img

গুগলে যে ৪ বিষয়ে সার্চ করলেই পড়বেন বিপদে

প্রকাশিত :  ০৭:৪৬, ০২ এপ্রিল ২০২৪

গুগলে যে ৪ বিষয়ে সার্চ করলেই পড়বেন বিপদে

কমবেশি সবাই সারাদিন অসংখ্যবার গুগল ব্যবহার করেন। যখন যা কিছু জানতে ইচ্ছা হয় কয়েকটি ক্লিকেই গুগল থেকে জেনে নিতে পারছেন। যদিও গুগলে এমন কিছু বিষয় আছে যা সার্চ করলেই পড়তে পারেন বিপদে। গুনতে হতে পারে বড় জরিমানা।

১. স্প্যামজাতীয় বিষয়

গুগল স্প্যাম জাতীয় বিষয়বস্তুর অনুমতি দেয় না। যেমন- আনসোলিসিটেড ই-মেইলস বা কমেন্ট। কাউকে স্প্যাম মেল পাঠালে আপনাকে ব্যান করা হতে পারে।

২. ম্যালওয়্যার

গুগলে ম্যালওয়্যার জাতীয় কিছু করা যাবে না। যেমন ভাইরাস এবং ট্রোজান হর্স। এই দুটো নাম গুগলে খুঁজতেও যাবেন না। আপনি যদি ম্যালওয়্যার ডাউনলোড করেন বা অন্য কোথাও এর ফাইল শেয়ার করেন, তাহলে আপনাকে ব্যান করা হতে পারে। এমনকি জরিমানাও হতে পারে। যা অপরাধ হিসেবে বিবেচিত।

৩. প্রতারণার পরিকল্পনা

গুগল জালিয়াতি বা প্রতারণার অনুমতি দেয় না। যেমন- ফিশিং এবং জাল রিভিউ। গুগলে এমন কিছু সার্চ করলেই জেল জরিমানা হতে পারে আপনার।

৪. নীতি লঙ্ঘন

গুগলের নিজস্ব নীতিমালা রয়েছে। অশ্লীল ভাষা, বর্ণবাদী মন্তব্য, কারও ব্যক্তিগত তথ্য শেয়ার করা যাবে না। এসব করলে জরিমানা হবে। এমনকি গুগল থেকে আপনাকে ব্যানও করে দেওয়া হতে পারে। এ ছাড়া বিস্ফোরকদ্রব্য, গর্ভপাত, চাইল্ড পর্ন এসব বিষয় গুগলে সার্চ করলে নিশ্চিত জেলেও যেতে হতে পারে। তাই এসব বিষয় সার্চ করা থেকে বিরত থাকুন।

img

ইসরায়েলের সঙ্গে গুগলের চুক্তি, বিরোধিতা করায় চাকরি গেল ৫০ জনের

প্রকাশিত :  ১১:০৭, ২৪ এপ্রিল ২০২৪

দখলদার ইসরায়েল সরকারের সঙ্গে গুগলের ক্লাউড কম্পিউটিং চুক্তির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করায় ২০ জন গুগল কর্মীকে বরখাস্ত করেছে। বিরোধিতাকারী গোষ্ঠীর মতে, এ নিয়ে মোট ৫০ জন কর্মী চাকরি হারিয়েছেন। খবর সিএনএন

নো টেক ফর দ্য অ্যাপার্থাইড’ শীর্ষক এই গোষ্ঠীর প্রতিবাদকারীরা গত সপ্তাহের মঙ্গলবার গুগলের কার্যালয়ে প্রতিবাদ বিক্ষোভ করেন। সোমবার সন্ধ্যায় তারা এক বিবৃতিতে জানান, গুগল ২০ জন কর্মী ছাঁটাই করেছে। এর আগের সপ্তাহে আরও ৩০ জন কর্মী ছাঁটাই করা হয়েছিল।

নো টেক ফর দ্য অ্যাপার্থাইডের দাবি, যাদের চাকরিচ্যুত করা হয়েছে, তাদের অনেকেই প্রতিবাদ বিক্ষোভে অংশ নেননি, তারা পাশে দাঁড়িয়ে সমাবেশ দেখেছেন। কর্মক্ষেত্রের এসব তৎপরতায় তারা সক্রিয় ছিলেন না। 

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এভাবে কর্মীদের চাকরিচ্যুত করার মধ্য দিয়ে গুগলের মতো মহিরুহ প্রযুক্তি কোম্পানি আগ্রাসী ও প্রতিশোধমূলক আচরণের বহিঃপ্রকাশ ঘটিয়েছে।

সিএনএনকে দেয়া এক বিবৃতিতে গুগলের মুখপাত্র বলেছেন, সেদিনের প্রতিবাদ বিক্ষোভের কারণে আরও বেশ কিছু কর্মীর চাকরি গেছে। তবে কতজন চাকরি হারিয়েছেন তা তিনি স্পষ্ট করেননি।

গুগলের মুখপাত্র আরও বলেছেন, আবারও নিশ্চিত করা হচ্ছে, যাদের চাকরিচ্যুত করা হয়েছে, তারা সবাই ১৬ এপ্রিল গুগল কার্যালয়ের ভেতরে প্রতিবাদ সমাবেশে অংশ নিয়েছিলেন। বিষয়টি সতর্কতার সঙ্গে একাধিকবার নিশ্চিত করা হয়েছে। কিন্তু সেই প্রতিবাদ সমাবেশ আয়োজনকারীদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, যাদের চাকরিচ্যুত করা হয়েছে, তাদের অনেকে এই সমাবেশ অংশ নেননি বা কার্যালয়ের কার্যক্রমে ব্যাঘাত ঘটাননি।

প্রসঙ্গত, ‘প্রজেক্ট নিম্বাস’ নামে গুগল ও অ্যামাজনের সঙ্গে ইসরায়েলের ১২০ কোটি ডলারের ওই চুক্তি রয়েছে। চুক্তির মাধ্যমে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী ও সরকারি বিভিন্ন দপ্তরকে ক্লাউড পরিষেবা ও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বা এআইসহ উন্নত প্রযুক্তি সরবরাহ করে গুগল ও অ্যামাজন।

এই চুক্তির বিরোধিতা করে মঙ্গলবার ক্যালিফোর্নিয়ায় অবস্থিত কোম্পানিটির অফিসে শীর্ষ নির্বাহীর কক্ষের সামনে বিক্ষোভ শুরু করেন ওই কর্মীরা। ওই দিন বিক্ষুব্ধরা প্রায় ১০ ঘণ্টা এই চুক্তির বিরুদ্ধে অবস্থান কর্মসূচি পালনসহ বিক্ষোভ করেন। এই কর্মসূচি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়। ওই ঘটনার পর বিক্ষোভে জড়িত নয়জনকে অনধিকার প্রবেশের অভিযোগ এনে গ্রেপ্তার করা হয়।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি এর আরও খবর