img

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ: বাংলাদেশের ম্যাচ কবে কখন?

প্রকাশিত :  ০৯:২৭, ১৫ মে ২০২৪

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ: বাংলাদেশের ম্যাচ কবে কখন?

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের নবম আসর আগামী ২ জুন থেকে মাঠে গড়াবে। তবে বাংলাদেশ দলের বিশ্বকাপ মিশন শুরু হবে ৮ জুন থেকে। যেখানে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে টাইগারদের বিশ্বকাপ মিশন, ভেন্যু যুক্তরাষ্ট্রের ডালাস।

এরপর নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ১০ জুন বাংলাদেশ লড়বে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে ১৩ জুন নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে খেলবে টাইগাররা। এরপর ১৭ জুন নেপালের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে গ্রুপপর্ব শেষ করবে বাংলাদেশ। 

আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আয়োজক যুক্তরাষ্ট্র ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ২৯ দিন ব্যাপী এই বিশ্বকাপের ফাইনাল হবে ২৯ জুন, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বার্বাডোজে। মোট ৯টি ভেন্যুতে বিশ্বকাপের ৫৫টি ম্যাচ হবে। ভেন্যু হিসেবে রয়েছে বার্বাডোজের কেনিংটন ওভাল, ত্রিনিদাদের ব্রায়ান লারা ক্রিকেট অ্যাকাডেমি, ত্রিনিদাদের প্রোভিডেন্স স্টেডিয়াম, গায়ানার স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস স্টেডিয়াম, অ্যান্টিগার ড্যারেন স্যামি ক্রিকেট গ্রাউন্ড ও সেন্ট লুসিয়ার অ্যারন্স ভ্যালি স্টেডিয়াম।

গ্রুপ ‘এ’-তে তারা আছে আয়ারল্যান্ড, স্বাগতিক যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার সঙ্গে। ‘বি’ গ্রুপে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, নামিবিয়া, স্কটল্যান্ড ও ওমান খেলবে। আর ‘সি’ গ্রুপে আছে নিউজিল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, আফগানিস্তান, উগান্ডা ও পাপুয়া নিউগিনি। ‘ডি’ গ্রুপে পড়েছে বাংলাদেশ, দক্ষিণ আফ্রিকা, শ্রীলঙ্কা, নেদারল্যান্ডস ও নেপাল।

৮ জুন- প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা (সকাল ৬টা ৩০) ভেন্যু- ডালাস

১০ জুন- দক্ষিণ আফ্রিকা (রাত ৮টা ৩০) ভেন্যু- নিউইয়র্ক

১৩ জুন- নেদারল্যান্ডস (রাত ৮টা ৩০) ভেন্যু- সেন্ট ভিনসেন্ট

১৭ জুন- নেপাল (ভোর ৫টা ৩০) ভেন্যু- সেন্ট ভিনসেন্ট

img

হায়দরাবাদকে হারিয়ে আইপিএলের তৃতীয় শিরোপা কলকাতার

প্রকাশিত :  ১৮:৪০, ২৬ মে ২০২৪

পুরো আসরজুড়ে খরুচে বোলিং করে আসা কলকাতার পেসার মিচেল স্টার্ক কোয়ালিফায়ারের পর ফাইনালেও হয়ে উঠলেন দুর্বার। দাপট দেখালেন আন্দ্রে রাসেল, হার্শিত রানাসহ বাকিরাও। হায়দরাবাদকে অল্প রানে আটকে দাপুটে জয়ে আইপিএলের শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট জিতে নিলো কলকাতা।

এর আগে ২০১২ ও ২০১৪ সালে গৌতম গম্ভীরের নেতৃত্বে দুইবার আইপিএলে চ্যাম্পিয়ন হয় বলিউড সুপারস্টার শাহরুখ খানের দল কেকেআর। এরপর ৮ বছর আইপিএলের শিরোপা জিততে পারেনি কেকেআর।

যে কারণে এবারের আসরে সাবেক অধিনায়ক গৌতম গম্ভীরকে কেকেআরের মেন্টরের দায়িত্ব দেন শাহরুখ খান। গৌতম গম্ভীরের পরামর্শে আইপিএলের ১৭তম আসরের শুরু থেকে অবিশ্বাস্য পারফরম্যান্স করে সর্বোচ্চ পয়েন্ট নিয়ে ফাইনালে উঠে যায় কেকেআর। 

আজ রোববার চেন্নাইয়ের এমএ চিদাম্বরাম স্টেডিয়ামে হায়দরাবাদকে ১৮.৩ ওভারে মাত্র ১১৩ রানে অলআউট করে ৮ বছর পর আইপিএলের শিরোপা জিতে কলকাতা নাইট রাইডার্স।

এদিন টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে আন্দ্রে রাসেল, মিচেল স্টার্ক ও হারসিত রানার গতির মুখে পড়ে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট পতনের কারণে চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়তে পারেনি প্যাট কামিন্সের নেতৃত্বাধীন সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ২৪ রান করেন অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক কামিন্স। ২৩ বলে ২০ রান করেন এইডেন মার্করাম।

কলকাতার হয়ে ২.৩ ওভারে ১৯ রানে ৩ উইকেট শিকার করেন ক্যারিবীয় তারকা অলরাউন্ডার আন্দ্রে রাসেল। ৩ ওভারে মাত্র ১৪ রানে ২ উইকেট নেন অস্ট্রেলিয়ান তারকা পেসার মিচেল স্টার্ক। ৪ ওভারে ২৪ রানে ২ উইকেট নেন ভারতীয় পেসার হারসিত রানা।

১২০ বলে ১১৩ রানের মামুলি স্কোর তাড়া করতে নেমে ১.২ ওভারে দলীয় ১১ রানে উইকেট হারান ওপেনার সুনীল নারিন। এরপর ভেঙ্কটিশ আইয়ারকে সঙ্গে নিয়ে ৪৪ বলে ৯১ রানের জুটি গড়ে দলকে জয়ের দুয়ারে নিয়ে যান ওপেনার রহমানউল্লাহ গুরবাজ।

জয়ের জন্য ৬৭ বলে কলকাতার প্রয়োজন ছিল মাত্র ১২ রান। খেলার এমন অবস্থায় আউট হয়ে ফেরেন আফগান ওপেনার রহমানউল্লাহ গুরবাজ। তিনি ৩২ বলে ৫টি চার আর ২টি ছক্কার সাহায্যে ৩৯ রান করে ফেরেন। 

চার নম্বর পজিশনে ব্যাটিংয়ে নামা অধিনায়ক শ্রেয়াস আইয়ারকে সঙ্গে নিয়ে ৫৮ বল আগেই ৮ উইকেটের জয় নিশ্চিত করেন ভেঙ্কটিশ আইয়ার। তিনি ২৫ বলে ৪টি চার আর ৩টি ছক্কার সাহায্যে ৫১ রান করে অপরাজিত থাকেন।