর্থতা ও ইহুদিবাদীদের উচ্চাভিলাষী লক্ষ্য অর্জনে ব্যর্থতার ফলাফল। তিনি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছ থেকে ‘গুরুতর জবাব প্রদানের আহ্বান’ও জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন: ড্রোন হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত ইসরায়েলি সামরিক ভবন

এদিকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নাসের কানানি বলেছেন, ইসরাইলের বিরুদ্ধে কী ধরনের ‘প্রতিক্রিয়া ও শাস্তি’ কার্যকর করা হবে সে বিষয়ে ইরান সিদ্ধান্ত নেবে।

এদিকে সিরিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, ইসরাইলি হামলায় ইরানের কনস্যলেট ভবনটি পুরোপুরি ধসে গেছে এবং ভবনের ভেতর যারা ছিলেন তাদের সবাই আহত ও নিহত হয়েছেন।

তবে ইসরাইলি হামলায় সিরিয়ায় নিযুক্ত ইরানি রাষ্ট্রদূত হোসেন আকবারি এবং তার পরিবারের কোনো সদস্য ক্ষতিগ্রস্ত হননি। কনস্যুলেটের যে ভবনটিতে হামলা হয়েছে তারা সেখানে উপস্থিত ছিলেন না। বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ইরানি বার্তাসংস্থা নূর নিউজ।


আন্তর্জাতিক এর আরও খবর

img

স্কুলে বন্দুক নিয়ে যেতে পারবেন শিক্ষকরা, যুক্তরাষ্ট্রে বিল পাস

প্রকাশিত :  ১৩:৩৬, ২৪ এপ্রিল ২০২৪

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ও ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আবদুল্লাহ

যুক্তরাষ্ট্রের টেনেসি অঙ্গরাজ্যের আইনপ্রণেতারা একটি বিল পাস করেছেন। এর ফলে সেই অঙ্গরাজ্যের শিক্ষকরা স্কুলে বন্দুক বহন করতে পারবে। বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে বলেছে যে, রিপাবলিকান পার্টির নিয়ন্ত্রিত টেনেসি হাউসে বিলটি ৬৮-২৮ ভোটে অনুমোদিত হয়।
গত বছর টেনেসির ন্যাশভিলের একটি স্কুলে বন্দুকধারীর হামলায় তিন শিশু এবং তিনজন প্রাপ্তবয়স্ক কর্মী নিহত হন। এরপর থেকেই বন্দুক আইন নিয়ে উত্তপ্ত বিতর্ক হয়েছে টেনেসিতে।
ক্যাপিটলের ভেতরে বিক্ষোভকারীদের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন হাউসের কয়েকজন ডেমোক্র্যাট আইনপ্রণেতা। এর ফলে গত বছর তাদের হাউস থেকে সংক্ষিপ্ত মেয়াদে বহিষ্কার করা হয়েছিল।

রাজ্যের প্রতিনিধি এবং ডেমোক্র্যাট দলের আইনপ্রণেতা জাস্টিন পিয়ারসন এই বিল পাসের ব্যাপারে সামাজিক প্ল্যাটফর্মে ক্ষোভ ঝেড়েছেন। এক্সে দেওয়া এক পোস্টে তিনি বলেন, এটি টেনেসি, আমাদের বাচ্চাদের, আমাদের শিক্ষকদের এবং সম্প্রদায়ের জন্য একটি ভয়ংকর দিন। বাচ্চাদের রক্ষা করার পরিবর্তে তারা আবারও বন্দুক রক্ষা করেছে!

গত ২৫ বছরে যুক্তরাষ্ট্রের স্কুলগুলোয় সংঘটিত অসংখ্য বন্দুক হামলার প্রতিক্রিয়ায় অস্ত্র আইন কঠোর করার পরিবর্তে শিক্ষকদের সশস্ত্র করার জন্য প্রায়ই চাপ দিয়ে আসছে রিপাবলিকান এবং অন্যান্য রক্ষণশীলরা। তাদের যুক্তি হচ্ছে—শিক্ষকেরা সশস্ত্র হলে তারা বন্দুকধারীদের প্রতিহত করতে পারবেন।

অন্যদিকে এই বিলের বিরোধিতাকারীরা বলছেন যে, স্কুলে বন্দুক নিয়ে আসা শুধুমাত্র হয়তো দুঃখজনক সব দুর্ঘটনার দিকেই শিশুদের পরিচালিত করবে।

গান সেফটি গ্রুপ গিফোর্ডস ল সেন্টারের তথ্যমতে, যুক্তরাষ্ট্রের প্রায় অর্ধেক রাজ্যেই শিক্ষক বা স্কুলের অন্যান্য কর্মচারীদের স্কুলের মাঠে আগ্নেয়াস্ত্র বহন করার অনুমতি রয়েছে।

টেনেসি বিলের অধীনে, যে শিক্ষক স্কুলে গোপনে বন্দুক বহন করতে চান তাকে এ সংক্রান্ত কমপক্ষে ৪০ ঘণ্টার প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করতে হবে। প্রশিক্ষণ ও আগ্নেয়াস্ত্রের খরচ সেই ব্যক্তিকেই বহন করতে হবে।

বিল অনুযায়ী, বন্দুক বহনকারী শিক্ষক বা কর্মচারীর পরিচয় প্রকাশ করা হবে না। স্কুলের দায়িত্বরতদের অবশ্যই সেই শিক্ষককে বন্দুক বহন করার অনুমতি দিতে হবে এবং স্থানীয় আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কাছে বন্দুক বহনকারীর পরিচয় জানাতে হবে।

আন্তর্জাতিক এর আরও খবর