img

এক মাছ ধরেই কোটিপতি তরুণ!

প্রকাশিত :  ১২:৪৩, ১১ মে ২০২৪

এক মাছ ধরেই কোটিপতি তরুণ!

বড়শি দিয়ে এক মাছ ধরেই কোটিপতি হলেন এক তরুণ। সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ায় নর্দান টেরিটোরি রাজ্যে এ ঘটনা ঘটেছে। ভেটকি প্রজাতির এ মাছের নাম বারামুন্ডি। 

‘মিলিয়ন ডলার ফিশ’ প্রতিযোগিতার আওতায় মাছটি নদীতে ছাড়া হয়েছিল। বলা হয়েছিল, যিনি মাছটি ধরতে পারবেন, তিনি পাবেন ১০ লাখ অস্ট্রেলীয় ডলার, যা বাংলাদেশি টাকায় ৭ কোটি ৭০ লাখ ৪১ হাজার (১ অস্ট্রেলীয় ডলার=৭৭ টাকা)।

৯ বছর ধরে রাজ্যটির প্রতি পর্যটকদের আকর্ষণ তৈরি করতে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন হয়ে আসছে। প্রতিবছর অক্টোবরে এ রকম শতাধিক মাছ নদীতে ছাড়া হয়। যার পুরস্কারমূল্য ১০ হাজার, ২০ হাজার ও ১ মিলিয়ন ডলার। প্রতিযোগিতা চলে মার্চ মাস পর্যন্ত। তবে এ বছর প্রতিযোগিতার মেয়াদ বাড়িয়ে এপ্রিল পর্যন্ত করা হয়। আর কী কাণ্ড, প্রতিযোগিতার শেষ দিনই মিলিয়ন ডলারের মাছটি ধরা পড়ে এই তরুণের বড়শিতে।

এক মাছেই কোটিপতি বনে যাওয়া তরুণের নাম কিগান পেইন (১৯)। কিগান স্থানীয় ক্যাথরিন এলাকার বাসিন্দা। মাছটিকে ধরার পর তিনি ভেবেছিলেন এটা কোনো তেলাপিয়া মাছ। পরে তার বোন অ্যাডিসন মাছটির গায়ে থাকা শনাক্তকরণ ছোট যন্ত্রটি দেখে বুঝতে পারেন মাছটির কদর। এরপর প্রতিযোগিতা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তারা তৎক্ষণাৎ একটি সংবাদ সম্মেলনের আয়োজনে করে কিগানকে ১০ লাখ ডলারের চেক দেয়।

হঠাৎ পাওয়া এই অর্থ দিয়ে কী করবেন তিনি, এমন প্রশ্নের জবাবে কিগান বলেন, আমরা অনেক বড় পরিবার। আট সদস্য আমাদের। এত ডলার আমাদের কল্পনাতীত। আমি অনেক খুশি। আমি যা খুশি কিনতে পারব, এমনকি মা-বাবার আবাসন ঋণ পরিশোধেও ওই অর্থ কাজে লাগবে।

 

img

ইসরাইল অভিমুখী জাহাজ ডুবে যাওয়ার ভিডিও প্রকাশ করল হুথি বাহিনী

প্রকাশিত :  ১০:১৪, ২০ জুন ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট: ১০:৩৫, ২০ জুন ২০২৪

ইয়েমেনের সশস্ত্র বাহিনী ইসরাইল অভিমুখী একটি জাহাজে তাদের ভয়াবহ হামলার ভিডিও প্রকাশ করেছে। জাহাজটি ইয়েমেনের নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘন করে লোহিত সাগর দিয়ে ইসরাইলের বন্দরে প্রবেশের চেষ্টা করছিল।  টিউটর নামে গ্রিসের ইভ্যালেন্ট শিপিং কোম্পানির একটি জাহাজ এক সপ্তাহ আগে ইয়েমেনের সামরিক বাহিনীর ভয়াবহ হামলার শিকার হয়। ওই হামলা এবং ডুবে যাওয়ার ভিডিও গতকাল (বুধবার) প্রকাশ করেছে হুথি আনসারুল্লাহ আন্দোলন সমর্থিত সামরিক বাহিনী।

লাইবেরিয়ার পতাকাবাহী, গ্রিক মালিকানাধীন ও পরিচালিত বাল্ক ক্যারিয়ারটি এক সপ্তাহ আগে হুথি বাহিনীর ভয়াবহ হামলার শিকার হয়। ওই হামলা এবং ডুবে যাওয়ার ভিডিও বুধবার প্রকাশ করেছে হুথি বাহিনী।  

জাহাজটি ইয়েমেনের নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘন করে লোহিত সাগর দিয়ে ইসরাইলের বন্দরে প্রবেশের চেষ্টা করছিল বলে দাবি করেছে গোষ্ঠীটি। ফুটেজে দেখা যায়, লোহিত সাগর দিয়ে ইসরাইলের দিকে যাওয়ার সময় দুটি ড্রোন-বোট জাহাজটিতে আঘাত করে। এর ফলে জাহাজটি ডুবে যায়।  

দি টিউটর নামে ওই জাহাজটির ডুবে যাওয়া বিদ্যমান পরিস্থিতিতে উত্তেজনা আরও বাড়াবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সোমবার হোয়াইট হাউসের জাতীয় নিরাপত্তা মুখপাত্র জন কিরবি বলেছেন, হামলায় এক ক্রু নিহত হয়েছেন, তিনি ফিলিপাইনের নাগরিক।

গত নভেম্বর থেকে হুথিরা ওই এলাকা দিয়ে চলাচলকারী অর্ধশতাধিক হামলা চালিয়েছে। তারা একটি জাহাজ দখল করেছে, দুটি ডুবিয়ে দিয়েছে বলে মার্কিন কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। মার্কিন নেতৃত্বাধীন কোয়ালিশন হুথিদের বিরুদ্ধে ব্যাপক বোমা হামলা চালিয়ে যাচ্ছে।

কিন্তু তবুও তাদের হামলা বন্ধ করা যাচ্ছে না। হুথিরা দাবি করছে, ইসরাইল যতক্ষণ না গাজায় হামলা বন্ধ করবে, ততক্ষণ তারা এই হামলা বন্ধ করবে না।