img

স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ব্রিটিশ বাংলাদেশ সোসাইটি ক্রয়ডন এর উদ্যোগে আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত :  ২০:৪৭, ০২ এপ্রিল ২০২৪

স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ব্রিটিশ বাংলাদেশ সোসাইটি ক্রয়ডন এর উদ্যোগে আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

ফজলুল হক, লন্ডনঃ ব্রিটিশ বাংলাদেশ সোসাইটি ক্রয়ডন কর্তৃক আয়োজিত ইফতার মেহফিল দোয়া ও মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ৩১শে মার্চ রবিবার এক আলোচনা সভা স্থানীয় কুইন্স কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়। 

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক কাউন্সিলার মোঃ ইসলামের পরিচালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সভাপতি নেছার আলী নিলু।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ক্রয়ডন কাউন্সিলের ডেপুটি সিভিক মেয়র কাউন্সিলর অপু শ্রীনিবাসন, কাউন্সিলে লেবার গ্রুপ লিডার কাউন্সিলার স্টুয়ার্ট কিং, কাউন্সিলার মঞ্জু শাহুল হামিদ, কাউন্সিলার মেডি হেনসন, কাউন্সিলার রিয়া প্যাটেল, কাউন্সিলার হুমায়ূন কবির, ক্রয়ডন ইস্ট সংসদীয় আসনে লেবার দলীয় সম্ভাব্য প্রার্থী কাউন্সিলার নাতাশা আয়রন, ক্রয়ডন সাউথ সংসদীয় আসনে লেবার দলীয় সম্ভাব্য প্রার্থী ব্যান টেইলার কাউন্সিলার এনিদ মলিনিউয়, আব্দুল হাই ওবিই। 

হাফিজ জাকির ইসলামের পবিত্র কুরান তেলাওয়াতের মাধ্যমে স্বাধীনতা ঘোষনার মাসকে স্মরন করে মুক্তিযুদ্ধের সকল শহীদ এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের রুহের মাগফিরাত কামনা করে দোয়া করা হয়। 

সভায় বক্তব্য রাখেন কাউন্সিলার হুমায়ূন কবির, কাউন্সিলর মোহাম্মদ ইসলাম, সংগঠনের কোষাধ্যক্ষ আসকা মিয়া প্রমুখ।


ক্রয়ডন কাউন্সিলের ডেপুটি সিভিক মেয়র বক্তব্য বলেন, ব্রিটিশ বাংলাদেশ সোসাইটি ক্রয়ডন স্থানীয় জনসাধারণকে মানুষের যে সেবা দিয়ে যাচ্ছে তা অত্যন্ত প্রশংসনীয়। এই চ্যারিটি সংস্থার উজ্জল ভবিষ্যৎ কামনা করছি।”

অনুষ্ঠানে আর উপস্থিত ছিলেন যুবায়ের কবির, ইওয়ার আলি রুনু, আমতর আলী, সামছুল হক শাহ আলম একরাম হুসেন, আজমল চৌঃ, জয়নাল মিয়া, সুফি মিয়া সজিব, আসকর আলি, সামাদ রহমান, মশিউর রহমান, কবি আসমা মতিন, রেহেনা কবির, হালিমা কবির, আনোয়ারা বেগম আলী, আসকা মিয়া, মোহাম্মদ চৌধুরী সহ আর অনেকে। 

কমিউনিটি এর আরও খবর

img

নিউইয়র্ক স্টেট সিনেট সম্মাননা পেলেন গোলাম ফারুক শাহীন

প্রকাশিত :  ১১:১১, ২৩ এপ্রিল ২০২৪

কমিউনিটি সার্ভিস, নান্দনিক ও মানবিক কাজের জন্য সম্মাননা পেয়েছেন নিউইয়র্কে বাংলাদেশী কমিউনিটি এক্টিভিস্ট গোলাম ফারুক শাহীন। গত এক দশকের বেশী সময় নানাভাবে কমিউনিটির মানুষের জন্য কাজ করছেন এই সংগঠক। কোভিড থেকে শুরু করে রমজান এবং বিভিন্ন সময় কমিউনিটির মানুষের জন্য নিরলসভাবে কাজ করায় এবার নিউইয়র্ক স্টেট সিনেট  লংআইল্যানড এলাকার নিউইয়র্কের ফোর্থ সিনেট ডিস্ট্রিক্টের সিনেটর মনিকা আর মার্টিনেজের পক্ষ থেকে সম্মাননা দেয়া হয়েছে গোলাম ফারুক শাহীনকে। খবর বাপসনিঊজ ।

নিউইয়র্কের লংআইল্যান্ডের হাগপ্যাক সিটিতে নিউইয়র্ক স্টেট বিল্ডিংয়ে আড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানে এই সম্মাননা তুলে দেয়া হয়। কমিউনিটিতে অবদান রাখায় লং আইল্যান্ডের সাফোক কাউন্টিতে প্রথমবারের মত কোন বাংলাদেশী নিউইয়র্ক স্টেটের এমন সম্মাননা পেয়েছেন।

উল্লেখ্য, কোভিডের সময় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কমিউনিটির মানুষকে সেবা দিয়েছিলেন গোলাম ফারুক শাহীন। তাছাড়া প্রতিবারই তিনি পবিত্র রমজানে লংআইল্যান্ডের ব্যাবিলন সিটিতে বিপুল সংখ্যক মানুষের জন্য ইফতারের আয়োজন করে থাকেন গোলাম ফারুক শাহীন ও তাঁর সংগঠন। সেই ধারাবাহিকতায় এবারো পবিত্র রমজানে মুসল্লীদের জন্য ইফতারের আয়োজন করেছেন।

জাতিসংঘের বিভিন্ন কাজে নিজেকে সম্পৃক্ত রেখে বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় গুরুত্বপূর্ন অবদান রাখছেন তিনি। এসব কাজের স্বীকিৃত স্বরুপ তাঁকে এই সম্মাননা দেয়া হয়েছে। নিউইয়র্ক স্টেট বিল্ডিংয়ে আয়োজিত অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ডিরেক্টর অব ডিস্ট্রিক্ট অপারেশন্স এন্ড প্রোগ্রামস মিস আডিনা বিডেনবেন্ডার। এই সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিনেটরের সহকর্মীবৃন্দ।

এমন অসাধারণ মুহুর্তে সবার কাছ থেকে অভিনন্দিত হয়েছেন গোলাম ফারুক শাহীন। এক প্রতিক্রিয়ায় এই সম্মাননা পর গোলাম ফারুক শাহীন জানান, এই সম্মাননা পাওয়ার পর দায়িত্ব বেড়ে গিয়েছে। ভবিষ্যতে আরো মানবিক কাজ করুতে অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করবে এই সম্মাননা।

এর আগে সেন্সাস অর্থাৎ আদম সুমারীর কাজও করেছেন তিনি। মসজিদে মসজিদে গিয়ে মুসলমানদের নাম অর্ন্তভূক্ত করেছেন। এছাড়া বাংলাদেশী কমিউনিটির উদ্যেগে ফ্রি ফুড বিতরন করেছেন। লংআইল্যান্ড বাংলাদেশীদের প্রথম ফেসটিভ্যাল উপলক্ষ্যে চমৎকার স্মরনিকা প্রকাশিত হয় “হদয়ে লাংআইল্যান্ড নামে। এর সম্পাদক  ছিলেন গোলাম ফারুক শাহীন। প্রতি বছর বাংলাদেশীসহ বিভিন্ন কমিউনিটির মানুষ নিয়ে স্ট্রিট ফেয়ার করে থাকেন গোলাম ফারুক শাহীন।

কমিউনিটি এর আরও খবর